জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেসবুক এখন অনেক মানুষের একটা নিড হিসেবে ধরা পড়েছে। আধুনিকতার খাতিরে তা না হয় মানা গেল, কিন্তু যখন একজন ইউজার মারা যাবে তখন তার একাউন্টের কি হবে?? সাধারনত আপনার পরিচিত কোন এক ফেসবুক ইউজার যেকোন স্বাভাবিক বা অস্বাভাবিক কারনে মারা গিয়ে থাকলে আপনি অথবা তার পরিবার বা তার শুভাকাঙ্খিরা চাচ্ছেন যে তার একাউন্ট বা তার আইডি টি ডিএক্টীভেট করে দিতে। এমনটা হওয়া বা চাওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। এই ব্যাপারটি যেকোন কারনেই আপনার অথবা আপনার ফ্রেন্ড লিষ্টে থাকা যে কাউর প্রয়োজন হতে পারে। তখনি হয়তো এই পোষ্টের প্রয়োজনীয়তা পড়তে পারে। তো চলুন আগে থেকেই জেনে নিই কিভাবে কি করতে হবে।

মৃত ব্যাক্তির প্রোফাইল সম্বন্দে ফেসবুকে রিপোর্ট করাঃ

ধাপ ০১. প্রথমে আপনাকে ফেসবুক লগ ইন থেকে এই ফরমে যেতে হবে

http://www.facebook.com/help/contact.php?show_form=deceased

report-deceased-person-facebook-profile FMধাপ ০২. সকল ইনফো গুলো প্রদান করে দিন। যেমন এক্ষেত্রে আপনাকে প্রদান করতে হবে

একাউন্টের পুরো নাম

জন্ম-তারিখঃ যেটা তার প্রোফাইলে দেওয়া ছিলো

প্রোফাইলটির ইমেইল এড্রেসঃ একাউন্ট তৈরীতে যেটা ব্যবহৃত হয়েছিলো

নেটওয়ার্কঃ যাতে সে কানেক্টেড ছিলো

নির্বাচিত বাক্তির প্রোফাইল লিঙ্কঃ যেমন http://www.facebook.com/1234567890

যার সাথে সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলোঃ আত্মীয় স্বজনের মধ্যে কেউ বা অন্য কেউ

পদক্ষেপ নিতে চাচ্ছেনঃ মেমোরিয়ালাইজ প্রোফাইল দিতে পারেন

প্রমান পত্রঃ ব্যাক্তির মৃত্যু সম্বন্দে কোন খবর বা আর্তিকেল প্রকাশ পেলে তার লিঙ্ক প্রদান

ধাপ ০৩. সব কিছু ঠিক ভাবে প্রদান করে সাবমিট করুন

অবশেষে সব তথ্য ঠিক ভাবে প্রদান করলে এবং ফেসবুকের ভেরিফিকেশান শেষ হলে সাবমিট করার ২৪-৭২ ঘন্টার মধ্যে প্রোফাইল রিমোভ করা হবে।

মজার ব্যাপার হল ভেরিফাই না করতে ব্যার্থ হলে সব ফেক সাবমিশান হিসেবে প্রমান হবে। তাই কেউ অপচেষ্টা করতে বিরত থাকুন।

তা কেমন লাগলো ফেসবুকের ফিচারটি সাথে আমার পোষ্টটি জানাতে ভূলবেননা যেন 🙂

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here