এডবি ফটোশপ, আমার ছবি এডিটিং এর জন্য সেরা পছন্দের এবং এটা শুধু আমার নয় বরং আমার মত কোটি কোটি ফটোশপ ভক্তদের। এটি আমার কাছে জনপ্রিয় হবার সকল কারনের মধ্যে অন্যতম হল এর দ্বারা করা কাজ গুলো ফুটিয়ে তোলা যায় জীবন্ত ভাবে। অবশ্য একে সিরিয়াস মুড থেকে শুরু করে ফানি মুডেও কাজে লাগানো যায়। এই টিউটোরিয়ালটিতে আমরা শিখবো কিভাবে ফটোশপের মাধ্যমে একাধিক ব্যাক্তির মুখমন্ডল একত্রিত করা যায় অথবা কিভাবে একজনের মুখ আরেকজনের মুখে বসিয়ে দেওয়া যায়। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

প্রথম ধাপঃ

আপনি কাঙ্খিত দুইটি অবজেক্ট নিন যেমন আমরা এক্ষেত্রে বারাক অবামা ও মেসবা উদ্দিনকে নিয়ে কাজ করবো। তবে যে গুরুত্বপূর্ন ব্যাপারটি খেয়াল রাখতে হবে তা হল, দুইটি ছবিরই একি দিকে থাকতে হবে, এবং পজিশান, হাই কোয়ালিটি এই ব্যাপারগুল নজর দিতে হবে।

01 obama & fahad

দ্বিতীয় পদ্ধতিঃ

দুটি ছবি ফটোশপে ওপেন করে নিন। এরপর একটা ছবিতে আরেকটা ছবিকে লেয়ার আকারে পেষ্ট করে দিন। আমি ওবামার ছবিতে আমার ছবি পেষ্ট করেছি।

02 step 2

তৃতীয় ধাপঃ

যে মুখবিভব অন্যের ঘাড়ে বসাবেন তাকে ফটোশপে লেসো(L) টুল দিয়ে মুখটি কেটে নিন।

03 step 3

এরপর Select > Modify > Feather এ গিয়ে 20 pixels. দিয়ে দিন।

03 2 3-feather

তারপর Ctrl+J অথবা Cmd+J চাপুন এই সিলেক্টকৃত অংশটিকে নতুন আরেকটি লেয়ারে নেবার জন্য

এরপর যার মুখবিভব কেটেছেন তার লেয়ারটি ডিলেট করে দিন

03 3 3-delete

চতুর্থ ধাপঃ

এরপর লেয়ার অপশান থেকে অপাসিটি কমিয়ে নিচের ছবিটির সাথে এডজাষ্ট করে নিন, যাতে চোখ, নাক, কান, ঠোট ইত্যাদি নিচের মুখটির সাথে মিলে। একবার ম্যাচ করে গেলে আবার অপাসিটি ১০০% করে দিন।

04-faces in How to Mix Faces

পঞ্চম ধাপঃ

ইরেজার টুলস(E) নিন সফট একটি ব্রাশ সহ। এরপর কিছু কিছু ফিচার যেমন নাক কান মুখের কিছু অংশ মুছে দিন যাতে নিচের লেয়ার থেকে কিছু অংশ দেখা যায়।

৬ষ্ঠ পদ্ধতিঃ

এবার Levels settings, Hue & Saturation settings এবং Color Balance settings ঠিক করে নিন, যতক্ষন না কালার ও লাইটিং টা ব্যাকগ্রান্ডের সাথে ম্যাচ করে। এবং এ অংশটুকুতে আপনার নিজের ব্রেইনকে কাজে লাগাতে হবে, কারন এটা যত পরিপূর্ণ ভাবে করতে পারবেন তত কম ত্রুটি থাকবে ছবিটিতে। আমার করা একটি স্যাম্পল দিয়ে দিলাম।

step 6

এভাবেই আপনিও ৬টি ষ্টেপে হয়ে উঠতে পারেন বারাক ওবামা ষ্টাইলের ফটো আইকন 😉 ।

মনে রাখবেন ছবিটি হয়তো অতো পারপফেক্ট হয়ে উঠেনি, কারন আমি এটা করে দেখিয়েছি শুধু মাত্র টিউটোরিয়ালটির জন্য রবং ফটোশপ দিয়ে কি কি করা যায় তা দেখাতে।

কেমন হল জানাতে ভুলবেননা যেন
অফটপিকঃ কপি পেষ্ট এমন এক প্রকার ঝোক যা ব্যাক্তিসত্তার ইমেজিনেশান ও ক্রিয়েটিভিটি নষ্ট করে, তাই আসুন কপি পেষ্ট হতে বিরত থাকি
comments

36 কমেন্টস

    • কেন ভাই বাদামওয়ালা যদি এমেরিকার প্রেসিডেন্ট হতে পারে তাইলে ব্লগার হইতে দোষ কি 😉
      😛 😛

