মঙ্গলে মানুষ পাড়ি জমাচ্ছে শীঘ্রই? ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট

ধরুন, পৃথিবীর জনসংখ্যা একদিন এমনভাবে ছাড়িয়ে গেল যে মানুষের জন্য পৃথিবী বসবাসের অযোগ্য হয়ে উঠল। তখন মানুষ কোথায় গিয়ে নতুন বসতি স্থাপন করবে? বিজ্ঞানীরা বেশ কয়েক বছর ধরেই মঙ্গল গ্রহ “দ্য রেড প্ল্যানেট” নিয়ে বেশ আশাবাদী হয়ে উঠেছেন। তাদের ধারণা, মঙ্গল গ্রহ হতে পারে মানুষের বসবাসের জন্য একটি উপযুক্ত গ্রহ। তবে প্রশ্ন হচ্ছে, মঙ্গল গ্রহে মানুষের জীবন ধারণের জন্য প্রয়োজনীয় উপাদান রয়েছে কি না।

নতুন একটি প্রযুক্তির মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করা হয়েছে। সমাধানটি একটি অদ্ভুত, ঠিক যেন সাইন্স ফিকশন ছবির মত। বিজ্ঞানীরা বলছেন মঙ্গল গ্রহের ধুলো ব্যবহার করে থ্রিডি প্রিন্টের মাধ্যমে বাড়ি বানানোর জন্য নানা ধরণের উপাদান এবং যন্ত্রাংশ তৈরি করা যাবে। এই প্রক্রিয়াটি সেসব লোকের জন্য খুবই সুবিধাপূর্ণ হবে যারা স্পেসশিপ থেকে তাদের সকল রসদ (সাপ্লাই) না নামিয়েই কিংবা কাজে না লাগিয়েই কাজটি করতে চান।

থ্রিডি পেইন্ট থেকে মঙ্গলের মাটি দিয়ে কেমন ব্যবহার্য তৈজস হতে পারে ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট
থ্রিডি পেইন্ট থেকে মঙ্গলের মাটি দিয়ে কেমন ব্যবহার্য তৈজস হতে পারে
ছবি সূত্রঃ ইন্টারনেট

ইলিনয়ের নর্থওয়েস্টার্ণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যাটেরিয়াল সায়েন্টিস্ট র‍্যামিলে শাহ বলেন,

“চাঁদ ও অন্যান্য গ্রহের মত যেখানে সম্পদ সীমিত, সেখানে মানুষের তাই ব্যবহার করতে হবে যা তাদের হাতের কাছে থাকে। আমাদের এই থ্রিডি পেইন্টস পৃথিবীর বাইরে মানুষের বসতি স্থাপনের জন্য যে সকল ফাংশনাল ও স্ট্রাকচারাল বস্তুর প্রয়োজন, তা প্রিন্ট করে নিয়ে আসতে পারবে।”

মঙ্গল গ্রহে যদি কেউ পাড়ি দিতে যায়, তাহলে তাকে স্পেসশিপে বিপুল পরিমাণ রসদ নিয়ে যেতে হবে। কিন্তু স্পেসশিপে এতো জায়গা না থাকতেও পারে কিংবা এটি বিপুল পরিমাণ ওজনের কারণে কাজ নাও করতে পারে। বিজ্ঞানীরা তাই এই সমস্যার সমাধান কি করে করা যায়, তার চেষ্টা করছিলেন এতোদিন। বিজ্ঞানীরা বলছেন, সকল ধরণের রসদ যদি পৃথিবী থেকে নেয়া হয়, তাহলে সেটি পৃথিবীর জন্যও ভালো হবে না। আমাদের চেষ্টা করা উচিত মঙ্গলের পরিবেশ থেকে যা যা পারি, তা ব্যবহার করা।

 

সূত্রঃ লাইভ সাইন্স

 

 

 

comments

কোন কমেন্ট নেই

LEAVE A REPLY

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.