Pinterest Marketing https://www.facebook.com/groups/SocialMediaBangladesh/

“বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম”

শুরুতে সবাইকে স্বাগত জানাচ্ছি । আমি আজ পিনটারেস্ট প্রোফাইল খুলে কিভাবে বিজনেসের কাজে ব্যবহার করা যায় সে সম্পর্কে আলোচনা করবো। তাই আমার লিখার হেডিং দেখে নিশ্চই বুঝতে পারছেন পিনটারেস্ট যখন মার্কেটিং প্ল্যাটফর্ম।

১। Account Opening: শুরুতে Account Opening এর ক্ষেত্রে আপনি আপনার মেইল ঠিকানা ও পাসওয়ার্ড দিয়ে Sign Up এ চাপ দিয়ে এ্যাকাউন্ট খোলার কাজ শুরু করুন। এরপর Personal Profile না খুলে অর্থাৎ First and last name, Age, Sex না দিয়ে ঠিক নিচে খেয়াল করুন Continue as a business এ চাপ দিয়ে যা যা চায় তা পূরণ করুন। কেন Continue as a business বললাম তার কারণ, আপনি আপনার প্রোফাইলে গিয়ে যেখানে আপনার সেটিং অপশন দেখতে পাবেন সেখানে Log Out এর পূর্বে দেখুন Analytics নামে একটি অপশন দেখতে পাবেন। এখানে ক্লিক করে দেখুন এখন তিনটা খালি ঘর দেখতে পাচ্ছেন। প্রথম ঘরের উপরে লিখা আছে Your Pinterest Profile – এর নিচে Avg. daily impressions আর তার পাশে Avg. daily viewers। Avg. daily impressions অর্থাৎ গড়ে কতবার আপনার প্রোফাইল থেকে করা পিনসমূহ কতবার পিনটারেস্টের হোম ফিডে, ক্যাটাগরি ফিডে এবং সার্চে এসেছে। Avg. daily viewers অর্থাৎ গড়ে দৈনিক কতজন আপনার করা পিনসমূহ দেখতে পাচ্ছে। এর পাশের ঘরে Your audience – এর নিচে দেখুন Avg. monthly viewers এর অর্থ হচ্ছে গড়ে মাসে কতজন আপনার করা পিনসমূহ তাদের ফিডে দেখতে পাচ্ছেন। Avg. monthly engage এর অর্থ গড়ে মাসিক কতজন আপনার পিন নিয়ে ব্যাস্ত থাকছে অর্থাৎ রিপিন করছে। Activity from YOUR WEBSITE – আপনি যেই ওয়েবসাইট এখানে যোগ করেছেন সেখান থেকে কতজন ভিজিটর আপনার পিনটারেস্ট প্রোফাইল ভিজিট করছেন। ওয়েবসাইট যোগ করা নিয়ে নিচে আলোচনা করা হবে। এ্যাকাউন্ট খোলার পরে এইসব ঘর গুলোতে কোন কিছু শো করবেনা। কারণ, Analytics এর কাজ হচ্ছে পূর্বের ডাটার সাথে কম্পেয়ার করে একটা চিত্র তৈরি করা। কিন্তু আপনার সদ্য খোলা এ্যাকাউন্টে পূর্বে কিছুই করা হয়নাই। তাই এটার গ্রাফ দেখতে কিছুদিন অপেক্ষা করুন। এখান থেকে Analytics বিষয়ে পিনটারেস্টের নিজের কিছু উত্তর দেখুন- https://help.pinterest.com/en/articles/your-pinterest-profile-analytics

২। Business Name and Profile Name: প্রথমে আপনি Pinterest এ এ্যাকাউন্ট খুলুন। এই সময় মনে রাখবেন আপনি যেই রকম প্রোডাক্টের মার্কেটিং করতে চাচ্ছেন অনেকটা তার সাথে সঙ্গতি রেখে আপনার Business Name সিলেক্ট করুন। এরপর আপনার User Name এর স্থলে আপনার Business Name এর সাথে মিল রেখে নাম দিন। (আমি প্রথমেই পরামর্শ দিব, আপনি যদি ফেসবুকে, টুইটারে আর অন্যান্য সোস্যাল প্লাটফর্মে আপনার এই Business এ্যাকাউন্ট বা পেজ চালান তবে সেই একই নাম এখানে ব্যবহার করবেন)।

