সম্প্রতি স্কাইপের মালিকানা বদল হওয়ার খবর জানেন না এমন প্রযুক্তি ব্যক্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যাবে না। সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফট এবার নিজেরা পণ্য তৈরির পরিবর্তে বর্তমান বিশ্বের জনপ্রিয়তম উপায় কোম্পানি কিনে নেয়ার দিকে হাত বাড়াচ্ছে। স্কাইপকে কিনে নিয়ে ক্ষমতাধর কোম্পানির তালিকায় নিঃসন্দেহে একধাপ এগিয়ে গেছে মাইক্রোসফট। কেননা, এর ফলে সর্ববৃহৎ ভিওআইপি সেবা এখন মাইক্রোসফটের মুঠোয়। আর এখনই সময় মুঠোফোনেরও একটি ব্যবস্থা করার। আর তাই বোধহয় মাইক্রোসফটের পরবর্তী লক্ষ্য নকিয়া

সম্প্রতি এক রাশান ব্লগার যিনি মাইক্রোসফটের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে জ্ঞান রাখেন তিনি তার ব্লগে জানিয়েছেন নকিয়াকে কিনে নেয়া নিয়ে কথাবার্তা চলছে ফিনল্যান্ড-ভিত্তিক এই মোবাইল নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ও মাইক্রসফটের মধ্যে। তিনি আরো জানিয়েছেন, ২০১১-এর শেষের আগেই এই চুক্তি সম্পাদিত হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। এর কারণ হিসেবে তিনি জানিয়েছেন, দুই কোম্পানিই তাড়াহুড়ার মধ্যে রয়েছে।

উল্লেখ্য, নকিয়া কিনে নিলে মাইক্রোসফট কেবল স্কাইপ ব্যবসার সম্প্রসারণই করতে পারবে না বরং উইন্ডোজ ফোন ৭-কেও একধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবে। এর আগে গত ফেব্রুয়ারিতে নকিয়ার সঙ্গে মাইক্রোসফটের একটি চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে যা অনুসারে নকিয়ার নতুন স্মার্টফোনগুলোর প্রাইমারি অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে উইন্ডোজ ফোন সেভেন দেয়া থাকবে। এর আগে একটি ফাঁস হয়ে যাওয়া মেমোতে দেখা গেছে মাইক্রোসফট নকিয়ার ভবিষ্যৎ খারাপ বলে মন্তব্য করেছে। এর কারণ হিসেবে তারা দেখিয়েছে প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী গুগল এবং অ্যাপল-এর পণ্য। তবে এবার মাইক্রোসফট নকিয়াকে নিজেদের করে নিয়ে এর মাধ্যমে উইন্ডোজ ফোন সেভেনের মার্কেট সম্প্রসারণের চেষ্টা চালাবে বলেই স্পষ্ট।

তবে, বাংলাদেশ-ভারতসহ এশিয়ার দেশসমূহে নকিয়ার তুমুল জনপ্রিয়তা থাকলেও যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যসহ অন্যসব দেশে আইফোন, ব্ল্যাকবেরি ও সমশ্রেণীর স্মার্টফোনের বাজারই বেশি। তাই নকিয়াকে কিনে নিলেও যুক্তরাষ্ট্র বা যুক্তরাষ্ট্রে নকিয়ার বাজার সম্প্রসারণ করার ভার মাইক্রোসফটের কাঁধেই এসে পড়বে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here