অনলাইনে অর্থ আয়ের ব্যপারে মোটামুটি সবাই কমবেশি শুনেছেন। অনেকে হয়ত চেস্টাও করেছেন কিন্তু সফল হতে না পেরে হাল ছেড়ে দিয়েছেন। প্রয়োজনী দিক নির্দেশনার অভাবে অনেকে শুরু করতে চেয়েও পারেননি। অনলাইনে অর্থ আয় খুব সহজ কোন ব্যপার নয়। একটি ব্যবসায় বা চাকুরিতে যেমন পরিশ্রম করার দরকার হয়, অনেক ক্ষেত্রে অনলাইনে তার চেয়েও বেশি পরিশ্রম এবং সময় দেয়ার প্রয়োজন পড়ে। এ পথে কোন শর্টকাট নেই। অনলাইনে আপনার প্রথম ১০০ ডলার আয় করতে ১ বছরও লেগে যেতে পারে এবং এটি মেনে নিতে হবে। এসব প্রতিবন্ধকতা পার করে বাংলাদেশ এবং বিশ্বের অনেকেই প্রতি মাসে অনলাইনে হাজার হাজার ডলার আয় করছেন।

অনলাইনে আয় অর্থ উপার্যন

আমার আগের পোস্টটিতে লিখেছিলাম অনলাইনে আয় করতে চাইলে নিজেকে যে ৩টি প্রশ্ন করতে হবে সে সম্পর্কে। পোস্টটিতে অনেকেই জানতে চেয়েছেন কিভাবে এ রাস্তা ধরে এগুতে হবে এবং কোথায় এগুলো শেখা যাবে। সেসব প্রশ্নের উত্তর নিয়েই আমার আজকের পোস্ট।

১ – ওয়েব কন্টেন্ট থেকে অর্থ উপার্যন

এ পদ্ধতিতে যে কোন বিষয়ের উপর আপনার একটি ওয়েব সাইট দরকার হবে। ব্লগ অথবা সাধারন স্ট্যাটিক ওয়েব সাইট থেকে যে কোন একটি বেছে নিতে পারেন। বিষয় নির্বাচন এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ন একটি বিষয় এবং সাইটের কন্টেন্ট যথেস্ট ভাল হতে হবে। ভাল মানের পর্যাপ্ত পরিমানে কন্টেন্ট যুক্ত করার পর সেই ওয়েব সাইটে সোশ্যাল মিডিয়া এবং সার্চ ইঞ্জিন থেকে ভিজিটর আনার ব্যবস্থা করতে হবে। পর্যাপ্ত পরিমান নিয়মিত ভিজিটর পেলে নিচের যে কোন পদ্ধতি ব্যবহার করে অর্থ উপার্যন সম্ভব।

– এডসেন্সঃ ওয়েব কন্টেন্ট থেকে অর্থ উপার্যনের সবচেয়ে জনপ্রিয় পদ্ধতি হচ্ছে এডসেন্সের বিজ্ঞাপন প্রদর্শন। ভাল মানের একটি ওয়েব সাইটে সার্চ ইঞ্জিন থেকে ভিজিটর পেলে এডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে পারেন। এডসেন্স থেকে প্রতি মাসে কয়েক হাজার ডলার আয় করেন এমন অনেকেই রয়েছেন বাংলাদেশে। তবে এডসেন্স থেকে আয় করতে হলে ইংরেজীতে লেখালেখি এবং সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনে পারদর্শী হতে হবে।

– এফিলিয়েটঃ এমাজন, ক্লিকব্যাংক সহ বিভিন্ন এফিলিয়েট সেবাদাতার দেয়া লিংক ব্যবহার করেও আপনার ওয়েব কন্টেন্ট থেকে আয় করতে পারেন। এক্ষেত্রে লয়াল ভিজিটর এবং সার্চ ইঞ্জিন এর ভিজিটর প্রয়োজন।

– ওয়েব সাইট ফ্লিপিং: এই পদ্ধতিতে আপনার তৈরি করা ওয়েব সাইটটি বিক্রি করে অর্থ উপার্যন করতে পারেন। ওয়েব সাইট ক্রয়-বিক্রয়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েবসাইট flippa.com এ চোখ বুলিয়ে দেখতে পারেন এ সম্পর্কে ধারনা পেতে।

ওয়েব কন্টেন্ট থেকে অর্থ উপার্যন এর বিভিন্ন টিউটোরিয়ালে ভরপূর কয়েকটি ওয়েবসাইটঃ www.nichepursuits.com, www.SmartPassiveIncome.com, www.problogger.net

৩ – সেবা প্রদানের মাধ্যমে অর্থ উপার্যন

এ প্রক্রিয়ায় একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিভিন্ন রকম সেবা প্রদান করে আয় করা সম্ভব। গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, এসিও যেকোন একটি বিষয়ে পারদর্শী হলে একটি ওয়েব সাইট খুলে সেটির মাধ্যমে এসকল সেবা প্রদান করতে পারেন। কোন কিছুতে দক্ষ না হলে ওয়েব হোস্টিং এবং ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন সেবাদান করে আয় করতে পারেন। বাংলাদেশে অনেকগুলো প্রতিষ্ঠান রয়েছে যারা রিসেলার হোস্টিং এবং ডোমেইন বিক্রয় করে থাকে। মাত্র ১৫,০০০ টাকা আর একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেই নেমে যেতে পারেন হোস্টিং ব্যবসায়ে।

