OnePlus
বাই মোবাইল ওয়ান প্লাস

OnePlus সিরিজের স্মার্টফোন খুব সময়ের মধ্যে বাজারে প্রাধান্য বিস্তার করতে পেরেছিল এর ভিন্নধর্মী মার্কেটিং সিস্টেমের জন্য।অন্যান্য মোবাইল ফোন কোম্পানিগুলোর মত একইভাবে তারা তাদের ব্যবসা শুরু করেনি।তাদের মার্কেটিং সিস্টেম শুরু হয় অনলাইনের মাধ্যমে।
OnePlus –এর তিনটি মার্কেটিং কৌশল রয়েছে।এই তিনটি কৌশল একত্র করলে আপনি এই সফলতার কারণ বুঝতে পারবেন।

কারণ গুলো হল-

১. ফোনটির কনফিগারেশন হাই। আর এর কনফিগারেশনের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ফোনটির মূল্য নির্ধারণ অনেক বড় একটি   সাফল্যের এর কারণ।
২. ফোনটিতে রয়েছে বেসিক কিছু হিউম্যান ন্যাচার এছাড়া অত্যাধুনিক সেন্সর। এই হ্যান্ডসেটটি শুধুমাত্র সিলেক্টেড মানুষগুলোই কিনতে পারার পদ্ধতি ছিল।একজন ব্যাবহারকারীর রেফারেন্স পেলেই শুধুমাত্র অন্যজন প্রোডাক্টটি কেনার পদ্ধতি চালু ছিল।তাই একে বলা হয় “VIP Product”।
৩. এই প্রোডাক্টগুলির বিজ্ঞাপন দেয়া হয় খুব সচেতন ভাবে।তাদের প্রতিটি বিজ্ঞাপনে তাদের নিজস্ব হ্যাশট্যাগ যোগ করা থাকে।এছাড়া প্রতিটা বিজ্ঞাপন ভীষণ পরিষ্কার এবং কিছুটা মজা করে বিজ্ঞাপন দেয়া হয় তাই মানুষ খুব সহজেই বিজ্ঞাপনগুলি গ্রহণ করতে পারে।
এই কোম্পানি তাদের প্রোডাক্ট প্রথম থেকেই সেল করা শুরু করে অনলাইনের মাধ্যমে।এদের যাত্রাই শুরু হয় অনলাইনের মাধ্যমে।তাই অন্য স্মার্টফোন কোম্পানি গুলোর থেকে এই প্রতিষ্ঠানকে বলা হয় ভিন্ন।ভিন্নধর্মী সেলিং সিস্টেমের জন্য কোম্পানিটি ইতিমধ্যেই বেশ নাম কুড়িয়েছে।
একদম শুরু থেকেই এই কোম্পানি তাদের মার্কেটিং এর দিকে বিশেষ জোর দিয়ে এসেছে। তারা তাদের মার্কেটিং এর পিছনে অনেক অর্থ ব্যয় করে এসেছে।তারা মনে করেন, ভাল পন্য মানুষের কাছে কম সময়ে পৌঁছে দেয়ার জন্য মার্কেটিং এর ভূমিকা অনেক।
অবশেষে বাংলাদেশে OnePlus এর যাত্রা শুরু হল buymobile এর হাত ধরে। OnePlus তাদের নিজস্ব সেলিং সিস্টেম চালু করল বাংলাদেশে buymobile এর মাধ্যমে।এই অনলাইন শপিং সাইটটিই বাংলাদেশে OnePlus এর একমাত্র অথোরাইজড।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.