স্মার্টফোনটি কতটা শক্তপোক্ত বা কতোখানি আঘাত সহ্য করতে পারে তার পরীক্ষা করতে অনেকেই ‘ড্রপ টেস্ট’ করেন। এর আগে আমার একটি আইফোনের টেস্ট দেখেছিলাম যেটি চাপ দিয়ে বাকা করে ফেলা হয়েছিলো। এবার অ্যাপলের আইফোনের ড্রপ টেস্ট করা হলো। একটি আইফোন ৬ ফেলা হয়েছে মহাকাশ থেকে। কি অবিশ্বাস্য মনে হচ্ছে না?

maxresdefault

ডেইলি মেইল এর একটি প্রতিবেদনে ঠিক এমনটি বলা হয়েছে।  একটি আইফোন এবং একটি আইপ্যাড মহাকাশের স্টেশন থেকে ফেলা হয়েছে। আইপ্যাডটি মাধ্যাকর্ষণের জোরে আর পৃথিবীতে পৌঁছতে পারেনি। কোনো ব্ল্যাক হোলে হারিয়ে যায়। কিন্তু আইফোন ৬-কে টেনে নেয় পৃথিবী। এর পতন বহুভাবে দেখার চেষ্টা করা হয়েছে।

24E3054E00000578-0-image-m-23_1421799009290

একটি বেলুনে সংযুক্ত ক্যামেরা এবং ফ্লাইট রিগের গোপ্রো ক্যামেরার মাধ্যমে আইফোনটির পৃথিবীর বায়ুস্তরে প্রবেশ করা ধরা হয়। একটি আরবান আরমার গিয়ার দিয়ে মুড়িয়ে দেওয়া হয় ফোনটিকে। পৃথিবীতে আসার পর থেকে তা এক লাখ ফুট অতিক্রম করে বায়ুমণ্ডলের স্ট্রাটোস্ফিয়ার স্তরে প্রবেশ করে। মাটিতে পরার সময় যাতে এই ফোনটির কোন ক্ষতি না হয় সেজন্য ছোট একটি প্যারাস্যুট বেঁধে দেওয়া হয় ফোনে। তবে মহাকাশ থেকে পতনের সময় ফোনটিকে মাইনাস ৭৯ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রা দিয়ে আসতে হয়। এতে ফোনটির সমস্ত চার্জ শেষ হয়ে যায়। মাটিতে পরার সময় ঘণ্টায় ৭০ মাইল বেগে পড়তে থাকে আইফোন ৬। কিন্তু সঠিক সময়ে প্যারাসুট খুলে দেবার কারনে তেমন কোন ক্ষতি হয়নি ফোনটির। অবাক করা ব্যপার হলো, চার্জ করার পর দিব্যি অন হয়েছে এটি এবং ব্যবহারও করা যাচ্ছে।

ভিডিওটি দেখলে আপনারা পুরো বিষয়টি পরিস্কার হয়ে যাবেন।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.