দেশের অন্যতম বৃহৎ মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন ৫ হাজার ৫শ৬০ কোটি টাকা আয় করেছে চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে। যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় শতকরা ৮ দশমিক ১ ভাগ বেশি।সোমবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় অবস্থিত জিপি হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বলা হয়, গত বছরের একই সময়ের তুলনায় নতুন গ্রাহক ও প্রদত্ত  সেবা থেকে প্রাপ্ত রাজস্ব বেড়েছে ১০ দশমিক ৯ শতাংশ। যাতে ডাটা থেকে আয়কৃত রাজস্বের অবদান বেশি। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ডাটা রাজস্ব বেড়েছে ৬৪ দশমিক ৬ শতাংশ এবং ডাটার ব্যবহারও বেড়েছে ১৮৬দশমিক ৪ শতাংশ।

একই সময় ভয়েস থেকে অর্জিত রাজস্ব বেড়েছে ৪ দশমিক ৮ শতাংশ। ২য় প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানটির ৬ দশমিক ৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়ে রাজস্ব হয়েছে ২৮১০ কোটি টাকা।

চলতি বছরের প্রথম অর্ধে গ্রামীণফোন ২ লাখ নতুন গ্রাহক সংগ্রহ করে ফলে মোটগ্রাহক সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৬৯লাখ (বিটিআরসি এর তথ্য অনুযায়ী)। গত বছরের তুলনায় এটি ৭ দশমিক ১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি এবং এতে সিম মার্কেট শেয়ার হয়েছে ৪৩ দশমিক ৩ শতাংশ (মে ২০১৬)। ৬১ লাখ ইন্টারনেট গ্রাহক যোগ হয়ে মোট ইন্টারনেট গ্রাহকের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ কোটি ১৮ লাখ।

সংবাদ সম্মেলনে গ্রামীণফোনের সিইও রাজীব শেঠি বলেন, গ্রামীণফোন অত্যন্ত সফলভাবে ২০১৬ এর প্রথম অর্ধ পার করেছে। এসময় ডাটা গ্রাহক এবং এর ব্যবহার দুটোই বেড়েছে। আমরা ১০ হাজার ৩জি বিটিএস স্থাপন শেষ করেছি। এর ফলে দেশের ৯০ শতাংশ মানুষ ৩জির আওতায় এসেছে। তিনি আরো বলেন, আমাদের ভয়েস থেকে অর্জিত রাজস্বও এবং মিনিট ব্যবহার বাড়ছে। যা আমাদের আগামীতে সাফল্যের ধারা অব্যাহত রাখতে সাহায্য করবে।

গ্রামীণফোনের সিএফও দিলীপ পাল বলেন, ২০১৬ এর প্রথম অর্ধে আমরা দুই অংকের গ্রাহক ও ট্রাফিক প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছি। আমাদের সহজ গ্রাহক কেন্দ্রিক পন্য এবং ৩জি সম্প্রসারণে অব্যাহত বিনিয়োগই এই প্রবৃদ্ধির চালিকা শক্তি। দৃঢ় রাজস্ব প্রবৃদ্ধি এবংদক্ষ ব্যয় EBITDA মার্জিন এর উন্নয়ন ঘটিয়েছে। উচ্চতর অবচয় এবংএমোর্টাইজেশন স্বত্বেও শেয়ার প্রতি আয় স্থিতিশীল আছে। তিনি আরো বলেন, আমি আনন্দের সাথে জানাচ্ছি যে গ্রামীণফোনের বোর্ড অফ ডিরেক্টর পরিশোধিত মূলধনের৮.৫% অন্তবর্তী লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। এ বছরের প্রথমার্ধে ৩জি বিস্তার, ২জি বিস্তার ও ধারণ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে গ্রামীণফোন ১৩৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে।এছাড়া কর, ভ্যাট, শুল্ক এবং লাইসেন্স ফি বাবদ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে ৩৩১০ কোটিটাকা জমা দিয়েছে।

 

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.