“প্রোগ্রামিং মানুষকে শেখায় কিভাবে চিন্তা করতে হয়।কিভাবে সঠিক চিন্তার মাধ্যমে যে কোন সমস্যার সঠিক সমাধান করতে হয়।প্রোগ্রামিং শেখার মাধ্যমে আমি আমার চিন্তার পরিসরকে আরো বাড়াতে পারবো। ভবিষ্যতে দেশ ও জগতের জন্য কল্যাণকর কিছু করতে চাই বলেই আমি প্রোগ্রামিং শিখছি এবং এই ক্যাম্পের মাধ্যমে অনেক নতুন কিছু শিখতে পেরেছি।” দিনাজপুর হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী মাধুর্য দাস ঐশী এভাবেই তার ক্যাম্পে আসার কারণ ব্যাখ্যা করেছে। অন্যদিকে হাইস্কুলের ছাত্রী আরিবা জাহিন পুন্য মনে করে ক্যাম্প থেকে যা শিখেছে তা যদি আয়ত্ত করতে পারে তাহলে প্রোগ্রামিং-এ সে আরো এগিয়ে যেতে পারবে।দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় মেয়েদের জন্য আয়োজিত গ্রেস হপার গার্লস ক্যাম্প ফর প্রোগ্রামিং কনটেস্টের সমাপনী দিনে ৮ সেপ্টেম্বর এভাবেই নিজেদের অভিব্যক্তি প্রকাশ করছিল অংশগ্রহণকারীরা। হাবিপ্রবির নেপালী শিক্ষার্থী জুলি কর্ণ ক্যাম্পিং-এর অভিজ্ঞতাকে অসাধারণ মন্তব্য করে জানায় এর মাধ্যমে তার প্রোগ্রামার হওয়ার আগ্রহ অনেকগুন বেড়ে গেছে।

তিনদিনব্যাপী প্রোগ্রামিং ক্যাম্পের শেষদিনে ক্যাম্পে অনুষ্ঠিত প্রোগ্রামিং প্রতিযগিতায় স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয় বিভাগ থেকে প্রথম স্থান অর্জন কারী আরিবা জাহিন পূর্ণ এবং সালমা খাতুন এর হাতে পুরস্কার তুলে দেন দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম। এ সময় তিনি বলেন, মেয়েদের জন্য প্রোগ্রামিং এর প্রয়োজনীয়তা ও গুরুত্ব অনেক। তাই সকল প্রতিবন্ধকতা অতিক্রম করে তাদের এগিয়ে যেতে হবে। এ সময় তিনি দিনাজপুরে আইটি পার্ক করার পরিকল্পনার কথা জানান।

সমাপনী পর্বে আরও উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর আইটি সলিউশনের প্রধান নির্বাহী নাহিদা পারভিন। তিনি আগামীতে এ ধরণের প্রোগ্রামিং ক্যাম্প নিয়মিত আয়োজনের কথা জানান। তার আগে অংশগ্রহণকারীদের ভিডিও কনফারেন্সে শুভেচ্ছা জানান বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের (বিডিওএসএন) সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান।

প্রোগ্রামিং কনটেস্টের জন্য প্রয়োজনীয় ডাইনামিক প্রোগ্রামিং, ডেটা স্ট্রাকচার, গ্রাফ, নম্বর থিউরি, জ্যামিতি, এডহক প্রোগ্রামিং ইত্যাদি বিষয় নিয়ে হাতে কলমে প্রশিক্ষণ এবং প্রোগ্রামিং-এ মেয়েদের আগ্রহী করে তোলার জন্য বিডিওএসএন ও দিনাজপুর আইটি সলিউশন এই ক্যাম্পের আয়োজন করে। ক্যাম্পে দিনাজপুরের বিভিন্ন বিদ্যালয়, পলিটেকনিক ও হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩১ জন মেয়ে অংশগ্রহণ করে। ক্যাম্প পরিচালনা করেন হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের শিক্ষার্থী শরীফ চৌধুরী, খাইরুল আলম রোফি এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও বিডিওএসএনের কর্মসূচী সমন্বয়ক  আল – রাব্বি।

উল্লেখ্য যে, মেয়েদের মধ্যে প্রোগ্রামিং-কে জনপ্রিয় করা ও তাদের প্রোগ্রামিং দক্ষতার উন্নয়নে বিডিওএসএন তাদের #মিসিংডটার কার্যক্রমের আওতায় দেশের বিভিন্ন স্থানে মেয়েদের জন্য এ প্রোগ্রামিং ক্যাম্পের আয়োজন করছে। ৯ আগস্ট ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলায় আয়োজিত অপর একটি ক্যাম্পের সমাপনী হবে।

 

 

 

 

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.