ফায়ারফক্স ৪ এর বেটা ভার্শন ৯ রিলিজ করলো মজিলা। এটি এখন থেকে ডাউনলোড করে ব্যবহার করা যাবে। ফায়ারফক্স ৪ এর সর্বশেষ মূল ভার্শন রিলিজ হতে যাচ্ছে এই বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে। ফায়ারফক্স ৪ নিয়ে অনেক দিন ধরে কাজ করে আসছে মজিলা এবং এর ফাইনাল ভার্শন রিলিজ বার বার পিছিয়ে যাওয়ার ফলে তাদের খরচ বেড়ে যাচ্ছে অনেক।

ফায়ারফক্স ৪ এ মজিলা বরাবরই গতি বাড়ানোর চেস্টা করে আসছে। এর সর্বশেষ বেটা ভার্শনেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। স্টার্ট আপ, কমপ্লেক্স এনিমেশন, ব্রাউজিং স্পীড এর উন্নয়ন ঘটানো হয়েছে এতে। বুকমার্ক এবং হিস্টোরিকে আরও উন্নত করা হয়েছে। তবে ইন্টারফেস আগের বেটা ভার্শনগুলোর মতই।

2011-01-15_182955তবে প্রধান সমস্যা হচ্ছে গুরুত্বপূর্ন অনেক প্লাগিন এর সাপোর্ট না থাকা। ডেভেলপাররা প্রতিনিয়ত প্লাগিন গুলো আপডেট করে চলেছে এবং আশা করা যাচ্ছে কিছু দিন এর মধ্যেই এসব প্লাগিন এর সাপোর্ট পাওয়া যাবে।

ওয়েব ডেভেলপারদের জন্য অনেক সুবিধা নিয়ে এসেছে ফায়ারফক্স ৪। এইচটিএমএল৫ এর পূর্ন সাপোর্ট, WebM এবং HD ভিডিও সাপোর্ট, WebGL এর দ্বারা থ্রিডি গ্রাফিক্স রেন্ডারিং, হার্ডওয়ার এক্সেলারেশনসহ আরও অনেক কিছু। নতুন আরও ৭টি ভাষার সাপোর্ট যুক্ত করা হয়েছে এতে এবং সাপোর্টেড ভাষার সংখ্যা বর্তমানে ৭১টি।

2011-01-15_192022বর্তমানে ফায়ারফক্স ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৪০০ মিলিয়ন এর বেশি এবং এদের উপরই মজিলা ফায়ারফক্সের নতুন এ ভার্শনের দোষ-ত্রুটি বের করার দায়িত্ব পড়েছে। এর ফিডব্যাক ফর্ম ব্যবহার করে আপনিও নতুন এ ভার্শন সম্পর্কে আপনার মতামত জানাতে পারবেন। জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে ফায়ারফক্স খুবই দ্রুতগতিতে এগিয়ে গেলেও ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারকে এটি এখনো পেছনে পারেনি। আর গুগল ক্রোমও ১০% মার্কেট শেয়ার নিয়ে অন্যতম প্রতিদ্বন্দী হিসেবে দেখা দিয়েছে। দেখা যাক ফায়ারফক্সে ৪ এর ফাইনাল ভার্শন কতটা সাড়া ফেলতে পারে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here