মোবাইল ফোন, সেলফোন, মুঠোফোন বা সেলুলার ফোন যা-ই বলেননা কেন, এটা যে আমাদের জীবনের কতটা যায়গা দখল করে নিয়েছে সেটা বুঝতে পারবেন যদি একটা মাত্র দিন জিনিসটাকে হাত থেকে দূরে রাখেন। অথচ আমরা অনেকেই এর ইতিহাস সমন্ধে যথেষ্ট জানিনা। আবিস্কারকের নাম বলতে পারেন এমন লোকের সংখ্যাও দেখেছি অনেক কম। আসুন জেনে নিই মোবাইল ফোণ আবিস্কার সম্পর্কিত কিছু তথ্য।

প্রথম Cave Radio ধারণার উদ্ভব হয় সেই ১৯০৮ সালে, যেটাকে সেলুলার ফোনের জন্মসূত্র ধরা হয়। যদিও বাস্তবের মোবাইল ফোন এসেছে অনেক দেরিতে। দুই বছর পর ১৯১০ সালে Lars Magnus Ericsson তার গাড়িতে টেলিফোন লাগিয় ফেলেন, ভ্রাম্যমান ফোন হিসেবে এটার নামই প্রথম আসে। যদিও Ericsson-এর ফোনটা ঠিক Radio Phone ছিলোনা। ভদ্রলোক তাঁর গাড়ি নিয়ে দেশময় ঘুরে বেড়াতেন এবং প্রয়োজন হলেই গাড়ি থামিয়ে ফোনের সাথে লম্বা দুইটা তার লাগিয়ে নিতেন, তারপর National Phone Network ব্যবহার করে ফোন করার কাজ সারতেন !!
সমসাময়িক ইউরোপের ট্রেনগুলোতে প্রথম শ্রেনীর যাত্রীরা Radio Telephone ব্যবহারের সুযোগ পেতেন। এই সুবিধা ছিলো বার্লিন থেকে হামবুর্গ পর্যন্ত সীমাবদ্ধ। একই সময় বিমানের যাত্রীরা নিরাপত্তার খাতিরে রেডিও টেলিফোন সুবিধা পেতেন। এ জাতীয় ফোনের ব্যাপক ব্যবহার হয় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়। জার্মানী মূলত ব্যাপক প্রচলন ঘটায় । সৈন্যরা যোগাযোগের জন্যে এটাকে ব্যবহার করত।

(প্রথম সেলুলার ফোন হাতে মার্টিন কুপার)

আমরা যে মোবাইল ফোন কে চিনি তার জন্ম ১৯৭৩ সালে। আজকের বিখ্যাত মোবাইল ফোন নির্মাতা কোম্পানী মটরোলার হাত ধরে যাত্রা শুরু করে সেলুলার ফোন। নাম দেওয়া হয় DynaTAC 8000X। মজার ব্যাপার কি জানেন, এই ফোনটাতে কোনো ডিসপ্লে ছিলোনা। ১৯৭৩ সালের ৩ এপ্রিল মটরোলার কর্মকর্তা Dr. Martin Cooper বেল ল্যাবস-এর কর্মকর্তা Dr. Joels Engel-এর সাথে বিশ্বের ইতিহাসে প্রথমবারের মত মোবাইল ফোনে কথা বলেন। আর মোবাইল ফোনের ইতিহাসের সাথে জড়িয়ে যায় এই দুই বিজ্ঞানী, মটরোলা আর বেল ল্যাবস-এর নাম। অবশ্য Radio Telephone System-এর আবিস্কারক হিসেবে মার্টিন কুপার আর তাঁর গুরু Motorola Portable Communication Products-এর চীফ John F. Michel নাম US Patent-এ (Patent no. 3,906,166) লিপিবদ্ধ হয় ১৭ অক্টোবর ১৯৭৩ সালে।
জেনারেশন ভিত্তিক মোবাইল ফোনের ইতিহাস বেশ কয়েকটা অংশে বিভক্ত (যেমনঃ 1G, 2G, 2.5G, 2.75G, 3G, 4G ), এগুলো নিয়ে ইনশাআল্লাহ আরেকদিন আলোচনা করবো।


পোস্টটি কেমন লাগলো জানাবেন। সবাই অনেক ভালো থাকবেন ।


comments

10 কমেন্টস

  1. কুপার আংকেলের হাতের মোবাইল ফোনটা দেখি ল্যান্ডফোন এর চাইতে বড় 😛
    মজার এবং তথ্যমূলক পোস্টের জন্য নাজমুল ভাইকে ধন্যবাদ।

  2. থ্যাঙ্ক ইউ ব্রাদার ইমতিয়াজ ।

  3. নাজমুল ভাই, ইতিহাস টা পড়ে অসাধারন লাগল। আপনাকে অনেক ধন্যবাদ আমাদের সাথে এটা শেয়ার করার জন্য।

  4. মতামত জানানোর জন্য ধন্যবাদ আপনাকেও !

  5. জেনারেশন ভিত্তিক মোবাইল ফোনের ইতিহাস বেশ কয়েকটা অংশে বিভক্ত (যেমনঃ 1G, 2G, 2.5G, 2.75G, 3G, 4G ) এর আশায় রইলাম,
    পোষ্টের জন্য ধন্যবাদ

  6. I just want to say I am just newbie to blogs and definitely enjoyed your website. Most likely I’m going to bookmark your blog . You actually come with really good articles. Regards for revealing your blog site.

  7. Thank you a bunch for sharing this with all of us you really understand what you are talking approximately! Bookmarked. Kindly also visit my web site =). We will have a link change agreement among us!

  8. I simply could not go away your web site before suggesting that I actually loved the usual info an individual provide to your visitors? Is going to be again ceaselessly to inspect new posts

  9. ভাল লাগল লেখটা পড়ে। জানি না কতটা সত্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.