প্রযুক্তি দ্বারা সম্ভব না এমন বিষয় ইদানীং কমতে কমতে বিলুপ্তির পথে। সে পথকে আরো বিস্তৃত করতে সম্ভাবনার দরজায় কড়া নাড়ছে ‍আরো এক নতুন আবিষ্কার।
কিছুদিন আগে “গুগল প্ল্যানেট” নামে নতুন একটি নিউরাল নেটওয়ার্কের প্রকাশ ঘটে যা কিনা যেকোন ছবির সঠিক স্খান চিহ্নিত করতে সক্ষম। অন্যান্য ইমেজ লোকেশন সফটওয়্যারের থেকে এটির মূল পার্থক্য হল এটি ছবিতে নতুন কোন জায়গার সন্ধান পেলে সেটা শিখে নেয় তখনই।
“প্ল্যানেট নিখুঁত নয়। এই নেটওয়ার্কটি এখন পর্যন্ত সড়ক পর্যায়ে ৩.৬ শতাংশ এবং নগর পর্যায়ে ১০.১ শতাংশ নির্ভুল ফলাফল দেয়।” প্রোজেক্টটির প্রধান তোবিয়াস উইয়ান্ড জানান।

images
এখনও এটির পরীক্ষামূলক ব্যবহার চলছে। জিওগেসার নামে একটি ওয়েবসাইট ব্যবহার করে বিশ্বের দশজন শীর্ষ অভিযাত্রীর উপস্থিতিতে প্ল্যানেট পরীক্ষিত হয় এবং ৫০ টি পর্বের মধ্যে ২৮ টি পর্বে এটি সঠিক ফলাফল দেয়।
“প্ল্যানেট নি:সন্দেহে মানবজাতির জন্য অত্যন্ত উপকারী কেননা এটি এতো বিপুল সংখ্যক জায়গার সন্ধান জানে যেখানে মানুষ এখনো পৌঁছাতে পারেনি।” উইয়ান্ড প্ল্যানেটের সবচেয়ে বড় সম্ভাবনার কথা জানিয়ে বলেন, “ অদূর ভবিষ্যতে প্ল্যানেট থাকবে প্রত্যেকের পকেটে। এটি ব্যবহার করতে মাত্র ৩৭৭ মেগাবাইট প্রয়োজন হয় তাই স্মার্টফোনের মেমরিতে সহজেই জায়গা করে নেবে এটি।”

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.