শিল্প প্রতিষ্ঠানের কন্ট্রোল সিস্টেমই হোক অথবা ভার্সিটি স্টুডেন্ট এর ফাইনাল ইয়ার প্রজেক্টই হোক উভয় ক্ষেত্রেই মাইক্রোকন্ট্রোলার খুবই জনপ্রিয়। আর এজন্য আমাদের দেশেও দিন দিন এর জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় গুলোতে অনেকেই এ বিষয়টি আয়ত্ত করার চেষ্টা করছেন, তা সে সিলেবাসের অন্তর্ভূক্ত হোক বা না হোক। অনেকেই আগ্রহ প্রকাশ করলেও শিখতে পারেন শতকরা ৫% শিক্ষার্থী। কারণ আমাদের বাংলা ভাষায় এ বিষয়ে এখনো উপযুক্ত তথ্য ভান্ডার গড়ে ওঠেনি। নতুনেরা অভিজ্ঞদের জটিল জটিল প্রজেক্ট দেখে দিশেহারা হয়ে পরেন। ঠিক কোনটা এখন শেখা উচিৎ আর কোনটা পরে শেখা উচিৎ বুঝতে পারে না।তাই নতুনদের জন্যই আমার এ ক্ষুদ্র প্রয়াশ।

……………………………………………………………………….

আজ আমরা পরিচিত হব আমাদের দেশে পাওয়া যায় এবং বিভিন্ন ধরণের মাইক্রোকন্ট্রোলার ভিত্তিক প্রজেক্টে ব্যবহার উপযোগী ১৬×২ এল সি ডি এর সাথে।

এল সি ডি
এল সি ডি এর পুরো নাম লিকুইড ক্রিষ্টাল ডিসপ্লে। এটা আমাদের সকলেরই অতি পরিচিত । আমরা সচরাচর ডিজিটাল ঘড়ি,ক্যালকুলেটর,মোবাইল ফোনে এল সি ডি দেখে থাকি। বাজারে বর্তমানে গ্রাফিক্যাল এল সি ডি সহ বিভিন্ন ধরণের মাইক্রোকন্ট্রোলার ভিত্তিক প্রজেক্টে ব্যবহার উপযোগী এল সি ডি পাওয়া যায়। তবে নতুনদের জন্য ১৬×২ এল সি ডি দিয়ে কাজ শুরু করা সহজ হবে। ঢাকা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম মার্কেটে পাওয়া যায় এমন একটা পরিচিত ১৬×২ এল সি ডি মডেল হচ্ছে QY1602A । তবে অন্য মডেল হলেও চিন্তা নেই । কারণ  ১৬×২ এল সি ডি সমূহের পিন কনফিগারেশন একই ধরণের হয়।

QY1602A ১৬×২ এল সি ডি

পিন কনফিগারেশন

  • Vss এই পিনে সাপ্লাই ভোল্টেজের গ্রাউন্ড সংযোগ করা হয়।
  • Vdd এই পিনে +5v সাপ্লাই ভোল্টেজের পজিটিভ প্রান্ত সংযোগ করতে হয়।
  • Vo এই পিনকে একটা ভেরিয়েবল রেজিস্টর এর সাথে সংযুক্ত করে সাপ্লাই প্রদান করা হয়।কন্ট্রাস্ট নিয়ন্ত্রণের জন্যই এই ব্যাবস্থা করা হয়।
  • RS কে বলা হয় রেজিস্টার সিলেকশন পিন। যখন এই পিনে সিগন্যাল হাই থাকে তখন ডাটা রেজিস্টার সিলেক্ট হয়, আর যখন এই পিনে সিগন্যাল লো হয় তখন ইন্সট্রাকশন রেজিস্টার সিলেক্ট হয়।
  • R/W রিডিং এবং রাইটিং মুড সিলেকশের কাজ করে।
  • E এনাবল পিন। এই পিনে সিগন্যাল যখন লো থেকে হাই হয় তখন কমান্ড এক্সিকিউট হয়।
  • D0-D7 এ পিন গুলো হচ্ছে বাই ডিরেকশনাল ডাটা লাইন।
  • LED A এই পিনে +v সাপ্লাই দিতে হয়। ডিসপ্লে এল ই ডি কে জ্বালানোর জন্য।
  • LED K এই পিনে গ্রাউন্ড সংযোগ করতে হয়।

………………………………………………………………………………..

আজ এখানেই শেষ করছি। সকলের জন্য শুভ কামনা রইল।

 

comments

2 কমেন্টস

  1. চমৎকার।

    তবে আমি কাজই শুরু করতে পারলামনা, এসব মাইক্রোকনট্রোলারগুলা লিনাক্সে কাজ করাতে হয় কিবাবে জানাতে পারলোনা কেউই। 🙁

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.