indexহঠাৎ একদিন ফেসবুকে লগইন করার পর আপনার পরিচিত কোনো মৃত মানুষের অ্যাকাউন্ট থেকে আসা নোটিফিকেশন দেখে অবাক হবেন না একদমই।

গবেষকদের মতে, বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম অতি শিগগিরই পরিণত হতে যাচ্ছে একটি ভার্চুয়াল কবরস্থানে। কারণ, একসময় ফেসবুকে জীবিত মানুষের থেকে মৃত মানুষের প্রোফাইলের সংখ্যা বেড়ে যাবে অনেক বেশি। যুক্তরাজ্যের ডেইলি মেইল পত্রিকা এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

এ বিষয়ে গবেষণা চালানো পরিসংখ্যানবিদ হাশেম সাদিকি ডেইলি মেইলকে বলেন, ‘ফেসবুকে বর্তমানে প্রায় দেড়শ কোটি ব্যবহারকারী রয়েছে। ধারণা করা যায়, ২০৯৮ সালের মধ্যে এই ওয়েবসাইটটি পরিণত হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় কবরস্থানে।’

এই ঘটনা ঘটবে কারণ, কোনো ব্যক্তি মরে গেলে ফেসবুক মৃত ব্যক্তির প্রোফাইলটি মুছে ফেলে না। মৃত ব্যক্তিটির প্রোফাইলের স্মৃতিগুলো রেখে দিতে সেটিকে ‘মেমোরিয়ালাইজ’ করা হয়।

সাদিকি আরো বলেন, ‘ফেসবুকের আইডি মুছে দিতে অনীহার কারণে দিন দিন সাইটটির সদস্যসংখ্যা বেড়েই চলেছে। এর ফলে একদিন জীবিত মানুষের আইডি সংখ্যা অনেক কমে যাবে মৃতদের তুলনায়।’

ম্যাসাচুসেটস বিশ্ববিদ্যালয়ের পিএইচডি প্রার্থী সাদিকি আরো জানান, খুব শিগগির ফেসবুকের এই সদস্য বৃদ্ধির হারও কমে আসবে। অন্যদিকে একটি ব্লগিং প্রতিষ্ঠান দাবি করছে, এই বছর সারা বিশ্বে প্রায় নয় লাখ ৭০ হাজার ফেসবুক ব্যবহারকারী মৃত্যুবরণ করবে।

২০১০ সালে মোট তিন লাখ ৮৫ হাজার ৯৬৮ জন ফেসবুক ব্যবহারকারী পৃথিবী ছেড়ে চলে গিয়েছিল, যার সংখ্যা ২০১২-তে বেড়ে দাঁড়ায় পাঁচ লাখ ৮০ হাজারে।

গত বছরগুলোর তুলনায় এ বছর আরো অনেক বেশি সংখ্যক ফেসবুক ব্যবহারকারী মারা যাবে এবং প্রতিবছর সেটি বাড়তেই থাকবে।

সুত্রঃ এন টিভি অনলাইন

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.