প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রামের আয়োজনে গত ২৪ জুলাই নারীদের উদ্ভাবনী উদ্যোগ নিয়ে শুরু হয়েছে ‘উইমেন্স ইনোভেশন ক্যাম্প ২০১৭’ শীর্ষক আয়োজন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের করবী হলে অনুষ্ঠানিক ভাবে এ আয়োজনের উদ্বোধন করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বেগম মেহের আফরোজ চুমকি। এ সময়ে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম, এনডিসি এবং ইউএনডিপি বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর সুদীপ্ত মুখার্জী। অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) এবং এটুআই প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক কবির বিন আনোয়ার।

নারীদের বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করে উদ্ভাবনী উদ্যোগের মাধ্যমে সেগুলো সমাধানের জন্য এটুআই, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের সাথে যৌথভাবে উইমেন্স ইনোভেশন ক্যাম্প আয়োজন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় ‘নারীর দুর্ভোগ নিরসনে নারীর উদ্ভাবন’- প্রতিপাদ্য বিষয়ে চলতি বছর আয়োজন করা হয়েছে ‘উইমেন্স ইনোভেশন ক্যাম্প-২০১৭’।  এই প্রতিযোগিতার মূল উদ্দেশ্য হলো সমাজে নারীদের গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা চিহ্নিত করা এবং একটি উন্মুক্ত প্রতিযোগিতার মাধ্যমে নারীদের দ্বারা এগুলোর উদ্ভাবনী সমাধান আহবান করা। প্রতিযোগিতায় শীর্ষ সেরা উদ্ভাবনী সমাধানের জন্য পুরস্কার প্রদান করা হবে এবং বাস্তবায়ন উপযোগী সমাধানগুলোকে সফলভাবে বাস্তবায়নের জন্য আর্থিক অনুদান ও কারিগরী সহায়তা প্রদান করা হবে।

বিজয়ীদের দেয়া হয় পুরস্কার

উইমেন’স ইনোভেশন ক্যাম্প-২০১৭ এর জন্য গোলটেবিল বৈঠক থেকে নারীদের ৪টি অন্যতম সমস্যা সনাক্ত করা হয়েছে, যেগুলো হলো সাইবার অপরাধের শিকার নারীরা, কর্মজীবী মায়েদের বিড়ম্বনা, অব্যবহৃত নারী জনবলএবং বৃদ্ধ নারীদের বিবিধ সমস্যা। এসকল সমস্যা সমাধানে যে কোন বয়সের নারীদেরকে ব্যক্তিগতভাবে বা দলগতভাবে প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে অনলাইনে চিহ্নিত সমস্যা সমূহের উদ্ভাবনী সমাধান প্রদানের জন্যে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। বিস্তারিত তথ্য জানা যবে চ্যালেঞ্জ ডট গভ ডট বিডি ঠিকানায়। কার্যকর ও বাস্তবায়নযোগ্য শ্রেষ্ঠ উদ্ভাবন সমূহ প্রতিযোগিতায় এগিয়ে যাবে চুড়ান্ত মনোনয়নের পথে। বিজয়ী প্রকল্পসমূহ পাইলট আকারে বাস্তবায়নে এটুআই প্রোগ্রাম থেকে ২৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত অনুদান প্রদান করা হবে। অনুষ্ঠানের এক পর্যায় “উইমেন্স ইনোভেশন ক্যাম্প ২০১৬”-এর বিজয়ী ৯টি দলকে পুরস্কৃত করা হয়। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, এটুআই প্রোগ্রাম, বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী প্রতিষ্ঠান, সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগত উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ ও বিভিন্ন গণমাধ্যম কর্মী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.