গ্রীন হাউস প্রতিক্রিয়া সহ  বেশ কিছু কারনে পৃথিবীর তাপমাত্রা বেড়েই চলছে। ইতিমধ্যে এর বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে উদ্ভিদ ও প্রানী জগতে। মেরু অঞ্চলের বরফ গলছে এবং সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। মেরু অঞ্চলের  প্রানীদের খাদ্য চক্রে এসেছে এর প্রভাব। মাছ সহ বেশ কিছু সামুদ্রিক প্রানী তাদের আবাসস্থল পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়েছে।  তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারনে প্রাকৃতিক সমস্যার সাম্প্রতিক  খবরাখবর নিয়ে হাজির হলাম।

১. খাদ্য সংকটে পড়েছে পেঙ্গুইনঃ

penguinপশ্চিম আটলান্টিক মহাসাগরে দুই প্রজাতির পেঙ্গুইন বসবাস করে যাদের বৈজ্ঞানিক নাম যথাক্রমে Pygoscelis Antarctica এবং Pygoscelis adeliae। পৃথিবীর তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারনে সেই অবস্থানেরও প্রাকৃতিক পরিবর্তন হচ্ছে যার সাথে মানিয়ে নিতে পারছে না পেঙ্গুইনরা। বিশেষ করে এদের রয়েছে বরফে থাকার অভ্যাস। সমুদ্রের অন্যান্য প্রানীর আক্রমন থেকে বাচার জন্যও তাদের বরফাচ্ছন্ন পরিবেশ দরকার হয়। বিগত কয়েক বছরে মেঙ্গুইনের সংখ্যা অর্ধেকে কমে এসেছে। এবং এটি আরও কমে যাওয়ার আসংখ্যা করা যাচ্ছে।

২. মধ্যকার্ষণ শক্তির পরিমান তারতম্যঃ

মেরু অঞ্চলের বরফ গলে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির সাথে সাথে এবার ভিন্ন ধরনের পরিবর্তল লক্ষ করা গেছে। ভূপৃষ্ঠে কোন বন্তুর ওজন  কেন্দ্র থেকে এর দূরত্বের বর্গের ব্যস্তানুপাতিক। এ কারনে মেরু অঞ্চলে কোন বস্তুর ওজন কম এবং বিষুবিয় অঞ্চলে ওজন বেশি হয়। মেরু অঞ্চলের বরফ গলে যাওয়ায় সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বাড়ছে এবং পৃথিবীর বিভিন্ন অঞ্চলে মধ্যাকর্ষণ শক্তির পরিবর্তন লক্ষ করা গেছে। এ বেপারে  CSIRO Marine and Atmospheric Research, এর গবেষক ড. জন চার্চ জানান,

If you lose the whole West Antarctic ice sheet, which is the order of five metres, that results in about 20 per cent higher sea level rise in New York than the global average, The important thing here for some of the Pacific Islands is all of these fingerprints have a maximum in the western Pacific.

৩. মাছের আবাসস্থল

fishগত ৬০ বছরে ভাসমান সাগরের তাপমাত্রা ২ ডিগ্রী বেড়ে যায়। এবং এই তাপমাত্রা বৃদ্ধির ফলে মাছের চলাফেরাতে  বেশ কিছু সমস্যা দেখা যায়। তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারনে মাছগুলো একটি সুনিদিষ্ট এলাকায় ঘোরাফেরা করতে থাকে এবং সঠিকভাবে খদ্য সংগ্রহ করতে পারে না। উপরন্তু তাদের চলাফেরায় একটা নিয়ন্ত্রণ চলে আসে এবং বংশবৃদ্ধিতেও প্রভাব পরতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

comments

2 কমেন্টস

  1. মারাত্বক ব্যাপার, আগে কিছু জানতাম। আরো কিছু জানলাম। পোস্টটি ভাল হয়েছে। ধন্যবাদ।
    কিন্তু আমরা এ ব্যাপারে কি কোন উল্লেখযোগ্য ভুমিকা রাখতে পারি, আপসোস করা সারা।

    • এই সমস্যাটা মানুষই সৃষ্টি করেছে। শিল্প কারখানার কালো ধোয়া পৃথিবীতে সূর্যে তাপকে আটকে রাখে এবং তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে। তাই আমাদের উচিৎ বেশি বেশি গাছ লাগিয়ে প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষা করা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.