বাংলাদেশে প্রথম বারের মত আয়োজিত হতে যাচ্ছে স্মার্ট সিটি হ্যাকাথন। প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান প্রেনিউর ল্যাব এবং হোয়াইট বোর্ড (গ্রামীণফোন এর একটি উদ্যোগ)  এর আয়োজনে এই অনুষ্ঠানটি আগামী নভেম্বর মাসের ১১ এবং ১২ তারিখে জিপির হেডকোয়ার্টার, জিপি হাউসে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। টানা ৩৬ ঘণ্টা ব্যাপী এই স্মার্ট সিটি  হ্যাকাথনে তরুণরা তাদের বিভিন্ন উদ্ভাবনী চিন্তার মাধ্যমে ঢাকা শহরের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করবেন।

ঢাকার মোট জনসংখ্যা ১ কোটি ৭০ লাখ। এই জনবহুল শহরে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ৩.৪৮%। দিন দিন ঢাকার গুরুত্ব বেড়েই চলছে। স্মার্ট সিটি এমন একটি ধারণা যার উদ্দেশ্য হল, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে কোন শহরের সম্পদ গুলো সঠিক ও যুগ উপযোগী ভাবে ব্যবস্থাপনা ও নাগরিকদের জীবনে উন্নয়ন সাধন করা ।

স্মার্ট সিটি হ্যাকাথন এর উদ্দেশ্য হল প্রতিভা সনাক্ত করা ও তাদের বিভিন্ন দিকনির্দেশনা ও রিসোর্স দিয়ে তাদের চিন্তা এবং ধারনাকে বাস্তব রূপ দিতে তাদের সহায়তা করা।এবং সেই প্রকল্পটি দেশের বিভিন্ন উন্নয়ন খাতে ব্যবহার করা। স্মার্ট সিটি হ্যাকাথন এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যার মাধ্যমে আপনি আপনার উদ্ভাবনী চিন্তার একটি বাস্তব রূপ দিতে সক্ষম হবেন।

৩৬ ঘণ্টা ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে মোট ৩০টি টীম অংশগ্রহন করতে পারবে। প্রতিটি টিমে সর্বোচ্চ ৪ জন ও সর্বনিন্ম ২ জন সদস্য অংশগ্রহনে  টিম গঠন করতে পারবে। প্রতিটি  টিম ৩৬ ঘণ্টা সময় ব্যাপী তাদের উদ্ভাবনী ধারণাটিকে এইটি সফটওয়্যার অথবা হার্ডওয়্যারের আকারে উপস্থাপন করবেন। প্রতিটি  টিমের জন্য একজন মেন্টর থাকবেন, যিনি সেই টিমকে তাদের চিন্তাটিকে বাস্তবায়ন করতে গাইড করবেন। এই আয়োজনটি সকলের জন্য উন্মুক্ত। তবে এতে অংশগ্রহণ করার জন্যে প্রতিটি  টিম কে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এবং প্রতিটি টিমের প্রস্তাবিত প্রকল্পের বা এর ভাবনাটি যাচাই এর মাধ্যমে নির্বাচন করা হবে।স্মার্ট সিটি হ্যাকাথন এ আপনি আপনার   টিমকে নিয়ে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

গ্রামীণফোনের চিফ মার্কেটিং অফিসার ইয়াসির আজমান বলেন “আমাদের এই ডিজিটাল অগ্রযাত্রায় আমরা প্রতিনিয়ত শিখছি এবং উন্নত হচ্ছি। শেখার সবচেয়ে ভাল সুযোগটি আসে কমিউনিটি থেকে । স্মার্ট সিটি হ্যাকাথনটি হবে শেখা, উদ্ভাবন এবং আইডিয়াগুলোকে ইনকিউবেট করার চমৎকার প্ল্যাটফরম এবং আমাদের বিশ্বাস ওয়াইট বোর্ড এখানে ভাল ভূমিকা রাখবে । জিপিহাউজে এটাই প্রথম ৩৬ ঘন্টার হ্যাকাথন। ভবিষ্যতে ওয়াইট বোর্ড আরও নানানভাবে দেশের ডিজিটাল ইকোসিস্টেমে সহায়তা করবে। ”

