কৃত্রিম উপগ্রহের ইনফ্রারেড প্রযুক্তি দ্বারা হারিয়ে যাওয়া ১৭টি পিরামিড এবং কয়েক হাজার কবর খুঁজে পাওয়া গেছে মিশরে। নাসার এবং কিছু বানিজ্যিক স্যাটেলাইট ব্যবহার করা হয় এই অনুসন্ধান কাজে। মাটির নিচে চাপা পড়া প্রায় ১,০০০ কবর এবং ৩,০০০ এর মত স্থাপনা খুঁজে পাওয়া যায়।

অনুসন্ধানকারী দল ইতোমধ্যে খনন কাজের মাধ্যমে দু’টি পিরামিডের অবস্থান নিশ্চিত করেছে। এই প্রযেক্টের নেতৃত্ব দিচ্ছেন প্রত্নতাত্বিক Sarah Parcak যিনি অকল্পনীয় এই সফলতা সম্পর্কে বিবিসিকে জানান,

“I couldn’t believe we could locate so many sites all over Egypt. To excavate a pyramid is the dream of every archaeologist.”

উল্লেখ্য, এই প্রজেক্টে আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে বিবিসি। এই প্রজেক্টে কি কি প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে এবং কি কি পাওয়া গেছে এ সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদনও প্রচারিত হয় বিবিসিতে।

এ কাজে স্যাটেলাইটগুলো শক্তিশালী ক্যামেরা ব্যবহার করে যা মাটির নিচে থাকা তিন ফুটেরও ছোট বস্তু সনাক্ত করতে পারে। এমনকি ভুমিতে থাকা মাটি বা ইটের তৈরি বাড়িঘরগুলো এ ক্ষেত্রে কোন সমস্যা সৃস্টি করতে পারেনি।

খুঁজে পাওয়া এই পিরামিডগুলোর ভেতরে কি আছে সেটি জানতেই এখন উদগ্রীব সবাই। প্রাচীন মিশরীয়দের সভ্যতা-সংস্কৃতি সম্পর্কে আরও বিশদভাবে জানতে এগুলো ব্যপক সহায়ক হবে বলে আশা করছেন সংস্লিস্টরা।

comments

11 কমেন্টস

  1. বর্তমানের পিরামিডগুলোর মধ্যে কি আছে?
    সুন্দর পোষ্ট:-) ইন্টারেস্টিং

    • বর্তমানগুলোর ভেতর তেমন কিছুই নেই। ধনরত্নগুলো বেশিরভাগই ডাকাতেরা লুট করেছে। এছাড়া মমি, শিলালিপি ইত্যাদি আরও অনেক কিছু পাওয়া গেছে যেগুলো বিভিন্ন যাদুঘরে রয়েছে।

  2. বিবিসি অবশেষে কেচোঁ খোরার কাজ ধরেছে। পরে দেখা যাবে সাপ বেরিয়ে এসেছে 😛 এবং তখন বিবিসি আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ হয়ে যাবে 😆

  3. দারুনতো।:lol: ইতিহাস জানতে আমার খুব ভালো লাগে। পিরামিডগুলোর ভেতরে কি আছে তা পারলে জানাবেন ইমতিয়াজ ভাই।
    পোস্টটির জন্য ধন্যপ্লাস 😀

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.