আগামী দুই বছরের মধ্যে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সরকারি মোবাইল অপারেটর টেলিটকের নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। আর এজন্য নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ এবং গ্রাহক সেবা উন্নত করতে রাষ্ট্রায়াত্ত্ব মোবাইল ফোন অপারেটর টেলিটকে প্রায় সাড়ে চার হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর গুলশানে টেলিটকের নতুন কাস্টমার কেয়ার সেন্টার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী নতুন এ বিনিয়োগ পরিকল্পনার কথা জানান। এ সময় তিনি বলেন,নতুন অর্থায়নের মূল লক্ষ্য নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ ও লোকবল বৃদ্ধির মাধ্যমে টেলিটককে প্রতিযোগিতায় সক্ষম করে তোলা। এর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে নেটওয়ার্ক। কারণ গ্রামগঞ্জে নেটওয়ার্ক না পেলে গ্রাহকরা বাধ্য হয়ে অন্য অপারেটরে চলে যাবে।তারানা হালিম বলেন,এই অর্থায়ন যখন শুরু হবে তখন প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত নিরবচ্ছিন্ন নেটওয়ার্ক নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। জনবলের যে সঙ্কট রয়েছে সেটাও দূর করা যাবে। কিছুদিন আগে টেলিটকের দুই বছর মেয়াদী অ্যাকশন প্ল্যান তুলে ধরতে গিয়ে তিনি বলেন,এই সময়ের মধ্যে কোম্পানিটি স্বনির্ভর হয়ে দাঁড়াবে।
সম্প্রতি একনেকে ৬১০ কোটি টাকার একটি প্রকল্প টেলিটকের জন্যে অনুমোদন করা হয়েছে। এর বাইরে নিজস্ব অর্থয়নে ৭০০ কোটি টাকার একটি প্রকল্প শুরু হয়েছে। আরেকটি তিন হাজার কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। সেটি অনুমোদিত হলে ইউনিয়ন,গ্রাম পর্যায়েও থ্রিজি সেবা যাবে।
গ্রাহকদের টেলিটক সিম ব্যবহারের আগ্রহ রয়েছে জানিয়ে তারানা হালিম বলেন,২০১৮ এর মধ্যে নেটওয়ার্কের পরিকল্পনা সম্পূর্ণভাবে বাস্তবায়ন করা গেলে টেলিটক খুব শক্তভাবে বাজারে প্রতিযোগিতা করতে পারবে।
সদ্য প্রণীত পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০১৭ সালের জানুয়ারির মধ্যে ২০টি গ্রাহক সেবা কেন্দ্র চালুর পরিকল্পনা নিয়েছে টেলিটক। সে হিসেবে প্রতি মাসে তিনটি করে সেবা কেন্দ্র চালু করতে হবে। আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হয়েছে বলে টেলিটকের কর্মকর্তারা জানান।
অনুষ্ঠানে দুটি ডেটা কার্ড সেবারও উদ্বোধন করেন প্রতিমন্ত্রী। এগুলো হলো- ৯ টাকায় ৫০ এমবি, ১৯ টাকায় ১২৫ এমবি। এছাড়া ফেইসবুকের এক ফলোয়ারের অব্যাহত অনুরোধে সাড়া দিয়ে চলতি ঈদেই ৫০ টাকায় এক জিবি ইন্টারনেট একমাসের মেয়াদসহ চালুর জন্য টেলিটক কর্মকর্তাদের পরামর্শ দেন প্রতিমন্ত্রী।

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.