আয়োজনটির উদ্যোক্তা, প্রেনিউর ল্যাবের সি ই ও আরিফ নিজামী বলেন, “স্মার্ট ঢাকা হবে গতিশীল, আধুনিক এবং উন্নত। এই আয়োজনটি সিটি কর্পোরেশন, সরকার, টেলকোদের একসাথে আনছে। এমন সুযোগ কারোই হাত ছাড়া করা উচিত হবে না।”

স্মার্ট সিটি হ্যাকাথনের বিজয়ী টিমের জন্য থাকবে সার্টিফিকেট, ক্রেস্ট সহ আরও  আকর্ষণীয় পুরস্কার। পুরষ্কারের মধ্যে থাকছে, হোয়াইট-বোর্ডের পক্ষ থেকে ৩ মাসের ইকো- সিস্টেমের অ্যাক্সেস সহ কো-ওয়ার্কিং স্পেস সাপোর্ট, হোয়াইট বোর্ড কর্তৃক প্রাসঙ্গিক জ্ঞান ও অ্যাসেট সাপোর্ট, বাণিজ্যিক সুযোগ গড়ে তোলার লক্ষে  হোয়াইট বোর্ড কর্তৃক একটি বিশেষ ডেমো দিন। আরও থাকছে, জিপি থেকে ৩ মাসের জন্য মেন্টরশিপ ও কো-ওয়ার্কিং স্পেস সাপোর্ট, প্রিনিউরল্যাবের পক্ষ থেকে ৬ মাসের জন্য সার্টআপ মেন্টরশিপ সাপোর্ট, IEEE বাংলাদেশ সেকশন  থেকে ৬ মাসের মেন্টরশিপ, ডিনেট জাংশনের পক্ষ থেকে ৬ মাসের আইপিআর এবং ইনকিউবেটর সাপোর্ট, স্পাইডার ডিজিটাল (দুবাই) এর পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ফান্ডিং এর সুযোগ, আইসিটি বিভাগের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ফান্ডিং এর সুযোগ, দৈনিক ইত্তেফাক, বিক্রয় ডট কম ও রেডিও ফুর্তির পক্ষ থেকে মিডিয়া সাপোর্ট। এছাড়া সকল অংশগ্রহণকারীদের জন্য থাকছে আভিরা এন্টি-ভাইরাসের পক্ষ থেকে বিশেষ পুরস্কার।

স্মার্ট সিটি হ্যাকাথনের  রেজিস্ট্রেশান প্রক্রিয়াটি আগামী ৫ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে। রেজিস্ট্রেশনের জন্য www.white-board.co এই লিংকে গিয়ে আপনি আপনার  টিমের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করুন। রেজিস্ট্রেশনকৃত টিম গুলোর মধ্য হতে বাছাই কৃত টিম গুলকে এসএমএস ও ইমেইল এর মাধমে তাদের অংশগ্রহণের ব্যাপারে জানিয়ে দেয়া হবে ।

আয়োজনটির  স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন, আইসিটি ডিভিশন, নলেজ পার্টনার IEEE বাংলাদেশ সেকশন, IOT কাউন্সিল ইউরোপ, মিডিয়া পার্টনার, রেডিও ফুর্তি, দৈনিক ইত্তেফাক, Bikroy.com, কমিউনিটি পার্টনার গুগল ডেভেলপার গ্রুপ, ইউজার হাব, মাইক্রোসফট স্টুডেন্ট পার্টনার, উইমেন টেকমেকারস, ইনভেস্টমেন্ট পার্টনার স্পাইডার ডিজিটাল (দুবাই) এবং সিকিউরিটি পার্টনার আভিরা এন্টিভাইরাস ।

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.