রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ম্যাঙ্গো ডিজিটাল আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিয়েছে দেশের বাজারে ম্যাঙ্গো মোবাইল ফোন ছাড়ার। দেশীয় এই প্রতিষ্ঠান এদিন ১১টি হ্যান্ডসেট নিয়ে দেশের বাজারে যাত্রা শুরু করেছে। যার মধ্যে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত পাঁচটি স্মার্টফোন ও ছয়টি ফিচার ফোন। সংবাদ সম্মেলনে ম্যাঙ্গো ডিজিটালের প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা মো. ওহাব খান বলেন, বাংলাদেশে মোবাইল ফোনের বাজার খুবই সম্ভাবনাময় এবং দিন দিন গ্রাহকও বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাঁদের কথা ভেবেই ম্যাঙ্গো মোবাইল ফোনের নকশা ও দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। আশা করছি ম্যাঙ্গো মোবাইল সর্বসাধরণের ফোন হবে।

বাজারে আসা ম্যাঙ্গো মোবাইল মিলবে ৮০০ থেকে ১৫ হাজার টাকার মধ্যে। সব কটি স্মার্টফোন চলবে অ্যান্ড্রয়েড ৫.১ ললিপপ সংস্করণে। স্মার্টফোনগুলোর মডেল হলো ই৫০, ই৬০, গ্যালিসিয়া, রিও এবং ফ্ল্যাগশিপ ই৩০। এসব এর মধ্যে ই৩০ মডেলের মেটাল বডি সম্বলিত স্মার্টফোনটির পর্দা ৫ ইঞ্চি। এতে আছে ১.৩ গিগাহার্জের অক্টাকোর প্রসেসর। বিল্টইন মেমোরি ১৬ জিবি, র‌্যাম ৩ জিবি এবং ব্যাটারি ২২০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার। সামনের ও পেছনের ক্যামেরা যথাক্রমে ১৩ ও ৮ মেগাপিক্সেল। এছাড়া ই৫০ মডেলের স্মার্টফোনটি কিনলে পাওয়া যাবে ভিআর হেডসেট। অন্যদিকে ফিচার ফোনগুলোর মডেল হচ্ছে কে১০, কে২০, ফজলি, ডব্লিউ২২০, ডব্লিউ২২২ এবং ডব্লিউ ২৫০। এসব ফোনে রয়েছে অডিও-ভিডিও প্লেয়ার, এফএম রেডিও, ব্লটুথ, টর্চ প্রভৃতি সুবিধা। সকল হ্যান্ডসেটে দেয়া হবে এক বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দেশের বাজারে এসব ফোন বিপণনের জন্যে রয়েছে ৭০ টি কালেকশন পয়েন্ট।

২০টি গ্রাহকসেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে সারা দেশে বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করবে এই প্রতিষ্ঠান। পর্যায়ক্রমে বাড়ানো হবে গ্রাহকসেবা কেন্দ্র ও কালেকশন পয়েন্ট। সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ম্যাঙ্গো ডিজিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল খায়ের, পরিচালক মোয়াম্মের হোসেন খান, মহাব্যবস্থাপক (বিপণন) তৌফিকুল আলম।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.