ধরুন আপনার কম্পিউটার এ এমন একটি প্রোগ্রাম আছে, যার কাজ হচ্ছে, আপনি প্রতিদিন আপনার কী বোর্ড এ যে সমস্ত বাটন গুলো চাপছেন, তার সম্পূর্ন একটি তালিকা করে কোন একজন মানুষ এর কাছে আপনার অজান্তে পাঠিয়ে দিচ্ছে। আপনি সারাদিন, কয়েকবার আপনার ইমেইল এ লগিন করছেন, আপনি অনলাইন ব্যাংকিং করছেন, বিভিন্ন ওয়েবসাইট এ যাচ্ছেন, আপনার ক্রেডিট কার্ড দিয়ে কোন কিছু কিনছেন, কিংবা আরো অনেক কিছু। এই সমস্ত তথ্য গুলো যখন আপনি আপনার কীবোর্ড দিয়ে দিচ্ছেন, ঠিক তখনই পৃথিবীর কোন এক প্রান্তে থাকা একজন সব কিছু পেয়ে যাচ্ছে…… এখন নিশ্চই বুঝতে পারছেন, আমি কী লগারের (Key logger) কথা বলছি।

আমি খুব বেশি অ্যান্টিভাইরাস (বিভিন্ন ধরনের) ব্যবহার করি নাই, তাই ঠিক বলতে পারছিনা অন্য কেউ এ সুবিধা দেয় কি না, কিন্তু ক্যাসপারস্কাই ইন্টারনেট সিকিউরিটি ২০১১ (ক্যাসপারস্কাই ইন্টারনেট সিকিউরিটি ২০১০ তেও এই সুবিধা আছে) তে আমি দেখেছি তারা ভার্চুয়াল কীবোর্ড নামের একটি মডিউল দিয়েছে। বিশ্বাস করুন, এটা দিয়ে লিখা খুবি কষ্টের একটা কাজ।

Untitled 1

আপনার এ ধরনের কষ্টের সমধান করার জন্য QFX Software নিয়ে এসেছে কী স্ক্রেমব্লার (Key Scrambler). চলুন দেখি কিভাবে এটা কাজ করে;

কী স্ক্রেমব্লার কিভাবে কাজ করে দেখার আগে, চলুন কিছু কী পয়েন্ট জানা যাক;

গুরুত্বপূর্ন পথঃ যাখন আপনি, আপনার কীবোর্ড দিয়ে কিছু টাইপ করেন, সেই কী গুলো অপারেটিং সিস্টেম এর মধ্যে দিয়ে তার নির্দিষ্ট অ্যাপ্লিকেশান এ পৌছে। (ধরুন আপনি আপনার নাম এবং পাসওয়ার্ড মজিলা ফায়ারফক্স এ দিচ্ছেন)।

কী লগারঃ কী লগার হচ্ছে এক প্রকার মেল ওয়্যার যা সাইবার ক্রিমিনালেরা তৈরি করে আপনার গুরুত্বপূর্ন তথ্য, চুরি করার জন্য, ঠিক যখন আপনার কীবোর্ড দিয়ে আপনি কিছু টাইপ করেন। কী লগার আপনার তথ্য চুরি করে ঠিক সেগুলো নির্দিষ্ট অ্যাপ্লিকেশান এ পৌঁছাবার আগেই।

এখন আসুন দেখা যাক, কিভাবে কী স্ক্রেমব্লার কাজ করে;

2

যাখনি আপনি কীবোর্ড এর কোন কী চাপেন, কারনেলের গভীরে কী স্ক্রেমব্লার সফটওয়্যার টি তা এনক্রিপ্ট করে ফেলে।

এরপরে আপনার কী যখন তার ডেস্টিনেশন অ্যাপ্লিকেশান টিতে পৌঁছে তখন আবার কী স্ক্রেমব্লার তাকে ডিক্রিপ্ট করে ফেলে, যেন আপনি কি কী দিয়েছেন, তা আপনাকে দেখাতে পারে।

যে ধরনের কী লগার ই থাকুক না কেন আপনার সিস্টেম এ তারা শুধু মাত্র আপনার ইনফর্মেশন এর এনক্রিপ্টেড ভার্শন টাই দেখতে পাবে (বেচারা !!!)