৩। Business Type: এখানে আপনার প্রোডাক্টের ধরণের সাথে সঙ্গতি রেখে একটি সিলেক্ট করুন। সম্পূর্ণ মিল না পেলেও কাছাকাছি রাখার চেষ্টা করুন। নাহলে Other দিন।

৪। Logo: আপনার সাইটের লোগো এখানে প্রোফাইল ছবি হিসেবে ব্যবহারের চেষ্টা করুন। এতে আপনার সাইটের ভিজিটর যারা এখান থেকে আপনার সাইটে যাবেন তারা অনেক সহজেই আপনার সাইট এবং Pinterest এ্যাকাউন্ট একই যে তা বুঝতে পারবেন।

৫। Username: এই বিষয়টি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এ্যাকাউন্ট খোলা হয়ে গেলে আপনার এ্যাকাউন্টের প্রোফাইলে গিয়ে Edit Profile এ চাপ দিয়ে দেখুন সেখানে Business Name, Picture অর্থাৎ আপনার বিজনেস লোগোর ঠিক পরেই Username এর স্থানে www.pinterest.com… এর পরে একটি ফাঁকা ঘর দেখতে পাবেন যেখানে আপনার Business Name এর সাথে মিল রেখে অবশ্যই Username দিন। যেমন ধরুন আমার বিজনেস নেম Social Media Marketing BD। তাহলে www.pinterest.com/… এর পরে www.pinterest.com/SocialMediaMarketingBD দিন। এতে যে কেউ আপনার প্রোফাইল খুব সহজেই আপনার বিজনেস নেমের সাথে মিল রেখে খুঁজে পাবে। অনেকটা ফেসবুকে নিজের পেজ নেমের মত।

৬। About You: এখানে আপনার ব্যবসার ধরণ মত সংক্ষিপ্ত আকারে ১৬০ শব্দের মধ্যে খুব আকর্ষনীয় করে বর্ণনা দিন, যাতে টার্গেটেড ভিজিটর কে আকৃষ্ট করে।

৭।  Location: আপনার ব্যবসার টার্গেটেড ভিজিটর হিসেবে লোকেশন দিন। আমি এ জন্যই বলবো কারন, অনেক সময় উন্নত দেশ গুলোর ভিজিটর আমাদের দেশের অনেক কিছুই এড়িয়ে চলে। যেমন ধরুন আপনার টার্গেটেড ভিজিটর ইউএসএ। তাহলে কী হবে নিশ্চই বুঝতে পারছেন?

৮। Website: আপনার যদি Website থাকে তবে তা ভেরিফাই করে নিন। এতে আপনার প্রোফাইলে Site Verified দেখাবে। যা আপনার ফলোয়ারের কাছে আপনার প্রোফাইলের বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়াবে। এছাড়া, Analytics এ যেখানে Activity from YOUR WEBSITE আছে সেখানে গ্রাফ শো করবে।

৯। Search Privacy: অবশ্যই No করে রাখবেন। এতে সার্চ ইঞ্জিনের আপনার প্রোফাইল খুঁজে পেতে সুবিধা হবে।

১০। Board: এখন প্রোফাইল ১০০% কমপ্লিট করলাম। এরপর Board Create করতে হবে। সব সময় মনে রাখবেন, আপনার বিজনেসের সাথে মিল রেখে বেশ কয়েকটি প্রোডাক্ট অনুযায়ী Board Create করুন। এর জন্য আপনি ঠিক বাম পাশে + নিচে লিখা Create Board button এ চাপ দিয়ে নতুন বোর্ড তৈরি করুন। এছাড়া ভবিষ্যতে অন্য প্রোডাক্টের মার্কেটিং এর কথা ভেবেও বোর্ড তৈরি করে রাখতে পারেন। এতে যখন আপনি সেই প্রোডাক্টের ব্যবসা শুরু করবেন সেখানে নিশ্চিন্তে ভিজিটর পাবেন। তাই মাঝে মাঝে যতক্ষণ আপনার প্রোডাক্ট না আসে ততক্ষণ অন্যের পিন আপনার প্রোডাক্টের সাথে সঙ্গতি রেখে উক্ত বোর্ডে পিন করতে থাকুন। এতে ভিজিটরের এনগেজমেন্ট বজায় থাকবে।

