সাইন্সফিকশন গেম খেলতে আমাদের সবার খুবি ভালো লাগে। আর তা যদি হয় ক্রাইসিস সিরিজের তা হলেত কথাই নেই। আজকে আমি আপনাদের সাথে ক্রাইসিস এর নতুন গেমটি নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি। মার্চ ২০১১ তে মুক্তি পাওয়া ফার্স্ট পারসন শুটার ক্রাইসিস ২ গেমটি ডেভেলপ করেছে ক্রাইটেক (Crytek), এবং পাবলিশ করেছে ইলেক্ট্রনিক আর্টস (EA)। গেমটি একাধারে পিসি, প্লে স্টেশন ৩ এবং এক্সবক্স ৩৬০ জন্য বাজারে ছাড়া হয়েছে। এবং মজার কথা হচ্ছে, ক্রাইসিস ২ গেমটি, ক্রাই ইঞ্জিন ৩ ব্যবহার করে ডেভেলপ করা প্রথম গেম।

crysis2coverআমি ক্রাইসিস ১ এবং ক্রাইসিস ওয়ারহেড খেলি নি, তবে ক্রাইসিস ২ আমার কাছে মারাত্বক মনে হয়েছে। যদিও ক্রাইসিস১ খেলতে গিয়ে অনেক গেমার বলে ছিল ক্রাইসিস২ সাধারণ মানুষ খেলতে পারবে না শুধু মাত্র এর কম্পিউটার কনফিগারেশন এর জন্য। আমার কথা যদি বিশ্বাস না হয়, তবে দেখে নিন ক্রাইসিস ১ এর কম্পিউটার কনফিগারেশন।

ক্রাইসিস এর যে সিরিজ গুলো বাজারে এসেছে, সেগুলো হচ্ছে;

  • ক্রাইসিস (২০০৭)
  • ক্রাইসিস ওয়ারহেড (২০০৮)
  • ক্রাইসিস ওয়ার (২০০৮)
  • ক্রাইসিস ম্যাক্সিমাম এডিশন (২০০৯)
  • ক্রাইসিস ২ (২০১১)

crysis2ঘটনা টি এমন,  একজন মেরিন সোলজার, যার কোড নেম আলকাট্রেজ কে একটি বিপদ জনক পরিস্থিতি থেকে প্রোফেট (আগের গেমের মূল চরিত্র) উদ্ধার করে। প্রোফেট নিজে ম্যানহাটন ভাইরাস এর দ্বারা আক্রান্ত হবার কারনে, প্রোফেট, আলকাট্রেজ কে তার ন্যানো স্যূট টি পরিয়ে দেয়। এবং সে আত্নহত্যা করে। এর মধ্যে ক্রাই নেট সিস্টেম, প্রোফেট কে খুঁজতে শুরু করে দেয়। আসলে তাদের মূল উদ্দেশ্য প্রোফেট নয়। তাদের মূল উদ্দেশ্য থাকে, প্রোফেটের গায়ে থাকা ন্যানো স্যুটটি। এই স্যুট টি হঠাৎ করেই কোন কারণ ছাড়াই, নিজ থেকে পরিবর্তিত হতে থাকে। বলা যায়, স্যুট টির কোন ধরনের ম্যালফাংশন এর জন্য স্যুট টি নিজে থেকেই অনেকটা আপডেট হয়ে যেতে থাকে। বিশেষত এ জন্যই ক্রাইটেক সিস্টেম এই স্যুট টির জন্য মরিয়া হয়ে উঠে।

standard_Crysis2_Screen2_03042010যেহেতু প্রোফেট এর স্যুট টি আল্কাট্রেজ এর গায়ে, সুতরাং সবাই ভাবে এটাই প্রোফেট। ক্রাইটেক সিস্টেম এর প্রশিক্ষিত যোদ্ধারা (যাদের উপরে নির্দেশ আছে প্রোফেট কে জীবিত কিংবা মৃত ধরে নিয়ে আসতে হবে) সমস্ত নিউ ইয়োর্ক সিটি তে আল্কাট্রেজ (তারা ভাবে প্রোফেট) কে খুঁজে বেড়ায়। এবং এক সময় দেখা যায়, শুধু মাত্র যে আপনাকে ক্রাইটেক সিস্টেম এর প্রশিক্ষিত যোদ্ধারাই খুঁজে বেড়াচ্ছে, তাই নয়… ভিন দেশের এলিয়েন রাও আপনাকে খুঁজে বেড়াচ্ছে। কেন ??? কেননা, ন্যানো স্যুটের টেকনোলজি টি তাদের কাছ থেকে চুরি করে নিয়ে এসেছিল ক্রাইটেক সিস্টেম… যা এখন তারা ফেরত চায়।

