জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেসবুক এখন অনেক মানুষের একটা নিড হিসেবে ধরা পড়েছে। আধুনিকতার খাতিরে তা না হয় মানা গেল, কিন্তু যখন একজন ইউজার মারা যাবে তখন তার একাউন্টের কি হবে?? সাধারনত আপনার পরিচিত কোন এক ফেসবুক ইউজার যেকোন স্বাভাবিক বা অস্বাভাবিক কারনে মারা গিয়ে থাকলে আপনি অথবা তার পরিবার বা তার শুভাকাঙ্খিরা চাচ্ছেন যে তার একাউন্ট বা তার আইডি টি ডিএক্টীভেট করে দিতে। এমনটা হওয়া বা চাওয়াটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। এই ব্যাপারটি যেকোন কারনেই আপনার অথবা আপনার ফ্রেন্ড লিষ্টে থাকা যে কাউর প্রয়োজন হতে পারে। তখনি হয়তো এই পোষ্টের প্রয়োজনীয়তা পড়তে পারে। তো চলুন আগে থেকেই জেনে নিই কিভাবে কি করতে হবে।

মৃত ব্যাক্তির প্রোফাইল সম্বন্দে ফেসবুকে রিপোর্ট করাঃ

ধাপ ০১. প্রথমে আপনাকে ফেসবুক লগ ইন থেকে এই ফরমে যেতে হবে

http://www.facebook.com/help/contact.php?show_form=deceased

report-deceased-person-facebook-profile FMধাপ ০২. সকল ইনফো গুলো প্রদান করে দিন। যেমন এক্ষেত্রে আপনাকে প্রদান করতে হবে

একাউন্টের পুরো নাম

জন্ম-তারিখঃ যেটা তার প্রোফাইলে দেওয়া ছিলো

প্রোফাইলটির ইমেইল এড্রেসঃ একাউন্ট তৈরীতে যেটা ব্যবহৃত হয়েছিলো

নেটওয়ার্কঃ যাতে সে কানেক্টেড ছিলো

নির্বাচিত বাক্তির প্রোফাইল লিঙ্কঃ যেমন http://www.facebook.com/1234567890

যার সাথে সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলোঃ আত্মীয় স্বজনের মধ্যে কেউ বা অন্য কেউ

পদক্ষেপ নিতে চাচ্ছেনঃ মেমোরিয়ালাইজ প্রোফাইল দিতে পারেন

প্রমান পত্রঃ ব্যাক্তির মৃত্যু সম্বন্দে কোন খবর বা আর্তিকেল প্রকাশ পেলে তার লিঙ্ক প্রদান

ধাপ ০৩. সব কিছু ঠিক ভাবে প্রদান করে সাবমিট করুন

অবশেষে সব তথ্য ঠিক ভাবে প্রদান করলে এবং ফেসবুকের ভেরিফিকেশান শেষ হলে সাবমিট করার ২৪-৭২ ঘন্টার মধ্যে প্রোফাইল রিমোভ করা হবে।

মজার ব্যাপার হল ভেরিফাই না করতে ব্যার্থ হলে সব ফেক সাবমিশান হিসেবে প্রমান হবে। তাই কেউ অপচেষ্টা করতে বিরত থাকুন।

তা কেমন লাগলো ফেসবুকের ফিচারটি সাথে আমার পোষ্টটি জানাতে ভূলবেননা যেন 🙂

comments

9 কমেন্টস

  1. ধন্যবাদ লাকি ফাহাদ ভাই। অনেক দিন ধরে চিন্তা করছিলাম এই বিষয় টি নিয়ে। আমি চিন্তা করছিলাম আমার মৃত্যুর পর আমার পরিচিত জনরা কিভাবে আমার একাউন্ট টি সযত্নে সরিয়ে ফেলবে। অন্যরকম সিষ্টেম করলেও পারতো। যাইহোক মার্ক যুকারবার্গ কে ধন্যবাদ এমন একটি সুন্দর সিষ্টেম রাখার জন্যে। সাথে আপনাকেও ধন্যবাদ এই প্রয়োজনীয় পোষ্ট টি করার জন্যে।

  2. বাহ !! ভালই সিস্টেম দেখছি। আমি মরে গেলে দোস্ত তুমি কাজ টা করে দিও কিন্তু 😉

    আর হ্যা এই লাইনটা কেমন জানি এলোমেলো লাগলো মজার ব্যাপার হল ভেরিফাই না করতে ব্যার্থ হলে সব ফেক সাবমিশান হিসেবে প্রমান হবে। এখানে সম্ভবত মজার ব্যাপার হল ভেরিফাই করতে ব্যার্থ হলে সব ফেক সাবমিশান হিসেবে প্রমান হবে। হবে। 🙂

  3. ইউজার মারা যাবার সাথে প্রফাইল ও মারা (গায়েব) হয়ে যাবে

  4. The best way if you are be assured that when is Navratri this sort of months, you must better get ready to transmit presents to assist you Of india to this occasion which will certainly surely stun those shut yet special methods for any max. To actually put a mild at most tasteful presenting thoughts, web site which is usually selected obtain an famous remark here isn’t really a alternative but sweets. Contemplating months, these kinds scrumptious confectioneries have in effect floored numerous humane kisses. As it’s a meaningful customary approach of regale one another well by desserts in a different ecstatic party, will be to point out is ordinarily obviously, some kind of specialized sweet treats.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.