পরীক্ষার দুশ্চিন্তায় ভুগছেন?

আমরা অনেকে যারা ছাত্র আছি, তারা মাঝে মাঝেই পরীক্ষার জন্য অনেক নাজেহাল হতে হয়। কি করে পরীক্ষার হলে লিখব বা কেমন করে উত্তর লিখলে বেশি নম্বর পাব, তা আমাদের অনেকের কাছেই অজানা।

বিজ্ঞানী স্মিথ বলেন, “সব কিছুরই একটি বৈজ্ঞানিক উপায় রয়েছে যার মাধ্যমে কাজটি আরো সূচারুরুপে সম্পন্ন করা যায়। পরীক্ষার মাঝে উত্তর করাটাও এর ব্যতিক্রম কিছু নয়।”

পরীক্ষার হলে কি করে ভালো উত্তর করা যায়, তার কিছু বৈজ্ঞানিক উপায় আজ আপনাদের দেয়া হলঃ 

১) পূর্ববর্তী প্রশ্নগুলো দেখে ফেলুনঃ 

আপনার পরীক্ষার আগে যেসকল পরীক্ষা হয়েছে, সেসব পরীক্ষার প্রশ্নগুলো দেখে ফেলুন। তাহলে পরীক্ষা সম্পর্কে আপনার একটু ধারণা হবে।কেমন প্রশ্ন হতে পারে তা জানা থাকলে পরীক্ষার হলে আচমকা ভয়ে পড়তে হবে না।

২) সকল প্রশ্ন ভালো করে পড়ে ফেলুনঃ

সিডিনী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর অ্যাডাম বলেন, পরীক্ষার হলে অনেকে প্রশ্ন না পড়েই উত্তর করা শুরু করে দেয় যা অনেকের জন্য ভালো কিছু বয়ে আনে না। প্রথমে প্রশ্নগুলো পড়ে বোঝার চেষ্টা করুন যে আপনার কাছে আসলে কি চাওয়া হয়েছে। তারপর উত্তরটি সাজিয়ে ফেলুন এবং উত্তর করুন।

৩) সময়টা ভালো করে খেয়াল করুনঃ 

ইয়র্কশায়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থীর ওপর গবেষনা করে জানা গিয়েছে যে, পরীক্ষার হলে অনেক সময় ঠিকমত সময় অনুধাবন না করতে পারার ফলে জানাশোনা অনেক প্রশ্নও অনেক সময় ছেড়ে আসতে হয়। তাই পরীক্ষার হলে সময় অনুধাবন করে লেখাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

৪) এলোমেলো না লিখে উত্তর সাজিয়ে ফেলুনঃ 

অনেক সময় আমাদের এমন হয় যে জানাশোনা প্রশ্নের উত্তরগুলো আমাদেরই খামখেয়ালীর জন্য খারাপ হয়ে যায়, ফলে নম্বরটি কম আসে। উইসকন্সিন বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, একটি সুসংগঠিত প্রক্রিয়াতে যদি উত্তর লেখা হয় তাহলে তা আরো আকর্ষনীয় এবং ভালো হয়। এক্ষেত্রে নীল কালির কলম আপনি বিভিন্ন মার্কার ব্যবহার করতে পারে, পয়েন্ট করে সাজিয়ে লিখে ফেলুন।

সূত্রঃ Goconqr.com

 

 

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.