আপনি চাইলে এখান থেকে কী স্ক্রেমব্লার (Key Scrambler) সফটওয়্যার টি ডাউনলোড করে নিতে পারেন। তিনটি ভার্সনের কী স্ক্রেমব্লার (Key Scrambler) আছে,

3

এদের মধ্যে কী স্ক্রেমব্লার – পার্সনাল (Key Scrambler- Personal) টি সম্পূর্ন ফ্রী।

comments

12 কমেন্টস

  1. আপনার লেখাটি পড়ে ভালো লাগলো,সিস্টেমটা ভালো।আর ভাই, এন্টিভাইরাসগুলা কীলগারকেও ভাইরাস হিসেবে ধরে।উদাহরনস্বরূপ আপনি কোন এন্টিভাইরাস(যেমন এভাস্ট) দিয়ে কী লগার পরীক্ষা করে দেখতে পারেন।আর ভার্চুয়াল কীবোর্ড শুধু কাস্পারস্কিতেই না,অন্য অনেক এন্টিভাইরাসেও আছে।আর কী লগার একধরনের ম্যালওয়্যার ,এরকম আরো অনেক ম্যালওয়্যার আর স্পাইওয়্যারও আছে দুনিয়াতে,সবগুলার নাম জানা সম্ভব না।তবে এসবগুলোই সাধারনত আসে ইন্টারনেট থেকে।এখন আপনি যদি এমন কিছু করেন যাতে নেট থেকে এগুলো আপনার পিসিতে না আসতে পারে তাহলে তাই বা খারাপ কি।প্রতিকারের চেয়ে তো প্রতিরোধই ভালো নয় কি?হ্যা,নেটের এই সিস্টেমের ব্যাপারে আমি পোষ্ট করব।তবে ভাইয়া,আপনার লেখাটি সুন্দর হয়েছে।আমি ইন্সটল করে দেখব।

  2. কিভাবে বুজবো জে এটি একটি কি লোগার না? এর গারানটি কে দিবে?

    • রুমমান ভাই, খুবি ভালো একটি প্রশ্ন করেছেন। একটি কাজ করা যায়, যে কোন সফটওয়্যার (যা আগে আপনি ব্যবহার করেন নাই, অথবা এর কথা কিছুই জানেন না) গুগল এ সার্চ করে দেখুন। রিভিউ গুলো দেখুন। অথবা বিভিন্ন ফোরাম এ এর কথা জানতে চান।
      কয়েক জায়গার মতামত দেখলেই আপনি বুঝবেন……
      আপনাকে অনেক ধন্যবাদ …

  3. এ ধরণের একটা সফটওয়্যার থাকা উচিৎ আমিও ভেবেছিলাম, যখন প্রথম কী লগার নিয়ে একটু ঘাঁটাঘাঁটি শুরু করি। ভাল লাগল পোস্টটি। তবে, মিঠু ভাইয়ের মত আমিও থার্ড পার্টি সফটওয়্যার এর উপর নির্ভরশীল হয়ে থাকতে নারাজ! আমরা যদি পিসি ব্যবহারের সময় একটু সচেতন থাকি তাহলেই নিরাপত্তার এসব দিক গুলো নিয়ে অহেতুক সময়ের বৃথা অপচয় করতে হয় না!
    তারপরও ডাউনলোড করে নিয়েছি; অন্তত চেখে দেখা তো দরকার…কি বলেন??? 🙂

    • আমি আপনার সাথে একমত কাজী ভাই। থার্ড পার্টি সফটওয়্যার এ কোন ধরনের ব্যাক ডোর থাকলেও অনেক সময় তা প্রকাশ হতে অনেক সময় লাগে। তাই কি দরকার, একটু সচেতন হলেই যদি নিরাপদে থাকা যায়, তো ক্ষতি কি ?

      আপনাকে অনেক ধন্যবাদ মন্তব্য করার জন্য …

  4. Keylogger বিষয়ে আগে এত ভালোভাবে জানতাম না। আপনাকে ও মিঠু ভাইকে ধন্যবাদ…

  5. বাহ্‌ ভালো জনিস তো। এমন জটিল একটা জিনিস শেয়ার করার জন্য অশেষ ধন্যবাদ “রিয়াজুল” ভাই।

  6. সাইবার ক্যাফেতে এই সফট ব্যবহার করে নিরাপদে ব্রাউজিং করা যাবে কি।অনেক দোকাণে আগে থেকে কম্পিউটারে কি লগার দেওয়া থাকে।

    • আউয়াল ভাই, মনে হয় যাবে। তবে আমি একটা কাজ করার জন্য আপনাকে বলতে পারি তা হচ্ছে, অ্যাক্টিভ ডিরেক্টরি করে, ক্যাফের সকল কম্পিউটার এর এডমিন অ্যাক্সেস বন্ধ করে দিন। যান ইউজার রা কোন কিছু ইন্সটল না করতে পারে। দেখবেন অনেক ঝামেলা থেকে আপনি মুক্ত 😉

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.