উদাহরন হিসেবে চোখ বুলিয়ে দেখতে পারেন কয়েকটি ওয়েব সাইটে… www.jaskgroup.co.uk, www.IncredibleLab.com, www.TutoHost.com

২ – ফ্রীল্যান্সিং এর মাধ্যমে অর্থ উপার্যন

এ পদ্ধতিটি অনেকটা সেবাদানের মাধ্যমে আয় করার মতই। তবে এক্ষেত্রে নিজস্ব ওয়েব সাইটের মাধ্যমে সেবা প্রদানের বদলে ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস এর মাধ্যমে সেবা প্রদান করা হয়। ফ্রীল্যান্সিং করে অর্থ উপার্যন ব্যপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে ইতোমধ্যে। ইচ্ছেমত কাজ বেছে নেয়ার সুযোগ এবং যেকোন জায়গা থেকে কাজ করার স্বাধীনতা থাকার কারনে অনেকেই ফ্রীল্যান্সিং এর দিকে ঝুঁকে পড়ছেন। ডিজাইন, ডেভেলপমেন্ট, এসিও এরকম যেকোন একটি কাজে পারদর্শী হলে যেকোন ফ্রীল্যান্সিং মার্কেট প্লেসের মাধ্যমে আয় করা সম্ভব।

ওডেস্ক টিউটোরিয়ালফ্রীল্যান্সার টিউটোরিয়াল.

৪ – ডিজিটাল পন্য বিক্রির মাধ্যমে অর্থ উপার্যন

ডিজিটাল পন্য বিক্রয় করেও অনেকেই সাফল্যের দেখা পেয়েছেন অনলাইনে। স্টক ফটো, স্টক গ্রাফিক্স, ই-বুক ইত্যাদি বিক্রয় করতে পারেন বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে।

– স্টক ফটোঃ ভাল মানের একটি ক্যামেরা থাকলে নেমে যেতে পারেন স্টক ফটো বিক্রি করে আয়ের পথে। স্টক ফটো বিক্রয়ের কয়েকটি ওয়েবসাইটঃ iStockphotoShutterstockStockxpert

– স্টক গ্রাফিকঃ স্টক গ্রাফিক্স বিক্রয় করতে পারেন graphicriver.net এ।

– ই-বুকঃ একটি ই-বুক তৈরি করে বিক্রয় করতে পারেন e-junkie.com এর মাধ্যমে।

৫ – ই-কমার্স, ক্ল্যাসিফাইড এডের মাধ্যমে অর্থ উপার্যন

– ই-কমার্সঃ বাংলাদেশে ই-কমার্সের জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়ে চলেছে। বেশ কয়েকটি ই-কমার্স সাইট সাফল্যের সাথে এগিয়ে চলেছে কয়েক বছর ধরে। এই সেক্টরটি খুব বেশি ক্রাউডেড হয়ে যাওয়ার আগেই চেস্টা করে দেখতে পারেন। টি-শার্ট বিক্রির একটি ই-কমার্স সাইট tzonebd.com এ চোখ বুলিয়ে দেখতে পারেন এ সম্পর্কে আরও ধারনা পেতে।

– ক্ল্যাসিফাইড এডঃ ক্লিকবিডি, সেলবাজার দীর্ঘদিন ধরে তাদের ব্যবসায় পরিচালনা করে যাচ্ছে বাংলাদেশে। বিক্রয় ডট কমও অল্প সময়ে ব্যপক সাফল্যের দেখা পেয়েছে। একটি ক্ল্যাসিফাইড এড সাইটও হতে পারে অনলাইনে আপনার সাফল্যের চাবিকাঠি।

= কোথায় শিখবেন এ সকল বিষয়?

অনলাইনেই খুজে পাবেন হাজার হাজার রিসোর্স। কোথাও প্রশিক্ষন নিতে চাইলে এলিফ্যান্ট রোডের ডেভসটীম রয়েছে। বিজ্ঞান প্রযুক্তি ডট কম এর পাঠকদের জন্য ডেভসটীম এর সকল কোর্সে রয়েছে ৫% ছাড়। এই ছাড় পেতে আপনার নাম এবং মোবাইল নাম্বার দিয়ে যোগাযোগ করুন bigganprojukti(@)gmail.com এ।

ভবিষ্যতে অনলাইনে আয় বিষয়ক আরও টিটোরিয়াল পেতে নিয়মিত চোখ রাখুন বিজ্ঞান প্রযুক্তিতে।

comments

9 কমেন্টস

  1. hmm very exclusive post. Thnx for suggestion and such as good post. I wish we will find also some interesting post next time. thnk u.

  2. I just want to say I am very new to blogging and site-building and actually loved you’re website. Very likely I’m likely to bookmark your blog post . You surely come with great stories. Cheers for sharing with us your web site.

  3. How do you imagine life without your child? “They were too young”, “They were too good”, “They were too healthy, “They never sin” “Why God Why?, “I can’t survive without him or her”. All of these are common feelings. Your fear is, you are afraid it will happen again, that you will loose another child or someone close to you. You begin to be a little over-protective of your other children. Please know that you are never alone, It’s ok to say I hurt, to say I’m scared, to say I need a friend. No matter how old your child is when they die, the pain of loosing your child is still the same.
    nike free kør 3 http://www.nikefreepro.eu/cheap-nike-free-kør-3-mænd-sko-outlet-24
    nike free kør 3

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.