বিয়ে কিংবা কর্পোরেট প্রোগ্রামের জন্য কমিউনিটি সেন্টারের হলগুলো ৩-৪ মাস কিংবা তারও বেশি আগ থেকেই বুকিং করে রাখতে হয়। যেখানে একটা প্রোগ্রামের জন্য হল বুকিং করে রাখতে হয় ৩-৪ মাস আগ থেকে, সেখানে নির্দিষ্ট প্রোগ্রামের জন্য চাহিদার ভিত্তিতে বেছে বেছে উপযুক্ত হল খোঁজার সময় আর থাকে না। আবার শুধু ভেন্যুর হল বুক করেই তো আর পরিত্রাণ মেলে না, ব্যবস্থা করতে হয় মানসম্মত খাবারের জন্য ভালো মানের ক্যাটারার, সাজসজ্জা ও লাইটিং এর জন্য ডেকোরেটর।

এছাড়াও ফটোগ্রাফার, সিনেমাটোগ্রাফার, মেক-আপ আর্টিস্ট, মেহেদী আর্টিস্ট,কার ডেকোরেটর, ফ্লাওয়ার সাপ্লায়ার,ওয়েডিং প্ল্যানার কিংবা ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট তো আছেই। এসববাদ দেয়ার আর জো নেই।

জ্যামের শহরগুলোর চেনা-অচেনা গলিতে ইভেন্টের জন্য উপযোগী ভেন্যু/হল খুঁজতে এবং এত ঝক্কি-ঝামেলা হতে মুক্তির পথ খুঁজেছেন বাংলাদেশের আইটি প্রতিষ্ঠান ‘ক্লাউড নেক্সট জেনারেশন লিমিটেড’, ‘আপনার আয়োজনের সঙ্গী’ স্লোগানকে সামনে রেখে শুরু করেছে ভেন্যু ডট কম ডট বিডি নামক একটি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন যা বিনামূল্যে কাজ করবে ইভেন্ট ভেন্যু ও ভেন্ডরদের তথ্য স্টেশন হিসেবে।

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকতা গোলজার আহমেদ বলেন,‘আপনি একটি এলাকার সমস্ত ভেন্যু-ভেন্ডর চিনবেন না, এমনটা হওয়াটাই কিন্তু স্বাভাবিক। এক্ষেত্রে মানুষজন ভেন্যু ডট কম ডট বিডি’র ওয়েবসাইটে যেকোনো ইভেন্টের জন্য এলাকা, আসন সংখ্যা, বাজেট আইডিয়াসহ নানান ধরণের চাহিদার ভিত্তিতে ভেন্যু অথবা অতিরিক্ত ভেন্ডর সার্চ করলেইপেয়ে যাবে চাহিদা অনুযায়ীভেন্যু/ভেন্ডরদের সমস্ত তথ্য সম্বলিত প্রোফাইল। সেই প্রোফাইল দেখেই কিন্তু ব্যবহারকারীরা তাদের ইভেন্টের জন্য সবকিছু নির্ধারণ করে নিতে পারবেন।’ তিনি আরো বলেন, ‘প্রথম দফায় ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটের সকলকমিউনিটি সেন্টার, কনভেনশন সেন্টার, রেস্টুরেন্ট এর মতো ইভেন্ট ভেন্যু এর পাশাপাশি প্রয়োজনীয় ক্যাটারার, ডেকোরেটর, ফটোগ্রাফারসহ যাবতীয় সব ধরণের ভেন্ডরদের প্রোফাইল পাওয়া গেলেও খুব শীঘ্রই চাহিদা মোতাবেক সার্চ করে পাবে।’

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.