Picture-1-586x326সুতরাং আপনার কাজ হবে, ক্রাইটেক সিস্টেম এবং এলিয়েন দের হাত থেকে নিজেকে বাচিয়ে, নিউ ইয়োর্ক সিটি থেকে ম্যানহাটন ভাইরাস কে নির্মূল করে দেয়া। প্রোফেট বুঝতে পেরেছিলন যে, তার ন্যানো স্যূট টি কোন না কোন ভাবে, ম্যানহাটন ভাইরাসের প্রতিষেধক তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে, কিন্তু স্যূট এর মধ্যে থাকা, প্রোফেট কে রক্ষা করতে সম্পূর্ন ব্যর্থ।

গেমটিতে , আপনার ন্যানো স্যুট ২.০ আপনাকে বেশ কিছু সুবিধা দিবে। যেমন;

Crysis-2-Nano-Vision-530x332স্টেলথ মুডে আপনি সম্পূর্ন অদৃশ্য হতে পারবেন। ম্যাক্সিমাম আরমোর মুডে আপনি আপনার স্যুটের ক্ষমতা অনেক খানি বৃদ্ধি করে নিতে পারবেন। এতে করে আপনি শত্রু দের আক্রমন থেকে নিজেকে রক্ষা করে চলতে পারবেন। ভাইসরঃ ভাইসর আপনাকে কোন যুদ্ধ ক্ষেত্রের বেস্ট ট্যাক্টিক্যাল অপশন্‌স গুলো এবং কোথায় কোথায় অস্ত্র রাখা আছে তা দেখাবে। আরো থাকবে, ন্যানো ভিশন, যার দ্বারা আপনি অন্ধকারে এবং অদৃশ্য শত্রু দের সহজেই দেখতে পাবেন। আপনার স্যুট আপনাকে, শক্তিশালী করে তুলবে, যেন আপনি অনেক ভারি ভারি বস্তু, অনেক লম্বা লাফ ইত্যাদি তে আপনাকে সহায়তা করবে। আপনি এই গেমটি তে বেশ কিছু অস্ত্র ব্যবহার করার সুযোগ পাবেন, পিস্তল, এস্যাল্ট রাইফেল, সেমি অটোমেটিক শট গান, স্নাইপার রাইফেল, রকেট লঞ্চার, মাইক্রো ওয়েভ গান ইত্যাদি।

এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে আপনি আপনার স্যুট এবং বহন করা অস্ত্র কে বিভিন্ন ধরনের আপডেট করে নিতে পারবেন।

aaaপুরো গেম টি জুড়েই আপনি শুধু মাত্র চমক আর চমক দেখবেন। যাকে আপনি বিশ্বাস করবেন, দেখা যাবে সেই আপনার সাথে বিশ্বাস ঘাতকা করছে, আর যাদের কাছ থেকে আপনি পালিয়ে বেড়াবেন, তারাই আপনাকে সাহায্য করছে। থাক আর বেশি কিছু বলে গেমের মজা টা না হয় নাই মাটি করলাম। তবে গেম টির শেষে আপনার জন্য থাকবে একটি বিশাল চমক।

এবার আসুন জানা যাক, ক্রাইসিস ২ খেলতে আপনার কম্পিউটার কনফিগারেশন;

মিনিমাম লাগবে;

  • উইন্ডোজ এক্সপি, ভিস্তা অথবা সেভেন।
  • কোর ২ ডুয়ো ২.০ গিগাহার্জ, অথবা এএমডি এথলন ৬৪x২, ২ গিগাহার্জ।
  • ২ গিগাবাইট র‍্যাম, (উইন্ডোজ সেভেন অথবা ভিস্তার জন্য লাগবে ৩ গিগাবাইট)
  • গ্রাফিক্স কার্ড লাগবে যাতে ৫১২ মেগাবাইট এর ম্যামোরি আছে, এবং ডাইরেক্ট এক্স ৯.০ সি সাপোর্ট করে। তবে nVIDIA 8800GT অথবা ATI 3850HD এর নিচে নয়।

অনেক প্রশংসা করা হয়েছে গেমটি নিয়ে। সত্যি কি গেম টি এতটাই অসাধারন ????এবার আসুন দেখা যাক, কোথায় কোথায় গেমটির রেটিং কেমন ছিল;

  • Game Spy: 4.5/5.0
  • Game Trailers: 9.1/10
  • IGN: 9/10
  • Euro Gamer: 8/10
  • Game Informer: 9/10
  • Game Pro: 4.5/5
  • Game Spot: 8.5/10
  • 1UP.COM: A-
  • Official Xbox Magazine: 9/10
  • X-Play: 4/5

গেমটি আশা করি আপনারা সকলেই খেলবেন। খেলে কেমন লাগলো , এবং রিভিউ টি কেমন হলো জানাতে আশা করি ভুলবেন না।

sign3

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here