সাবডোমেইন একটি ডোমেইনের অংশ। আমার মনে হয় ডোমেইন এর সাথে কমবেশি সবায় পরিচিত। তারপরেও একটু বলি, ডোমেইন হচ্ছে প্রশাসনিক স্বায়ত্তশাসন, কর্তৃপক্ষ বা ইন্টারনেট নিয়ন্ত্রিত একটি রাষ্ট্র। ইন্টারনেটের ক্ষেত্রে যেকোন ওয়েবসাইট বা ব্লগ এর ঠিকানাই হচ্ছে ডোমেইন, যেমন : burhanbd.com একটি ডোমেন এবং এর সাবডোমেইন হতে পারে sub.burhanbd.com একটু খেয়াল করে দেখুন প্রথমে sub যুক্ত হয়েছে এবং তার পর .burhanbd.com . পুরোটিকে আমরা একটি সাবডোমেইন বলছি। আবার BlogSpot বা Yola তে যে ডোমেইন গুলো থোলা হয় , সবই মুল ডোমেইনের সাবডোমেইন।

তো এবার দেখাবো কোন ডোমেইনের কিভাবে সাব ডোমেইন তৈরি করতে হয়। তার আগে বলে রাখি, সাবডোমেইন নির্ভর করে হোস্টিং এর উপর। অর্থাৎ আপনি যে হোস্টিং নিয়েছেন তা সাবডোমেইনের সুবিধা দেবে কিনা অথবা কতটি সাবডোমেইনের সুবিধা দেবে। তো চলুন এবার burhanbd.com সাবডোমেইনটি খুলি ।

প্রথমে আমি আমার হোস্টিং এর cPanel এ প্রবেশ করছি ।  তারপর Domain থেকে Subdomain  এ ক্লিক । নিচের ছবিটি দেখুন ।

Subdomain
Subdomain

এর পর নিচের মতো আর একটি পেজ এলে সেখান থেকে Subdomain এর বক্সে সাবডোমেইনের প্রথমের অংশ অর্থাৎ sub বসাই । burhanbd.com তে আগে থেকে যদি এই সাবডোমেইন টি থাকতো তাহলে সবুজ টিক দিতোনা । এবার Document Root এ দেখুন /publick_html/sub, অর্থাৎ আমি যে সাবডোমেইনটা খুলতে যাচ্ছি তার ডিরেকটরি হবে রুট ডিরেকটরির ভেতরের sub নামের ফোল্ডার টি।

Create a subdoamin
Create a subdoamin

এবার Create এ ক্লিক করায় নিচের মতো আর একটি পেইজ আসল যেখানে বলা হচ্ছে যে sub.burhanbd.com সাবডোমেইনটি তৈরি হয়ে গেছে ।

Subdomain Created
Subdomain Created

এবার Go back এ ক্লিক করায় এটি আবার আগের পেইজ এ ফিতে আসলো এবং নিচে সাবডোমেইন এর লিস্ট দেখাচ্ছে।

Subdomain List
Subdomain List

এবার সাবডোমেইন এর ডিরেকটরিতে ( /publick_html/sub ) একটি html ফাইল তৈরি করে তাতে welcome message দিয়ে সাবডোমেইনটি ব্রাউজারে ওপেন করায় নিচের মতো এলো ।

Welcome to subdomain
Welcome to subdomain

আশা করি আপনিও খুব সহজে আপনার সাবডোমেইন তৈরি করতে পারবেন । ভালো থাকবেন সবায় …

comments

5 কমেন্টস

    • @ শাওন, আপনিও ধন্য+ লিখেন!, আমারও কিন্তু ধন্যবাদ (-) দিতে ইচ্ছে করেনা, আপনাকেও ধন্যযোগ।

  1. :mrgreen::mrgreen::mrgreen::mrgreen: আমার সাইটের সাবডোমেইন কিন্তু ভাই আমি অনেক কস্ট করে নিজে নিজে বানাইছি । ইশ আরো আগে কেন পোস্ট টি দিলেন না ভাই । তাইলে এত কস্ট করা লাগত না । ধন্যবাদ

  2. ধন্যবাদ শাহরিয়ার ভাইয়া খুব দরকারি পোষ্ট. . . .

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.