প্রথমবারের মতো বাঁকানো পর্দার ল্যাপটপ নিয়ে এলো অ্যাসার। প্রিডেটর ২১এক্স মডেলের এই গেমিং ল্যাপটপে থাকছে ২১ ইঞ্চির বিশালায়তন বাঁকানো পর্দা। তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট ম্যাশেবল ও দ্য ভার্জ জানিয়েছে এ খবর।

জার্মানির  বার্লিনে অনুষ্ঠিত আইএফএ ২০১৬ প্রদর্শনীতে অ্যাসার তাদের নতুন এই গেমিং ল্যাপটপটি উন্মুক্ত করে। শুধু বাঁকানো পর্দা নয়, অন্য সব স্পেসিফিকেশনের দিক থেকে প্রিডেটর ২১এক্স ল্যাপটপকে ‘দানবীয়’ বলা চলে।

একজন গেমারের জন্য একটি ল্যাপটপে যেসব হার্ডওয়্যার প্রয়োজন, তার সবই দিচ্ছে অ্যাসার। ফুল এইচডি বাঁকানো পর্দার সঙ্গে থাকছে ‘টবি’ আই ট্র্যাকিং প্রযুক্তি।

প্রসেসর হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে ইন্টেলের সেভেন্থ জেনারেশন কোর-কে প্রসেসর। ডিডিআর৪ র্যা ম সাপোর্ট করবে প্রিডেটর ২১এক্স।

ব্যবহারকারী  চাইলে তাঁর ল্যাপটপের র্যা মকে সর্বোচ্চ ৬৪ জিবি পর্যন্ত বাড়িয়ে নিতে পারবেন। আর স্টোরেজের দিক থেকেও কোনো কার্পণ্য করেনি অ্যাসার। চার টেরাবাইটের এসএসডি স্টোরেজ থাকছে ল্যাপটপটিতে।

অন্যদিকে, ফোরকে রেজ্যুলেশনে সর্বোচ্চ ফ্রেম রেটে বাধাহীন গেম খেলার অভিজ্ঞতা দিতে অ্যাসার তাদের প্রিডেটর ২১এক্সে যুক্ত করেছে দুটি এনভিডিয়া জিফোর্স জিটিএক্স ১০৮০ জিপিইউ! আর এত শক্তিশালী হার্ডওয়্যারের চাপে ল্যাপটপকে গরম হয়ে যাওয়ার কোনো সুযোগ দিতে নারাজ অ্যাসার। তাই মোট পাঁচটি  ফ্যান রাখা হয়েছে গেমিং ল্যাপটপটিতে, পাঁচটি ফ্যানের তিনটি মেটাল এরোব্লেডের।

ভিডিওর সঙ্গে সঙ্গে ল্যাপটপের অডিওর গুণমানও বেশ উন্নত করেছে অ্যাসার। তিনদিকে স্পিকার রাখা হয়েছে ল্যাপটপের ডিজাইনে আর ব্যবহৃত হয়েছে ডলবি অডিও।এবং গেমারদের পছন্দের মেকানিক্যাল কিবোর্ড থাকছে প্রিডেটরের এই সংস্করণে, যেখানে অন্তর্ভুক্ত আছে চেরি এমএক্স কিবোর্ড এবং নাম্বার প্যাড।

তবে ল্যাপটপের একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার সম্পর্কে কিছুই জানায়নি অ্যাসার। আর সেটি হলো ব্যাটারির ধারণক্ষমতা। অন্যদিকে দাম সম্পর্কেও কোনো কিছু জানানো হয়নি। সাধারণ ক্রেতাদের জন্য কবে বাজারে আসবে প্রিডেটর ২১এক্স, সেটি নিশ্চিতভাবে জানা না গেলেও এ বছরের শেষের দিকে আগাম অর্ডার নেওয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.