বিগত কয়েক দিনে বেশ কিছু ওয়েবসাইটে উপর্যপুরী হামলার ঘটনা ঘটে। উইকিলিকসের উপর প্রথম DDoS হামলা পরিচালনা করা হয়। প্রতি সেকেন্ডে ১০গিগাবিট পরিমানের ডাটা আদান প্রদানের চেষ্টা করা হয়। এর পর উইকিলিকসের অসহযোগী প্রতিষ্ঠানগুলোর উপরে উইকিলিকসের একদল সমর্থক টুইটার, ফেসবুক ও অন্যান্য সামাজিক নেটওয়ার্কের মাধ্যমে একত্রিত হয়ে এই আক্রমন চালায়। সবচেয়ে মজার বেপার হলো এটি কোন সুসংগঠিত হ্যাকার গ্রুপ না। যে কেউ এই আক্রমন চালাতে পারে। চলুন এ ব্যাপারে জেনে নেই কিছু তথ্য।

DDoS কি?

denial-of-service attack (DoS attack) বা distributed denial-of-service attack (DDoS attack) মূলতঃ কোন কম্পিউটারের সিপিইউ ও অন্যান্য রিসোর্স গুলো অনেক বেশি পরিমানে ব্যবহারের মাধ্যমে অনলাইন সার্ভিসটি অনেক স্লো বা অফলাইন করতে বাধ্য করে। রিসোর্স গুলোকে কয়েকজন বা কয়েকটি কম্পিউটারে এত বেশি পরিমানে ব্যবহার করতে থাকে যে অন্য কেউ সেটা ব্যবহার করতে পারে না।

LOIC প্রোগ্রাম কি?

এটি সি শার্পে লেখা একটি প্রোগ্রাম যেটির মাধ্যমে যে কোন ওয়েবসাইটের রিসোর্সগুলোকে অনেক দ্রুত কব্জা করা যায়। এটির মাধ্যমে কোন ওয়েবসাইটের মুক্ত ফাইলগুলোকে দ্রুতগতিতে ডাউনলোড করতে থাকে। ফলে আক্রমনের শিকার হতে পারে যে কোন ওয়েবসাইট। প্রোগামটি ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে। তবে যে কেউ কিন্তু এই করে সুফল নাও পেতে পারে। একদল লোকের মাধ্যমেই আক্রমন চালাতে হয় যাদের কম্পিউটারে ইন্টারনেটের গতি অনেক অনেক বেশি।

অপারেশন প্যা ব্যাক কিভাবে আক্রমন চালায়?

অপারেশন পে ব্যাক কিভাবে আক্রমন চালায়?

অপারেশন পে ব্যাক যারা পরিচালনা করে তারা (সম্ভবতঃ) কোন হ্যাকার গ্রুপ না। কয়েকটি সামাজিক নেটওয়ার্কে একত্রিত হয় এবং একই সময় এক একটা সাইটের পোর্টে আঘাত করার জন্য উৎসাহ প্রদান করা হয়। ফলে সেই নেটওয়ার্কের অর্ন্তভুক্ত অনেকে একই সাথে আক্রমন এবং সাময়িকভাবে সাইট ও তাদের সার্ভিস হুমকির মুখে পড়ে। টুইটারে এভাবেই সবাইকে আক্রমন চালাতে আহবান জানানো হয়।

অপারেশন প্যা ব্যাক কিভাবে আক্রমন চালায়?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here