গত ফেব্রুয়ারী থেকে আটলান্টিক মহাসাগরে হারিয়ে যাওয়া একটি ভুতুড়ে জাহাজ খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে উতকন্ঠার ব্যপার হচ্ছে জাহাজটির কার্গোতে রয়েছে অসংখ্য রোগাক্রান্ত মানুষখেকো ইঁদুর। ১,৪০০ টন ওজনের ১০০ মিটার লম্বা বিশালাকৃতির এই জাহাজটির কোন চিহ্নই খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না যা কিনা যথেস্ট আশ্চর্যজনক।

স্যাটেলাইটের যুগে যেখানে গুগল আর্থ দিয়ে সবকিছু খুঁজে বের করা যায় সেখানে বিশালাকৃতির এই জাহাজ হারিয়ে যাওয়ায় বড় ধরনের রহস্যের সম্মুখীন হয়েছেন সংস্লিস্টরা। যদিও অনেক গবেষক বলছেন জাহাজটি হয়তো ইতোমধ্যে ডুবে গেছে এবং এক্ষেত্রে এটি খুঁজে পাওয়া এক রকম অসম্ভব।

প্রায় মাস দশেক আগে জাহাজটি থেকে শেষ একটি ইমারজেন্সি সিগনাল গ্রহন করা হয় এবং তখন এটি আয়ারল্যান্ড থেকে প্রায় ৭০০ কিলোমিটার দূরে ছিল। সেই সিগনাল থেকে জাহাজটিকে খুঁজে বের করা সম্ভব ছিল না। এরপর থেকে জাহাজটির আর কোন হদিস মেলেনি। আর জাহাজে থাকা নাবিক এবং ক্রু দের ভাগ্যে কি ঘটেছিল সেটিও জানা যায়নি।

মজার ব্যপার হচ্ছে সমুদ্রের আইন অনুযায়ী কেউ যদি কোন হারিয়ে জাওয়া জাহাজ খুঁজে বের করতে পারে, তবে সে ব্যাক্তি সেই জাহাজের মূল্যমানের সমান পূরস্কার পাবে। আর হারিয়ে যাওয়া এই জাহাজটির মূল্য ১ মিলিয়ন ডলারের কিছু বেশি। মানুষখেকো ইঁদুর বোঝাই জাহাজ খুঁজে বের করার জন্য আটলান্টিকে ঘুরে আসবেন নাকি?

comments

7 কমেন্টস

  1. মানুষখেকো ইঁদুর জাহাজখেকো হয়ে গেল না ত :-P। আসলেই রহস্যময়ী ব্যাপার। এমন যুগেও জাহাজ হারিয়ে যায়।

    • হুম… আর আরো অবাক করা বিষয় হচ্ছে প্রায় এক বছর পর জাহাজটির খোঁজ করতে সবাই উঠে পড়ে লেগেছে। এতদিন বিষয়টি কেউ আমলেই নেয়নি।

  2. ভাই সত্য খবর ছাড়া দিবেন না। বিভ্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.