ভবিষ্যতে এক সময় কি পৃথিবীতে রোবটের রাজত্ব থাকবে? ‘টি ৮০০’ বা ‘মেগাটর্ন’ এর মত ফিকশনের রোবটগুলো যদি পৃথিবীতে রাজত্ব করে বেড়ায় আর মানুষরা যদি হয় তাদের ভৃত্য, তখন ব্যপারটা কেমন হবে? খুব শীঘ্রই তেমন কিছু হওয়ার আশংকা না থাকলেও এক সময় রোবট মানুষের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে। জাপান এবং কোরিয়া বৃদ্ধ লোকদের সেবা করার জন্য রোবট তৈরির কাজে হাত দিলেও, আমেরিকা যুদ্ধক্ষেত্রের জন্য সশস্ত্র রোবট তৈরির কাজে হাত দিয়েছে।

2011-01-06_101056

এসব রোবট তৈরি হচ্ছে কোন না কোন ভাবে মানুষের উপকারের জন্য। কিন্তু আসলে তা কতটা সত্যি? চলুন কিছুটা বিশ্লেষন করা যাক…

রোবট আমাদের হৃদয় কেড়ে নিচ্ছে!2011-01-07_124213

শক্তি দ্বারা আমাদের পরাজিত করার হয়তো দরকার নাও হতে পারে রোবটদের। তারা ইতোমধ্যে আমাদের মন জয় করে নিয়েছে। খেলনা পুতুলের বদলে বাচ্চাদের হাতে এখন দেখা যায় রোবট। নিত্য-নতুন রোবটের আবিস্কারের কাহীনি শুনে আমরা পুলকিত হই। তবে এখন যেটি সবচেয়ে বেশি উদ্বেগজনক হয়ে উঠেছে সেটি হচ্ছে ঠিক মানুষের মত দেখতে রোবট তৈরি। এরা শুধু দেখতেই মানুষের মত নয়, বরং আচরনও করে মানুষের মত। চেহারায় আবেগ ফুটিয়ে তুলতে পারে। এই বিষয়টি এড়াতে অনেক গবেষক এখন রোবট তৈরি করছে যেগুলো দেখতে মোটেও মানুষের মত নয়।

রোবট আমাদের চাকরি কেড়ে নিচ্ছে

2011-01-07_124115দোকানে সেলস এসিস্টেন্ট এর দ্বায়িত্ব পালন  করছেন? রোবট এ কাজটি করতে পারবে আরও ভালভাবে। আর এর জন্য তাকে কোন টাকাও দিতে হবে না। শুধুমাত্র তৈরির এককালিন খরচ। ডাক্তার হয়েছেন? কেউ অসুস্থ হলে ছুটে আসছে আপনার কাছে? এখন থেকে কেউ অসুস্থ হলে রোবট ডাক্তার ছুটে যাবে তার কাছে। কোন কল-কারখানায় কাজ করছেন? রোবটরা আপনার চাইতে কয়েকগুন বেশি দক্ষতায় এবং দ্রুত কাজ করতে পারবে। মহাকাশ বিজ্ঞানী হয়ে স্বপ্ন দেখছেন কোন গ্রহ ভ্রমনের। কিন্তু আপনার চাইতে কোন রোবটকে পাঠাতেই বেশি আগ্রহী হবে নাসা। চাকরি বাঁচাতে চাইলে এখন থেকেই রোবটের এই অভ্যুত্থান সম্পর্কে চিন্তা করতে হবে।

আপনার ভালবাসার মানুষ হয়তো একটি রোবটকে ভালবাসতে পারে!
মানুষ যদি কোন রোবটের সাথে ভালবাসার সম্পর্ক গড়ে তোলে, তাহলে অবাক হওয়ার 2011-01-07_130901কিছুই থাকবে না। মানুষ যেখানে অনলাইনে অজানা ভালবাসার মানুষের সাথে চ্যাট করে যাচ্ছে দিনের পর দিন, সেখানে দেখতে সুন্দর একটি রোবটের প্রেমে পড়াটা মোটেও অস্বাভাবিক নয় 😛 আজকাল অনেক রোবট তৈরি করা হচ্ছে যেগুলো দেখতে অবিকল মানুষের মত এবং এগুলো যথেস্ট আবেগপ্রবনও। জাপান ইতোমধ্যে এমন সব রোবট তৈরি করেছে যেগুলো দেখলে আপনি মানুষ বলে ভুল করতে পারেন। তাই সময় থাকতে সাবধান হোন। আপনার ভালবাসার মানুষ যাতে কোন রোবটের প্রেমে না পড়ে যায় সেদিকে খেয়াল রাখুন 😉

আপনার নাতী-নাতনী হতে পারে রোবট

2011-01-07_153746রোবট আর মানুষ মারামারি করুক বা ভালবাসার সম্পর্ক গড়ে তুলুক, আমাদের দৈনন্দিন জীবনে কিন্তু নিত্যনতুন প্রযুক্তি পন্যের ব্যবহার কমছে না। এখনকার বাচ্চারা বিভিন্ন আইওএস এবং এন্ড্রয়েড ডিভাইস নিয়ে মেতে আছে। তারা ‘উডি’ এর মত রাখাল বালকের পুতুলের বদলে ‘বাজ লাইটইয়ার’ এর মত নভোচারী রোবট নিয়ে খেলতে পছন্দ করে। আজকালকার মানুষও হয়ে যাচ্ছে রোবটের মত। তারা একসাথে না থেকে সবাই আলাদা থাকতে চায়। আর তাই শেষ বয়সে আপনার নিঃসঙ্গতা দূর করতে হয়তো আপনার সঙ্গী হতে পারে একটি রোবট।

ম্যালফাংশনঃ পুরো মানব জাতীকে ধংস করো

ফিকশন রোবট মুভি গুলোতে সচরাচর যেটি দেখা যায় তা হচ্ছে রোবট নিজের প্রস্তুতকারককে ধংস করে ফেলে। বাস্তবেও এটি ঘটা খুবই স্বাভাবিক একটি ব্যাপার। আমরা মানুষরা মানুষকে শত্রু মনে করে তাদের ধংস করার জন্য রোবট তৈরি করছি। এক সময় এই রোবটই পুরো মানব জাতীর ধংসের কারন হতে পারে। যারা ‘টারমিনেটর স্যালভেশন’ মুভিটি দেখছেন, বিষয়টি আরও ভালভাবে উপলব্ধি করতে পারবেন। মারনাস্ত্র তৈরি এবং এ সম্পর্কিত গবেষনাকে আমি বরাবরই ঘৃনা করি। আর মারনাস্ত্র যদি হয় রোবট, তখন সেটি আরও ভয়ংকর এবং বরাবরের মতই নিরুতসাহিত করার মত।

এবার দু’টি ভিডিও দেখুন। মানুষের মত দেখতে রোবট তৈরিতে পৃথিবী কতটা এগিয়ে গেছে তারই নমুনাঃ

comments

7 কমেন্টস

  1. হুম … চিন্তার বিষয় … দেখা যাইবে চলতি পথে এক রোবট বালক আমাকে চাচা বলিয়া ডাকিয়া উঠিলে আমি তাহার বাবার নাম জানিতে চাইলাম। সেই রোবট বালক আমাকে জানাইল, তাহার বাবার নাম …ইমু ( 😀 )

  2. আসলেই চিন্তা করার মত বিষয়। এর চেয়ে আয়রন ম্যান এর মত রোবটিক ড্রেস বানিয়ে এর প্রতিরোধ করতে হবে আমাদের 😀

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.