বহু প্রতীক্ষার পরে এবার বাজারে আসছে গুগলের “নেক্সাস ৬” অনেকদিন ধরেই সবাই অপেক্ষা করছিলো এই ডিভাইসটির জন্য। গুগল ঠিক যথা সময়ে এটি অবমুক্ত করল। অন্যান্য প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের মতো গুগল এবার তাদের নেক্সাসে কিছু পরিবর্তন নিয়ে এসেছে। সব থেকে বেশি যে পরিবর্তনটি চোখে পড়বে সেটি এর ডিসপ্লে। নেক্সাস ৬ এর ডিসপ্লে সাইজ দেয়া হয়েছে ৬ ইঞ্চি। যেটি কিছুদিন আগে বাজারে আসা আইফোন ৬ প্লাস কিংবা গ্যালাক্সি নোট ৪-এর চেয়েও বড়। বাজারের চাহিদার দিকে লক্ষ্য রেখে গুগল এবারের নেক্সাস ৬ ফোনে দিয়েছে ৬-ইঞ্চি আকারের বিশাল ডিসপ্লে।

অনেকের মনে ভ্রান্ত ধারণা থাকতে পারে যে এতো বড় ডিসপ্লে দেবার কারনে এর ডিসপ্লের মান বা ছবির মান খুব একটা ভালো হবে না। কিন্তু না নেক্সাস ৬ এর ডিসপ্লে হচ্ছে কোয়াড এইচডি (qHD) , যার ফলে বড় আকারের ডিসপ্লে হওয়ার সত্ত্বেও এর ইমেজ বা পিকচার কোয়ালিটি হবে একেবারে ঝকঝকা পরিস্কার আফটার আল গুগলের প্রোডাক্ট বলে কথা।

নেক্সাস ৬

এজ নজরে নেক্সাস ৬ এর ফিচার –

নেক্সাস ৬ এ ব্যবহার করা হয়েছে কোয়ালকমের শক্তিশালী স্ন্যাপড্রাগন ৮০৫ প্রসেসর। ক্যামেরা ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ও ২ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট। এতো হাই কনফিগারের ক্যামেরা হবার কারনে এটি দিয়ে তোলা ছবির মান হবে একেবারে জীবন্ত। সাথে আছে দু’টি ফ্রন্ট-ফেসিং স্পিকার। ব্যবহার করা হয়েছে শক্তিশালী ৩২২০ এমএএইচ ক্ষমতার ব্যাটারি। এর ডিসপ্লের সাইজ জেহুতু অনেক বড় তাই স্বাভাবিক ভাবেই বড় ব্যাটারির প্রয়োজন ছিল আর গুগল সেটি করতে একটুও ভুল করেনি। বর্তমানে স্মার্টফোন গুলোর সবথেকে বেশি যে সমস্যাটি হয় তা হল এর ব্যাটারি ব্যাকআপ। এতো বড় ব্যাটারি ব্যাবহার করার কারনে আশা করা যায় এটির চার্জ মোটামুটি ভালোই থাকবে। নেক্সাস ৬ বাজারে আসবে ২ টি ভার্শনে একটি ৩২ গিগাবাইট এবং ওপরটি ৬৪ গিগাবাইটের। সাথে থাকবে গাড় নীল ও সাদা রঙের ২টি মডেল।

এর কনফিগার সম্বন্ধে বিস্তারিত আরও জানতে ভিজিট করতে পারেন এখানে। গুগল “নেক্সাস ৬” এর অসাধারণ একটি ভিডিও রিভিউ আছে ইউটিউবে, সেটি দেখতে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন এখান থেকে

নেক্সাস ৬

নেক্সাস ৬ কে মটোরোলার এর আগের মডেল “মটো এক্স” এর পরিবর্তিত সংস্করণ হিসেবে বাজারে ছাড়া হয়েছে। নেক্সাস ৬ চলবে অ্যান্ড্রয়েডের নতুন সংস্করণ “অ্যান্ড্রয়েড ৫.০ ললিপপ” দিভাইসটি জেহুতু নতুন তার ফিচার নতুন হবে না এটা কোন কথা। গুগল তাদের নতুন ললিপপ আপডেট সবার আগে এটিতে দিয়েছে। এটি ব্যাবহার করলে আপনি পাবেন একটি সাথে স্মার্টফোন প্লাস ট্যাবলেটের স্বাদ। তবে ডিভাইসটির দামের ব্যাপারে কিন্তু গুগল এবার একটু বেশি বেশি করে ফেলেছে এটির বাজার মূল্য ধরা হয়েছে প্রায় ৬৫০ ডলার। যা নেক্সাস ৫ এর থেকে অনেক বেশি।

গতবারের গুগল নেক্সাস অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছে এর কম দামের সাথে হাই কনফিগারের কারনে। এবার একটু ভিন্ন কনফিগার দেয়া হয়েছে মাগার দামটাও ধরা হয়েছে একটু বেশি। আপনাদের কি মনে হয় কেমন হবে “নেক্সাস ৬” এটি কি পারবে আশানুরূপ সারা ফেলতে। বাজারে কিন্তু বর্তমানে এটির বড় বড় প্রতিদ্বন্দ্বী আছে। নেক্সাস কি পারবে তাদের টেক্কা দিতে? দেখাযাক সময় বলে দিবে। আমার কাছে এটি খুব একটা ভালো লাগেনি তবে আপনাদের কেমন লেগেছে জানিয়েন কমেন্টবক্সে।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.