বুয়েট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও চুয়েট থেকে ‘সিডস ফর দ্যা ফিউচার-২০১৬’ প্রকল্পের মোট ১০জন বিজয়ীকে চীনে নিয়ে যাচ্ছে বিশ্বখ্যাত প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে।

দুই সদস্যের প্রতিটি বিজয়ী দল আগামি ২৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত  চীনে অবস্থিত হুয়াওয়ের হেডকোয়ার্টারসহ অন্যান্য কার্যালয় পরিদর্শন করার সুযোগ পাবে। আইসিটি খাতের যুগান্তকারী উদ্ভাবন, উন্নয়ন ও অগ্রগতি পরিদর্শনের মাধ্যমে বিজয়ীরা অনেক কিছু শিখতে পারবে। বেশিরভাগ বিজয়ীরাই নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী আর এ কারণে এই প্রযুক্তি বিষয়ক প্রোগ্রামটি বিজয়ীদের ভবিষ্যৎ প্রতিযোগিতার জন্য প্রস্তুত হতে সহায়তা করবে।

বুয়েট থেকে প্রথম বিজয়ী দলের সদস্য দুজনের নাম- শেখ নাসিফ ইমতিয়াজ ও ওয়াসিফ আদনান খান, বুয়েট থেকে আরেকটি বিজয়ী দলে আছেন জাফির শাফি ও তানজিন মুবাররাত সৈয়দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নিফাত আরা নিপা ও উম্মুল আফিয়া সাম্মি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আরেকদল বিজয়ী সৈয়দ মাহির তাজওয়ার ও তাসফিয়া কবির এবং চুয়েটের বিজয়ী দলে আছেন  মো: রাফি ইসলাম ও অভ্রো ভট্টাচার্য্য।

দুটি পর্বে ভাগ করা হয়েছে উক্ত সফরটি। প্রথম পর্বে শিক্ষার্থীদের বেইজিং-এ অবস্থিত বেইজিং ল্যাঙ্গুয়েজ এ্যান্ড কালচার ইউনিভার্সিটিতে চাইনিজ ভাষা ও সংস্কৃতি বিষয়ক প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। দ্বিতীয় পর্বে শিক্ষার্থীরা হুয়াওয়ে থেকে হাতে-কলমে প্রযুক্তিগত প্রশিক্ষণ নেয়ার সুযোগ পাবে। শিক্ষার্থীরা চীনের শেনঝেনে অবস্থিত হুয়াওয়ের হেডকোয়ার্টারে সফরের সুযোগ পাবে এই পর্বে। সেখানে তারা হুয়াওয়ের সংস্কৃতি, কাজের ধরন, পরিবেশ, কৌশল ও গুরুত্ব বুঝতে সক্ষম হবে। এছাড়া হুয়াওয়ের স্টেট-অব-দি-আর্ট গবেষণা ও উন্নয়ন সেন্টার এবং ফ্যাক্টরিতে ভিজিট করার সুযোগ পাবে যেখানে হুয়াওয়ের অভিজ্ঞ প্রকৌশলীদের সঙ্গে মিলে আইসিটি ও সল্যুশন বিয়ষক প্রশিক্ষণ নিতে পারবে।

বিশ্বের ৪৫টি দেশের তরুণ মেধাবীদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে হুয়াওয়ের ফ্ল্যাগশিপ সিএসআর প্রকল্প ‘সিডস ফর দ্যা ফিউচার’ পরিচালনা করা হয়। গত দুই বছর ধরে হুয়াওয়ে বাংলাদেশ এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে এবং এবছর মিলিয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো অংশ নিলো হুয়াওয়ে বাংলাদেশ।

বিশ্বব্যাপি পাঁচটি মহাদেশের ৬৭টি দেশ ও অঞ্চলে ইতিমধ্যে ‘সিড্স ফর দ্যা ফিউচার’ প্রোগ্রাম ইতিমধ্যে বাস্তবায়ন করেছে হুয়াওয়ে। উক্ত প্রোগ্রামের আওতায় বিশ্বব্যাপি ১৫০টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রায় ১,৫০০০ শিক্ষার্থী উক্ত প্রোগ্রমে দ্বারা উপকৃত হয়েছে। গত ২০১৫ সালে ৮০০জনের বেশি দর্শনার্থীসহ বিশ্বের ১,৭০০-এরও বেশি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা হুয়াওয়ের গ্লোবাল হেডকোয়ার্টারে শিক্ষা সফর করার সুযোগ পেয়েছে। উল্লেখ্য, বাংলাদেশে গত ২০১৪ সালে ‘সিড্স ফর দ্যা ফিউচার প্রোগ্রাম’ প্রথম চালু করে হুয়াওয়ে আর ইতিমধ্যে এ ক্ষেত্রে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.