প্রতিনিয়ত আপনার ইনবক্সে এসে জমা হচ্ছে প্রচুর ই-মেইল। আপনি কি ভেবে দেখেছেন আপনার এই মূল্যবান ই-মেইলগুলো কতখানি নিরাপদ? হ্যাকারদের দৌরাত্যের কারণে ই-মেইলের ব্যাকআপ নেওয়া অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়েছে। কারণ যেকোন সময় সামান্য ভুলের কারণে বেহাত হয়ে যেতে পারে আপনার গুরুত্বপূর্ণ ই-মেইলগুলো।

 

জিমেইল ব্যবহারকারীদের জন্য বিভিন্ন ব্যাকআপ সার্ভিস নিয়ে আলোচনা করব এই পোস্টে।

কেন ব্যাকআপ নিবেন?

১.হ্যাক হয়ে যাওয়া ই-মেইল একাউন্টে থাকা গুরুত্বপূর্ণ ই-মেইলগুলো সহজে একসেস করতে পারবেন।

২. ভুলক্রমে ডিলিট হয়ে যাওয়া ই-মেইল ব্যাকআপ থাকলে সহজে রিট্রাইভ করতে পারবেন।

৩. স্লো ইন্টারনেট কানেকশন যাদের তারা প্রথমে ব্যাকআপ নিয়ে পড়ে সেগুলো পড়তে পারেন।

জিমেইল ব্যবহারকারীদের জন্য ব্যাকআপ নেওয়ার বেশ কয়েকটি পদ্ধতি আছে। সবচেয়ে ভালো পদ্ধতি হল ই-মেইল ফরওয়ার্ডিং। বিভিন্ন ব্যাকআপ প্রোগ্রামও ব্যবহার করতে পারেন।

#পদ্ধতি ১- ই-মেইল ফরওয়ার্ডিং

 

জিমেইলে লগিন করে সেটিংস থেকে Forwarding and POP/IMAP  ক্লিক করুন। এরপর Add a forwarding address  এ আপনার কাঙ্খিত ই-মেইলটি দিন। মূলত এই ই-মেইলেই ফরওয়ার্ড হবে জিমেইলে আসা ই-মেইলগুলি। ফরওয়ার্ডকৃত ই-মেইলে একটি কোড যাবে সেটি পূর্বের Forwarding and POP/IMAP এ গিয়ে পেস্ট করে দিয়ে ভেরিফাইতে ক্লিক করুন। ই-মেইল ফরওয়ার্ডিং করার সুবিধা হল একটি মেইলের কপি দুইটি ই-মেইল অ্যাড্রেসে চলে যাবে। একটি ই-মেইল অ্যাড্রেস এর একসেস না থাকলে অন্য ই-মেইল অ্যাড্রেসে ফরওয়ার্ডকৃত ই-মেইলগুলো পাওয়া যাবে।

#পদ্ধতি ২- অনলাইন টুলের ব্যবহার

 

Backupify একটি জনপ্রিয় অনলাইন সার্ভিস। শুধুমাত্র জিমেইল নয়, এটি অন্যান্য ই-মেইল সার্ভিস প্রোভাইডারদের জন্যেও ব্যাকআপ সার্ভিস দিয়ে থাকে। তুলনামূলক অনেক নিরাপদ এদের ব্যাকআপ সার্ভিস। ব্যাকআপ নেওয়া অনেক সহজ,বাড়তি ঝামেলার প্রয়োজন হয় না। সাইটটি ফ্রি এবং প্রিমিয়াম উভয় সার্ভিস প্রদান করে। সাইটটিতে গিয়ে একাউন্ট খুলে এখনই ব্যাকআপ নেওয়া শুরু করে দিন।

#পদ্ধতি ২- জিমেইল ব্যাকআপ টুল

জিমেইল ব্যাকআপ টুল একটি ব্যাকআপ সফটওয়্যার। অনেক ফ্লেক্সিবল এই সফটওয়্যারটির মাধ্যমে অনেক সহজেই ব্যাকআপ নিতে পারেন আপনার ই-মেইলের। টুলটি দিয়ে সম্ভবত অ্যাটাচমেন্টও লোকাল ফোল্ডারে ডাউনলোড করে রাখা যায়। ব্যবহার করে দেখতে পারেন চমৎকার এই টুলটি

আপনি এখন পর্যন্ত কোনো ব্যাকআপ সার্ভিস ব্যবহার করছেন কিনা অবশ্যই আমাদেরকে জানাবেন। সবাইকে ধন্যবাদ… 🙂

comments

1 COMMENT

  1. vaia amer email ID open hocce na.sequrety qustion ans dite bolce,ami vule geci ans ta ki?akon amer email ID ki babe open korbo??????

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.