১১। Board Name: এখানে আপনি যেই প্রোডাক্টের মার্কেটিং করবেন সেই প্রোডাক্টের সাথে মিল রেখে Board Name দিন। অবশ্যই মনে রাখবেন, আপনার প্রোডাক্ট যদি একাধিক ধরণের হয় তবে প্রোডাক্টের সাথে সঙ্গতি রেখে একাধিক ভিন্ন ভিন্ন বোর্ড তৈরি করুন। যেমন ধরুন, আমার প্রোডাক্ট Weight Loss তাহলে সেই মত নামও দিব। আবার একই বিজনেসে আমার আরেকটা প্রোডাক্ট Make Money Online তাহলে বাকিটা কী হবে নিশ্চই বুঝতে পারছেন? অর্থাৎ, একই বোর্ডে একাধিক ভিন্ন প্রোডাক্ট পিন করা মোটেই বাঞ্চনীয় নয়। এতে অনেক ভিজিটর বিরক্ত হবে।

১২। Description: এখানে আপনার প্রোডাক্টের খুব সংক্ষিপ্ত আর আকর্ষনীয় করে বর্ণনা লিখুন। যাতে ভিজিটর খুব সহজেই আপনার বোর্ডের প্রোডাক্টের বর্ণনা পেয়ে যায়। তবে দয়া করে হ্যাসট্যাগ # ব্যবহার করবেন না। এতে সৌন্দর্য বিনষ্ট হবে। আমি আমার পূর্বের অভিজ্ঞতা থেকেই বলছি, অনেকেই একটা দায়সারা গোছের বর্ণনা লিখে একই বোর্ডে ১০ রকমের প্রোডাক্টের পিন করে। এখন আপনি নিজেই ভেবে দেখুন একজন ভিজিটর হিসেবে কারো বোর্ড এমন দেখলে আপনি কী করবেন?

১৩। Category: এখানে আপনি আপনার প্রোডাক্ট অনুযায়ী Category নির্বাচন করুন। যদি সম্পূর্ণ না মিলে তাহলে কাছাকাছি দেবার চেষ্টা করুন নাহলে Other দিন।

১৪। Map, Secret: যদি আপনি লোকাল কোন বিজনেস করেন তাহলে Map নির্বাচন করুন। অনেকটা Google Maps এর মত। ঠিক আপনার প্রতিষ্ঠানের স্থান খুঁজে সেখানে Mapping এর মত করে আপনার প্রতিষ্ঠানের ঠিকানায় Map করে দিন। এতে গ্রাহকের আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা খুঁজে পেতে সুবিধা হবে। Secret অপশনটা যেখানে আছে সেখানেই রাখুন।

১৫। Collaborator: এখানে আপনার এই বোর্ডে যদি আপনি চান যে আপনার সাথে আর কেউ (এই বোর্ডের মতই যার বোর্ড আছে) পিন করুক তাহলে তার ই মেইল ঠিকানা দিয়ে তাকে আপনার বোর্ডে পিন করার জন্য রিকোয়েষ্ট পাঠাতে পারেন। তবে প্রথম অবস্থাতে এই রকম না করাই ভাল। সব শেষে Save Button এ চাপ দিয়ে Save করুন।

