মোটরসাইকেল আমাদের সকলেরই প্রিয় বাহন। আপনি যত দামি গাড়ি করে ঘোরেন না কেন মোটরসাইকেলের কদর’ই কিন্তু আলাদা। বাংলাদেশের বাজারে বর্তমানে সর্বচ্চ ৫ লক্ষ টাকা দামের বাইক পাওয়া যায়, যেটি হোন্ডা কোম্পানির “সিবিআর ১৫০”। কখনকি ভেবেছেন একটি বাইকের দাম কোটি টাকার উপরে হতে পারে। হ্যাঁ এমনি একটি বাইক বাজারে ছেড়েছে সুইজারল্যান্ডের মোটরবাইক কোম্পানি “ফিলিন” বাইকটির নাম দেয়া হয়েছে “ফিলিন ওয়ান”। বর্তমানে বাইকটি বাজার মূল্য ২৮ লক্ষ মার্কিন ডলার অর্থাৎ বাংলাদেশি টাকায় এটির দাম পড়বে প্রায় ২ কোটি ২০ লক্ষের মতো।

Feline-One-Motorcycle-Side

এখন প্রশ্ন হল কি এমন আছে বাইকটিতে যার কারনে এরদাম এতো? তো চলুন এক নজরে দেখে নেয়া জাক বাইকটির মূল বৈশিষ্ট্য-

বাইকটির ডিজাইন করেছেন বিখ্যাত ফরাসি ডিজাইনার ইয়াকুবা। তিনি নাকি গত ১০ বছর যাবত একটানা কাজ করেছেন এমন একটি বাইক ডিজাইন করার জন্য।

বাইকটির ইঞ্জিন ৮০১ সিসি, ৩টি সিলিন্ডার বিশিষ্ট ৪ স্টোক। ফিলিন ওয়ান তৈরিতে ব্যাবহার করা হয়েছে কার্বন ফাইবার, টাইটানিয়াম, উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন অ্যালুমিনিয়াম ও চামড়ার। এটি ১৭০ বিএইচপি ক্ষমতা সম্পন্ন।

কোম্পানিটি বলছে, ৪ বছর ধরে প্রযুক্তিগত গবেষণা চালানোর পর তারা বাইকটি উৎপাদন করেছে। ডিজাইনার ইয়াকুবা জানান, এটি মোটরসাইকেলের চেয়ে বেশি কিছু। বিলাসী গ্রাহকদের জন্য উচ্চ প্রযুক্তি ব্যবহার করে এটি বানানো হয়েছে। ১০ বছর ধরে আমি বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের সবচেয়ে ভালো ইঞ্জিনগুলো পরীক্ষা করেছি। শেষ পর্যন্ত আমি ভবিষৎ প্রজন্মের বাইক ফিলাইন ওয়ান বানাতে সক্ষম হয়েছি। তবে অবাক করা ব্যাপার হল এতো ক্ষমতা সম্পন্ন একটি বাইকের ওজন মাত্র ১৫৫ কেজি। তবে এটি সম্ভব হয়েছে শুধু মাত্র কার্বন ফাইবার ব্যবহারের মাধ্যমে।

 

সূত্রঃ- ইন্টারনেট

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.