দেশীয় উদ্যোক্তাদের মেন্টোরিং, ট্রেনিংসহ নানা ধরণের সহযোগিতার মাধ্যমে সফল করে তুলতে যাত্রা শুরু করেছে উদ্যোক্তাদের প্ল্যাটফর্ম ‘উদ্যোক্তাগিরি’। গত ২৮ জুলাই সন্ধ্যায় ঢাকার ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির মিলনায়তনে নতুন এই প্ল্যাটফর্মের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রমের উদ্ধোধন করা হয়। উদ্যোক্তাগিরির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী রন মাহিনুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির পরিচালনা পর্ষদ চেয়ারম্যান মো. সবুর খান। তিনি বলেন, উদ্যোক্তা মানেই নিজের ব্যবসা থাকতে হবে এমন ধারণা আসলে ঠিক না। উদ্যোক্তা মানেই ব্যবসায়ী না। এই উদ্যোক্তাদেরনিয়ে এই যেই প্ল্যাটফর্মর্ তৈরি হচ্ছে এটাও একটা উদ্যোগ।  তিনি উল্লেখ করেন, উদ্যোক্তাগিরি এমন একটি প্ল্যাটফর্র্ম হবে যেখানে দেশের ব্যাংক, ভেঞ্চার ক্যাপিটালের মতো আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো এসে সঠিক এবং কার্যকর উদ্যোক্তাদেরখুজে নেবে। তাদেরকে আর্থিক সহায়তার মাধ্যমে সফল করার পথ সুগম হবে। আর এই সফলতাই হবে তখন উদ্যোক্তাগিরির অর্জন।

আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রা শুরু হয় উদ্যোক্তাগিরিরি

অনুষ্ঠানে উদ্যোক্তাগিরি নিয়ে রন মাহিনুর বলেন, আমাদের দেশে, যারা দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়েছেন, তাদের মধ্যে বেকারত্বের হার ৭ দশমিক ৫ শতাংশ। আর যারা অনার্স-মাস্টার্স পাস করেছেন, তাদের মধ্যে বেকারত্বের হার ১৬ দশমিক ৪ শতাংশ। এই বেকারত্ব কমাতে উচ্চশিক্ষার সাথে সাথে ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট করা দরকার। আর তাই প্রযুক্তিগত ও লিডারশিপ ট্রেনিং এর মাধ্যমে দক্ষ মানব-সম্পদ তৈরি, নিজেদের কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি, ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্টসহ নতুন উদ্যোক্তা তৈরিতে বিভিন্নভাবে সহায়তা করার জন্যই ‘উদ্যোক্তাগিরি’ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।
উদ্যোক্তাগিরির কার্যক্রম নিয়ে তিনি বলেন, ‘বাজার ও পণ্য নিয়ে নানারকম বিশ্লেষণ এবং গবেষণা ফলাফলসহ একজন উদ্যোক্তা হিসেবে সফল হতে কী করতে হবে সেই সব সহযোগিতা করতে কাজ করে যাচ্ছে আমাদের উদ্যোক্তাগিরি। আমরা শুধুমাত্র বাংলাদেশের উদ্যোক্তাদেও নিয়ে কাজ করছি। যারা দেশিয় পণ্য বা সেবা নিয়ে কাজ করছে আমরা তাদেরকে প্রমোট করছি।’
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, উদ্যোক্তাগিরির সাথে কাজ করতে আগ্রহীরা তাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে নির্দিষ্ট ফর্ম পূরণের মাধ্যমে প্রোফাইল জমা দিতে পারবেন। এরপর উদ্যোক্তাগিরির পক্ষ থেকে তাদের সাথে যোগাযোগ করে উদ্যোক্তা হওয়ার গল্প তুলে এনে, তাকে প্রমোট করা হবে।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের আরও উপস্থিত ছিলেন ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ইক্যাব) সভাপতি রাজিব আহমেদ, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্য) সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ হোসেন, ডাউন টেক কমিউনিকেশনের প্রধান নির্বাহী মোস্তফা জামান, প্রিয়শপের প্রধান নির্বাহি কর্মকর্তা আশিকুল ইসলাম খান, উদ্যোক্তাগিরি অন্যান্য কর্মকর্তা সহ আরও অনেকে।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.