সৌন্দর্য্যমন্ডিত মরিশাস দ্বীপ

একটি নতুন গবেষণায় পাওয়া গিয়েছে যে, ভারত মহাসাগরের মরিশাস নামক দ্বীপের অতলে প্রায় ৩ বিলিয়ন বছর আগের হারিয়ে যাওয়া এক মহাদেশ রয়েছে। প্রায় বিলিয়ন বছর আগের “জিরকন” নামক এক পাথরের খন্ড আবিষ্কারের মাধ্যমে এই সত্যটি উদঘাটিত হয়। বিজ্ঞানীরা আরো বলেন যে, মরিশাসের আশেপাশের যে সকল পুরনো পাথর রয়েছে, তা কোনভাবেই ৯ মিলিয়ন বছরের বেশী প্রাচীন নয়।

প্রাপ্ত জিরকোনের স্যাটেলাইটে ধারণকৃত ছবি
                             প্রাপ্ত জিরকোনের স্যাটেলাইটে ধারণকৃত ছবি

ইউনিভার্সিটি অব উইটওয়াটারস্র্যান্ড এর ভূ-তাত্ত্বিক লুইস আশওয়াল বলেন,
“আমরা যে পাথরটি পেয়েছি তা এটাই প্রমাণ করে যে মরিশাসের নিচে একটি মহাদেশ থেকেই এই পাথর খন্ডটি পাওয়া যেতে পারে। কারণ, অন্য কোন অঞ্চলের ভূ-তাত্ত্বিক অবস্থানগত দিক থেকে এই পাথর পাবার কোন সম্ভাবনাই নেই। কার্বন টেস্ট আমাদের সে কথাই বলে। এখন আমাদের আরো পরীক্ষা করে দেখতে হবে যে এই পাথরটির মাধ্যমে ঐ মহাদেশের আকার আয়তন কতটুকু হতে পারে তা নির্ণয় করা যায় কি না।”

আগে মনে করা হত যে মরিশাস দ্বীপটি গঠিত হয়েছে সাগরের অভ্যন্তরে অবস্থিত আগ্নেয়গিরির লাভার উদগীরণের ফলে। বিজ্ঞানীদের এই আবিষ্কার এই তত্ত্বটিকে একটি নতুন দিকেই নিয়ে যাবে বলে তাদের বিশ্বাস।

সূত্রঃ লাইভ সাইন্স

comments

কোন কমেন্ট নেই

LEAVE A REPLY

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.