বিজ্ঞানীরা তাদের কর্মের মাধ্যমে নিজেদের করেছেন অবিনশ্বর

পৃথিবীতে কিছু ক্ষণজন্মা মানুষ এসেছেন যারা তাদের কাজের মাধ্যমে বদলে দিয়েছেন এই পৃথিবীকে। নানা ধরণের বাঁধার সম্মুখীন হয়েছিলেন তারা ঠিকই কিন্তু তা সত্ত্বেও তারা দমে যান নি। কর্মের মাধ্যমে তারা অঙ্কিত করেছেন পৃথিবীর বুকে নিজেদের নাম। এমন পাঁচজন মহান বিজ্ঞানীর সংক্ষিপ্ত কথন আজ আপনাদের সামনে দেয়া হলঃ

১) স্যার আইজাক নিউটন (১৬৪২-১৭২৬)
নানা বিষয়ে পারদর্শী স্যার আইজাক নিউটন তার গবেষণা ও তত্ত্ব নানা দিকে ছড়িয়ে দিয়েছেন। তার গবেষণার বিষয় হচ্ছে গণিত, দৃষ্টিবিজ্ঞান, পদার্থবিদ্যা ও জ্যোতির্বিদ্যা। ১৬৮৭ সালে তার প্রকাশিত প্রিন্সিপিয়া অফ ম্যাথমেটিকা নামক বইতে তিনি ক্লাসিকাল মেকানিক্সের ভিত্তি স্থাপন করেন, অভিকর্ষের সূত্র সম্পর্কে বলেন এবং গতি ও জড়তা সম্পর্কে ধারণা দেন।

স্যার আইজাক নিউটন
স্যার আইজাক নিউটন

২) লুই পাস্তুর (১৮২২-১৮৯৫)
চিকিৎসাবিজ্ঞানের প্রতি লুই পাস্তুর অশেষ অবদান রাখেন। তার গবেষণার বিষয় ছিল র‍্যাবিস, অ্যানথ্রাক্স ও অন্যান্য জীবাণুবাহিত রোগ নিয়ে। তিনি প্রক্রিয়া বের করেন যার মাধ্যমে দুধ ছেঁকে খাওয়া যাবে যেখানে কোন রোগ জীবাণু থাকবে না। এর নাম দেয়া হয় “পাস্তুরাইজেশন” প্রক্রিয়া।

লুই পাস্তুর
লুই পাস্তুর

৩) মারি কুরি (১৮৬৭-১৯৩৪)
মারি কুরি ছিলেন একাধারে একজন পদার্থবিদ ও রসায়নবিদ। তিনি তেজস্ক্রিয়তা আবিষ্কার করেন এবং এক্স রশ্মির ক্ষেত্রে এটি ব্যপক কাজে লাগে। তিনি প্রথম নারী বিজ্ঞানী যিনি একইসাথে পদার্থ ও রসায়নে নোবেল পান।

মাদাম মারি কুরি
মাদাম মারি কুরি

৪) চার্লস ডারউইন (১৮০৯-১৮৮২)
তিনি বিবর্তনবাদের প্রবক্তা। তিনি এমন সময় এই বক্তব্যটি দিয়েছেন যখন মানুষ ছিল অজ্ঞতা ও কুসংস্কারে ভরপুর। তিনি প্রায় ২০ বছর গবেষণা করে তার বক্তব্য Origin of Species নামক বইতে প্রকাশ করেন যেটি ১৮৫৯ সালে প্রকাশিত হয়।

চার্লস ডারউইন
চার্লস ডারউইন

৫) জেমস ক্লার্ক ম্যাক্সওয়েল (১৮৩১-১৮৭৯)
তড়িৎ-চৌম্বকবিদ্যায় ম্যাক্সওয়েলের অবদান অনস্বীকার্য। তার তড়িৎ ও কাইনেটিকস নিয়ে গবেষণা কোয়ান্টাম পদার্থবিদ্যায় ভিত্তি গড়ে দেয়। আইনস্টাইন ম্যাক্সওয়েল সম্পর্কে বলেন, “ম্যাক্সওয়েলের কাজ পৃথিবীকে সবসময়ের জন্য বদলে বদলে দিয়েছে”।

জেমস ম্যাক্সওয়েল
জেমস ম্যাক্সওয়েল

 

সূত্রঃ    Biographyonline.net

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.