বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনে কতো চড়াই-উৎরাই না পেরুতে হচ্ছে। সরকার পক্ষ সিম নিবন্ধনে জোর তাগিদ দিলেও অনেকেই প্রথমদিকে খুব বেশি সাড়া না দেওয়ায়, শেষ পর্যন্ত সরকারের এই সিদ্ধান্ত বৈধ কিনা জানতে চেয়ে আদালতের হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়। এরপর আদালত বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনে বৈধতা দেয়।

৩০ এপ্রিল পর্যন্ত শেষ তারিখও বেধে দেওয়া হয়েছে। তবে যারা সিম নিবন্ধন করেছেন তারা কি নিশ্চিত হতে পেরেছেন যে আপনার সিমটি সফলভাবে নিবন্ধিত হয়েছে। নাকি দোকানে বা কাস্টোমার কেয়ারের লোকদের কথা শুনে নিশ্চিত হয়েছেন? আপনার সিম নিবন্ধন করার পরও কিন্তু সেটি সফল নাও হতে পারে। তাই চলুন জেনে নিই আপনার সিম নিবন্ধন সফল হয়েছে কিনা। সেটা নিজেই জানুন।

সিম নিবন্ধন সঠিকভাবে সম্পন্ন হয়েছে কিনা তা যাচাইয়ের জন্য নিচের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করতে পারেন :

sim
১) বাংলালিংক নিবন্ধন যাচাই:
বাংলালিংকের গ্রাহকরা *1600*1# ডায়াল করে নিবন্ধন যাচাই করতে পারেন। আপনার নিবন্ধন যদি সঠিকভাবে সম্পন্ন হয়ে থাকে তবে মেসেজে আসবে : ইউর কানেকশন হ্যাভ অলরেডি বিন বায়োমেট্রিক রি-ভেরিফাইড অন (তারিখ)। থ্যাঙ্ক ইউ ফর ইউজিং বাংলালিংক।

২) গ্রামীণফোন নিবন্ধন যাচাই:
Message option গিয়ে reg লিখে 4949 এ send করুন। ফিরতি ক্ষুদে বার্তায় কী লেখা পড়ুন।

৩) রবি নিবন্ধন যাচাই:
*643# লিখে কল বাটন চাপুন। একটি ক্ষুদে বার্তা আসবে, অনুসরণ করুন 1 লিখে send করুন। ফিরতি ক্ষুদে বার্তায় কী লিখা পড়ুন।

৪) এয়ারটেল নিবন্ধন যাচাই:
*121*444# লিখে কল বাটন চাপুন। ফিরতি ক্ষুদে বার্তায় কী লিখা পড়ুন।

নিজেই জানতে পারবেন আপনার সিম বায়োমেট্রিকে নিবন্ধিত কিনা।

৫) টেলিটক নিবন্ধন যাচাই :
আপনার মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে ইংরেজি Q লিখে ১৬০০ নাম্বারে পাঠান। ফিরতি এসএমএসে জেনে যাবে আপনার সিমটি বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধিত হয়েছে কিনা।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.