সিটিও ফোরাম বাংলাদেশ ঢাকায় ”লিজেন্ড অব আইসিটি” শীর্ষক এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সিটিও ফোরামের সম্মানিত কিছু সদস্য তাদের মেধা ও যোগ্যতার স্বীকৃতি স্বরূপ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে উচ্চ পর্যায়ে পদোন্নতি পেয়েছেন।মূলত তাদের সম্মানে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।সংবর্ধিত তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা হলেন জনাব আবুল কাশেম মোঃ শিরিন, ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ডাচ-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, জনাব এস.এম. মাঈনুদ্দিন চৌধুরী, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক, সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, জনাব মোহাম্মদ আলী, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক, পূবালী ব্যাংক লিমিটেড, জনাব কাজী আজিজুর রহমান, উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক, দ্যা সিটি ব্যাংক লিমিটেড।

সিটিও ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জনাব তপন কান্তি সরকার তার স্বাগত বক্তিতায় বলেন, সিটিও ফোরাম বাংলাদেশ তার জন্মলগ্ন থেকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। সিটিও ফোরাম ২০১১ সাল থেকে এই পর্যন্ত ৩০টিরও বেশী টেকনিক্যাল সভার আয়োজন করেছে। কিন্তু আজকে আমরা সম্পূর্ণ এক ভিন্ন প্রেক্ষাপটে এইখানে মিলিত হয়েছি।

আজকে আমরা যেসব আইটি ব্যক্তিত্বকে সম্মানিত করতে যাচ্ছি, তারা তাদের নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে তাদের মেধা ও অভিজ্ঞতার সমন্বয়ে তথ্যপ্রযুক্তিখাতের উন্নয়নে কাজ করে চলেছেন। আজ আমরা সম্মানিত বোধ করছি আমাদের ফোরামের সংবর্ধিত সদস্যরা ব্যাংকের সর্বোচ্চ পর্যায়ে জায়গা করে নিয়েছেন। তথ্যপ্রযুক্তিখাতের সাথে সম্পৃক্ত সকলের জন্য এই এক বিশাল অর্জন।

বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে তথ্যপ্রযুক্তিখাতের কোন বিকল্প নেই। এতদিন তথ্য প্রযুক্তিখাত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গকে সেইভাবে মূল্যায়ন করা হয়নি। কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরাও যে একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান পরিচালনার সক্ষমতা রাখে এইসব পদ্দোন্নতি তার প্রমাণ। সিটিও ফোরাম বাংলাদেশ গঠনের এই তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা ছিল অগ্রনী ভূমিকায়। আমরা আশা করি, তাদের এই পদোন্নতি আমাদের সকলকে অনুপ্রাণিত করবে।

সংবর্ধিত অতিথীদের জীবনবৃন্তান্ত একটি ভিডিও প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে উপস্থাপন করা হয় এবং সিটিও ফোরামের পক্ষ থেকে ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। সংবর্ধিত তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা তাদের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন এবং সিটিও ফোরমকে ধন্যবাদ জানান। তারা বলেন নিজেদের সংগঠন থেকে এই ধরনের সম্মামনা আমাদের কাজের ক্ষেত্রে অনুপ্রানিত করবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জনাব সিটিও ফোরামের যুগ্ম-মহাসচিব জনাব দেবদুলাল রায়, কোষাধক্ষ্য মোঃ মঈনুল ইসলাম, কার্যকরী কমিটির সদস্য জনাব লুৎফর রহমান। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত ছিলেন।অনুষ্ঠানের শেষভাগে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.