  1. জনাব ,
    আপনার ফটোশপ নিয়ে ব্রেইন খরচ করা জনসবায় বিনামূল্যে বিতরনকৃত মূল্যবান লেখাটি খুবই ভালো লাগলো । আশা করবো , ধাপে ধাপে ফটোশপের পূর্ণ অভিজ্ঞতা আমাদের প্রদান করে কৃতার্ত করবেন এবং সারাজীবনের জন্য আমাদেরকে আপনার কাছে ঋণী করে রাখতে স্বচেষ্ঠ হবেন ।
    আপনার মেধা ও মননে মহান আল্লাহ পাক সর্বদা সহযোগী হোন । এই কামনায় – অনেক ধন্যবাদ ।

    • ধন্যবাদ আপনাকেও এত এত শুভ কামনার জন্য 😀
      ইনশাআল্লাহ ধাপে ধাপে পাবেন ফটো শপের উপর
      🙂

  2. লেখাটা ভালো হয়েছে। কিন্তু এতে যে একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র বা একজন প্রশিক্ষকের ১২টা বেজে যাচ্ছে সে কথা খেয়াল করেছেন….??? হ্যাঁ.. আমি মানছি শিখার অধিকার সবার আছে….. কিন্তু যারা প্রোফেশনালী শিখেছেন… বা শিখছেন তাদের পকেটের অবস্থা একবার খেয়াল করে দেখুনতো….

    • শিক্ষার ফিনানশিয়ালি দুই ধরনের প্রয়োগ আছে
      ১ শিক্ষা গ্রহন করে শিক্ষক হওয়া, যা নতুন শিক্ষার্থী তৈরী করে
      ২ শিক্ষা গ্রহন করে সেটাকে কাজ লাগিয়ে আউট পুট বের করা

      এখানে আমি কিন্তু ১ নম্বর ও ২ নম্বর কাজ করেছি এবং আপনাদের শিখাচ্ছি
      এখন আপনার উপর বর্তায় আপনি কোনটা গ্রহন করবেন 🙂

      আর যারা অফলাইনে থাকে তাদের কিন্তু ঠিকই আসতে হচ্ছে আপনার বা আমার কাছে
      আর অন লাইনে না হয় আমাদের কাছ থেকেই শিখছে 😉

  3. আমার নোকিয়া 3110c সেটে ফ্লিলাশ দেয়ার softwer দেয়ার পদ্ধতি একটু বলবেন কি? অপেক্ষায় থাকলাম।

    • আপনি ফ্ল্যাশ বিভিন্ন ভাবে করতে পারেন
      কোড দিয়ে
      আবার কিছু হার্ডওয়ারও দরকার হতে পারে
      কিন্তু আমি পেলে জানাবো

  4. আমার নোকিয়া সেটে 3110c এর Flash Softwer টা কি দেবেন? অপেক্ষায় থাকলাম।

    • আপনি ফ্ল্যাশ বিভিন্ন ভাবে করতে পারেন
      কোড দিয়ে
      আবার কিছু হার্ডওয়ারও দরকার হতে পারে
      বাট আমি পেলে জানাবো

  5. লাকি ওবামা ভাই আপুনি আরব দেশগুলিতে এইটা কি শুরু করছেন,গনতন্ত্রের নামে এখন শুধু ভিক্ষোভ।
    পরিশেষে আপনাকে সুন্দর টিপস এর জন্য ধন্যবাদ।

  6. অনেক ধন্যবাদ ফটোশপ নিয়ে টিউটোরিয়াল শুরু করার জন্য। আমি আবার ফটোশপের দারুন ভক্ত… যেখানেই পাই সেখানেই আটকায়ে যাই 😆

    অ.টঃ আপনি প্রথম ধাপের পরের প্যারাতে লিখেছেন দ্বিতীয় পদ্ধতিঃ যা দ্বিতীয় ধাপ হবে বলে মনে করি। 🙂

  7. ভাই এক্সিডেন্ট হছে তয় ওবামা ভাই দেখলে খবর আছে:lol:

  8. ভাই এক্সিডেন্ট হইছে তয় ওবামা ভাই দেখলে খবর আছে:lol:

  9. ছবির অসাঞ্জস্যতা বুঝা যাচ্ছে। তারপর ও Tutorial এর জন্য ধন্যবাদ। Photoshop এর আরো Tutorial পাওয়া যায় tutsplus এ।

    • আপনি তো পোষ্টটি পড়েননি ঠিকভাবে,
      কারন আমি কিন্তু বলেইছি যে “মনে রাখবেন ছবিটি হয়তো অতো পারপফেক্ট হয়ে উঠেনি, কারন আমি এটা করে দেখিয়েছি শুধু মাত্র টিউটোরিয়ালটির জন্য রবং ফটোশপ দিয়ে কি কি করা যায় তা দেখাতে।”

      আর হা টুটপ্লাসের কথা বলছেন ?? এরকমতো হাজারো সাইত আছে। সবাই (ম্যাক্সিমাম) যদি ইংলিশ পড়তে পারতো তাহলে কি আর অটা থেকে উপকৃত হত তাহলে তো আর বাংলা ভাষায় এসব টিউটোরিয়ালের দরকারই পড়তোনা তাই না ??

      ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.