দিন দিন মানুষের রোবটের উপর আস্থা বাড়ছে। মানুষ বর্তমানে এতোটাই অলস হয়ে পড়েছে যে তাদের ঘড়ের দৈনন্দিন কাজ করার জন্য বাজার থেকে রোবট কিনে নিয়ে আসছে। আর তাঁরই ধারাবাহিকতায় ঘরের ধুলাবালু পরিষ্কার করার জন্য রোবট এনেছিলেন দক্ষিণ কোরিয়ার এক নারী। যন্ত্রটির ওপর মেঝে পরিষ্কারের ভার দিয়ে নিশ্চিন্তে ঘুমুচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু একপর্যায়ে ওই রোবট তাঁর মাথার চুলকেও হয়তো ময়লা ঠাহর করে। আর এতেই ঘটে।

1000

বিপত্তি। গৃহকত্রীর চুল গিলে খায় ওই রোবট। সম্প্রতি দেশটির চাংওন শহরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।
কোরিয়ার ওই গৃহকত্রীর (৫২) নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে এ ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলা হয়েছে, একটি কোম্পানি তাঁকে ওই সেবা দিত। এর আওতায় রোবটের সাহায্যে ঘরদোর পরিষ্কার করতেন তিনি। মেঝে রাখতেন ঝকঝকে তকতকে। একদিন মেঝেতে ঘুমিয়ে ছিলেন ওই নারী। রোবটটি মেঝে পরিষ্কার করতে করতে তাঁর মাথার কাছে এসে থামে। পরে চুলে আটকে যায়। চুল ছিঁড়তে থাকে। একপর্যায়ে গৃহকত্রীর ঘুম ভাঙে। তিনি টের পান, মাথায় রোবট আটকে গেছে। চেষ্টা করেও ছাড়াতে ব্যর্থ হন। পরে ফায়ার সার্ভিসে ফোন করেন। দেশটির কাইয়ুংহাইয়াং শিনমুন পত্রিকার খবরে বলা হয়, ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি স্বাস্থ্য সহকারীরাও আসেন। তাঁরা অনেক চেষ্টা করে রোবটটিকে নিষ্ক্রিয় করতে সক্ষম হন। কিন্তু ততক্ষণে গৃহকত্রী মাথায় গুরুতর চোট পান।

দক্ষিণ কোরিয়ায় ঘরদোর পরিষ্কারে রোবটের ব্যবহার সাম্প্রতিক বছরগুলোতে খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কিন্তু এ ধরনের দুর্ঘটনা এই প্রথম। দেশটিতে মার্কিন আইরোবট কোম্পানির রুম্বা ও জাপানি প্যানাসনিক কোম্পানির তৈরি রোবটের বাজার দখলের লড়াই তীব্র।

সূত্রঃ দা গার্ডিয়ান

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.