১৬। Find Relevant Pinner: এখন আপনার কাজ হচ্ছে আপনার বোর্ডের/ব্যবসার সাথে মিল আছে এমন বোর্ড বা প্রোফাইলকে আপনি উপরের সার্চ বার থেকে সার্চ করে তাকে ফলো করা শুরু করুন। তবে এ ক্ষেত্রে অবশ্যই খেয়াল করবেন তার ফলোয়ার কত, তার পিন সংখ্যা কত। সেখানে একটা সামঞ্জস্য থাকবে। এভাবে ফলো করতে থাকেন। দেখবেন আপনার ফলোয়ার ও বাড়তে থাকবে। এখানে আমি আপনাদের জন্য একটি ওয়েব সাইটের ঠিকান দিচ্ছি যেখান থেকে আপনি আপনার ব্যবসার সাথে মিল রেখে বা বোর্ডের সাথে মিল রেখে পিনার বা বোর্ড খুজে পাবেন http://pingroupie.com/ এখানে পছন্দ মত Category সিলেক্ট করে কোন ধরণের বোর্ড খুঁজছেন তা Title এ লিখুন এবং চাইলে Description দিতে পারেন তাহলেই প্রায় ৮৭৯৯২ টি বোর্ডের মাঝে থেকে আপনার কাংখিত বোর্ড খুঁজে পেতে সাহায্য করবে।

১৭। Pin: বিভিন্ন বোর্ডে যারা পিন করছেন তাদের পিন থেকে আপনার বোর্ডে পিন করতে থাকুন। আপনি যাদের ফলো করছেন তাদের পিনকেই আবার পিন করুন। একে Repin বলে। আর তার সাথে আপনার নিজের সাইট থেকেও পিন করতে থাকুন। কিভাবে একটি সুন্দর আকর্ষনীয় পিন তৈরি করা যায় তা আরেকদিন বর্ণনা করবো ইন শা আল্লাহ। এছাড়াও আপনি আপনার বোর্ডে প্রবেশ করে তার বাম পাশে + চিহ্নিত Ad a pin বাটনে চাপ দিলে একটি বক্স আসবে। সেখান থেকে আপনি যদি কোন নির্দিষ্ট ওয়েব সাইটের পিন করতে চান তাহলে Pin From এ Web সিলেক্ট করে সেই ওয়েব সাইটের ঠিকানা দিলেই সেখানকার পোষ্টের ছবি সমূহের লিস্ট দেখতে পাবেন। তবে শুধু ঠিকানা যেমন, sitename.com দিবেন। তারপর আপনার বর্ণনা Description এর স্থলে দিয়ে নির্দিষ্ট বোর্ড সিলেক্ট করে পিন দিন। তবে কখনই হ্যাশ ট্যাগ # ব্যবহার করবেন না। পারলে আপনার সাইটের এ্যাড্রেস, বর্ণনার সাথে এ্যাড করে দিতে পারেন। অবশ্যই আপনার বোর্ডের পিনের সাথে সাইট সামঞ্জস্য পূর্ণ হতে হবে। বর্ণনার সাথে মিল নেই এই রকম একটি সাইটে আপনার ভিজিটরকে নিয়ে গেলে আপনার ভিজিটর বিরক্ত হবে এমনকি আপনাকে আনফলোও করে দিতে পারে। এছাড়াও Your Device Option এর উপর ক্লিক করে আপনার হার্ড ডিস্কে সংরক্ষিত ছবি থেকে আপলোড করে পিন করতে পারেন। এক্ষেত্রে বর্ণনার স্থলে আগের নিয়ম মত বর্ণনা দিতে পারেন।

সবসময় আমাদের একটি কথা মনে রাখা উচিত বলে আমি মনে করি। তা হচ্ছে, আপনি নিজে যেই রকম দেখতে পছন্দ করেন না, ঠিক সেই রকম ভিজিটরকেও দেখানোর চেষ্টা করবেন না।

সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটিং সম্পর্কে জানতে আর নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে ফেসবুকে আমাদের Social Media Marketing BD গ্রুপে জয়েন করতে পারেন। ভুল হলে ক্ষমা করবেন। আর কিছু যোগ বা বিয়োগ করার প্রয়োজন থাকলে দয়া করে কমেন্টে জানাবেন। আজ এই পর্যন্তই। পরের পর্বে আরো অনেক কিছু আলোচনা করব বলে আশা রাখি। আল্লাহ্‌ হাফেয।

(চলবে)…

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.