শার্লি স্যান্ডবার্গ,বর্তমান বিশ্বে নারী শক্তির এক অনন্য নাম। বর্তমানে ফেসবুকের চিফ অপারেটিং অফিসার(সিওও) হিসেবে কাজ করছেন। ২০০৮ সাল হতে ফেসবুকের সিওও হিসেবে কাজ করে আসা শার্লি বিশ্বব্যপী পরিচিতি পেয়েছেন তার অপারেশন স্কিলের কারণেই। সাথে সামাজিক মাধ্যমে উপস্থিতি তো রয়েছেই। এই ব্যস্ত নারীর জীবনে রয়েছে বেশ কিছু চমকপ্রদ তথ্য। ১৯৬৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের জুয়েল ও অ্যাডেলে স্যান্ডবার্গ পরিবারে জন্মগ্রহন করেন শার্লি স্যান্ডবার্গ। তিন ভাই বোনের মধ্যে সবার বড় শার্লি। তার বাবা জুয়েল স্যান্ডবার্গ একজন চক্ষু রোগ বিশেষজ্ঞ এবং মা অ্যাডেলে স্যান্ডবার্গ একটি কলেজে ফরাসী ভাষা শেখাতেন। শার্লি উত্তর মিয়ামীতে সিনিয়র বিচ হাই স্কুলে লেখাপড়া শেষ করেন। পরে হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি থেকে অর্থনীতি বিভাগে বিএ ডিগ্রী অর্জন করেন। ১৯৯৫ সালে এমবিএ করার জন্য হার্ভার্ডেই ভর্তি হন। হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটিতে পড়াশোনা করাকালীন সময়ে নিজ উদ্দ্যোগে ‘ওমেন ইন ইকোনমিকস এ্যান্ড গভর্ণমেন্ট’ নামক সেবাকারী সংস্থা প্রতিষ্ঠা করেন শার্লি। তার এই প্রতিষ্ঠানের মত্য ছিল -সরকারের অর্থনীতি চাঙ্গা করতে নারী শক্তি বাস্তাবায়ন করা।  ফেসবুকে যোগদানের আগে শার্লি বিশ্বব্যাংকের হয়ে ’ম্যাকিনিজ এন্ড কোম্পানীতে’ কাজ করেন। ২০০১ সালে তিনি ’গুগল’এ যোগদান করেন। কিন্তু তার আগে তৎকালীন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কোষাগারের প্রধান ষ্টাফ হিসেবে কর্মরত ছিলেন। গুগলে তিনি ভোগ্যপণ্য ও বই অনুসন্ধান বিভাগের প্রধান হিসেবে কাজ করেন।এমনকি বিশ্বব্যাপী নন্দিত জায়ান্ট সার্চ ইঞ্জিন Google.org চালু করতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেন তিনি। ২০১২ সালে তিনি প্রথম নারী হিসেবে ফেসবুকের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য নির্বচিত হন। শার্লি একটি বই লিখেছেন যার নাম Lean in: Women, Work, and Will to Lead। এই বইতে তিনি বিশ্বে নারী শক্তি ও নেতৃত্বের কথা লিখেছেন। ২০১৩ সালে ‘টাইম ম্যাগাজিনে’ বিশ্বের প্রভাবশালী নারীদের তালিকায় তার নাম অন্তর্ভূক্ত হয়। তবে এর আগে বিশ্বের ১০০ জন প্রভাবশালী ব্যাক্তির তালিকায় নাম লেখানো হয় শার্লি স্যান্ডবারর্গের। বিশ্বব্যাপী আলোচিত ‘ফরচুন ম্যাগাজিনে’সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যবসায়ী ব্যক্তি হিসেবে একাধিকবার মনোনিত হন শার্লি।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.