..আজ ১২ই মার্চ শনিবার সকাল ১১:৩০ মিনিটে বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সাধারন সম্পাদক, তথ্য প্রযুক্তিবিদ জনাব মুনির হাসান, বেসিস মিলনায়তনে, সিসটেক পাবলিকেশন্সের বই ও তথ্য প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট সেবাসমূহ পাবার জন্য তৈরিকৃত ওয়েব পোর্টাল িি.িংুংঃবপযঢ়ঁনষরপধঃরড়হং.পড়স.নফ এর উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনীল প্রকাশক সমিতির সহ-সভাপতি এবং অন্যপ্রকাশের প্রধান নির্বাহী জনাব মাজহারুল ইসলাম। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সিসটেক ডিজিটালের প্রধান নির্বাহী এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশান অব সফটওয়্যার এন্ড সার্ভিসেস (বেসিস) এর সহ-সভাপতি জনাব এম রাশিদুল হাসান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সিসটেক পাবলিকেশন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিসটেক ডিজিটালের লিমিটেড এর চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় আইসিটি লেখক, উচ্চমাধ্যমিক আইসিটি বইয়ের প্রণেতা জনাব মাহবুুবুর রহমান।

তথ্য প্রযুক্তিবিদ ও বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সাধারণ সম্পাদক জনাব মুনীর হাসান বলেন  “প্রকৃতপক্ষে সিসটেক বাংলা ভাষায় কমপিউটার শিক্ষার এক নীরব বিপ্লবের সূচনা করেছিল নব্বইয়ের দশকে। আজ বাংলাদেশে, একেবারে অজ পাড়াগাঁয়ের থেকে উঠে আসা এমন অসংখ্য মধ্যবয়স্ক কমপিউটার প্রফেশনাল পাওয়া যাবে, যারা আজাকের প্রজন্মেকে আইসিটি ক্ষেত্রে বলিষ্ঠভাবে প্রয়োজনীয় নেতৃত্ব দিতে পারলেও, এই সমস্ত তথ্য প্রযুক্তি পেশাজীবিদের কাছে এক সময় কমপিউটার শেখার জন্য একমাত্র যে মাধ্যমটি ছিলো, সেটি হলো সিসটেক পাবলিকেশন্সের বাংলায় লেখা কমপিউটার বিষয়ক বইগুলো। প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত, প্রায় ২১ বছর যাবৎ সিসটেক যে হাজারো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে, বাংলাদেশের তৃণমূলে নীরবে তথ্য প্রযুক্তির বই ও আরও নানান সেবা দিয়ে যাচ্ছে আমার কাছে তা বিস্ময়কর এবং ব্যাপক অনুপ্রেরণামুলক। আজ এখানে, সিসটেক পাবলিকেশন্সের যে ওয়েব পোর্টালটি আমি উদ্বোধন করলাম, আমার দৃঢ় বিশ্বাস এটি ডিজিটাল বাংলাদেশেকে তার স্বপ্ন পূরণের পথ অনেকগুলো ধাপ এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে।”

বিশেষ অতিথির ভাষণে বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনীল প্রকাশক সমিতির সহ-সভাপতি এবং অন্যপ্রকাশের প্রধান নির্বাহী জনাব মাজহারুল ইসলাম বলেন “তথ্য প্রযুক্তির বইগুলোকে অনলাইনের মাধ্যমে এবং ই-বুক আকারে দেশের সর্বত্র ছড়িয়ে দেবার এই প্রয়াসটি দেশের মানুষকে আবার বই কেনার জন্য উৎসাহিত করবে। বর্তমানের তরুণ প্রজন্ম অনেক বেশী প্রযুক্তি নির্ভর হয়ে পড়ায় কাগজে ছাপানো বইয়ের তুলনায় ই-বুক ফরমেটের বই ব্যবহারে অনেক বেশী স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করে। প্রকাশনা শিল্পের অনেকে এই বিষয়টিকে নেতিবাচক ভাবে নিলেও আমি প্রযুক্তি নির্ভর বইয়ের এই নতুন ফরমেটের বাজারটি সম্পর্কে বেশ আশাবাদী। ওয়েব পোর্টালের ফ্রি ই-বুক বিতরণের মাধ্যমে বরং প্রকারান্তরে  ছাপার বইয়ের প্রতি পাঠকের আগ্রহ ফিরিয়ে আনা সম্ভব। সিসটেক পাবলিকেশন্সের এই মহতী উদ্যোগের জন্য প্রতিষ্ঠানটির প্রতি আমার  শুভ কামনা রইল।”

সিসটেক ডিজিটালর প্রধান নির্বাহী এবং বেসিস এর সহ সভাপতি জনাব এম রাশিদুল ইসলাম তাঁর বক্তব্যে বলেন “বাংলাদেশের প্রযুক্তিপ্রেমী জনগোষ্ঠীর কাছে দীর্ঘসময় ধরে সিসটেক অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি নাম হিসেবে প্রায় ব্রান্ড পর্যায়ের খ্যাতি অর্জন করেছে। দেশে যখনই তথ্য প্রযুক্তির যে কোন নতুন বিষয়ের আগমন ঘটেছে সিসটেক সর্বাগ্রে তা দেশের তৃণমল পর্যায়ের জনগোষ্ঠীর কাছে পৌঁছে দেবার ব্যবস্থা করেছে। সিসটেকের বই, মাল্টিমিডিয়া সিডি, বিভিন্ন সময়ে ডেভলপ করা নানা রিসোর্স ওয়েব সাইট, সফটওয়্যার প্রভৃতি বিভিন্ন মাধ্যমে দেশের আপামর জনগোষ্ঠীকে প্রযুক্তির যে কোন নতুন বিষয় সম্পর্কে পরিচিত করবার এই অন্যন্য প্রয়াসের কারণে সিসটেক বহুবার দেশে ও বিদেশে ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়েছে। ওয়েব সাইটের মাধ্যমে সিসটেকের এই তথ্য প্রযুক্তি সেবা দেশের আরও বেশী জনগোষ্ঠীকে আমাদের কার্যক্রমের সুফল পেতে সহায়তা করবে।

অনুষ্ঠানের সভাপতি সিসটেক পাব্লিকেশন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেডের চেয়্যারম্যান জনাব মাহবুবুর রহমান সভাপতির ভাষণে বলেন “সিসটেক পাবলিকেশন্স তার জন্মলগ্ন থেকেই এদেশের সাধারণ জনগোষ্ঠীর নিকট মাতৃভাষায় সহজ, সরল ও তাদের বোধগম্য করে কমপিাউটার ও প্রযুক্তির বিভিন্ন বিষয়গুলো শেখানোর উদ্দেশ্যে প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন্ বই, মাল্টিমিডিয়া কন্টেন্ট, প্রিন্ট ও ডিজিটাল মাধ্যম পত্রিকা ও প্রোগ্রাম, ওয়েব সাইটে নানা শিক্ষামুলক রিসোর্স বিনামূল্যে প্রভৃতি একের পর এক অসংখ্য উদ্যোগ নিয়ে গেছে।  কেবল ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য সিদ্ধি নয়, সিসটেকের জন্য এটি ছিল দেশের মানুষকে সেবা করারও একটি বিষয় বলে আমি মনে করি। সিসটেক একুশ বছর যাবৎ সর্বদাই মনে রাখার চেষ্টা করেছে যে প্রতিষ্ঠানটির উপর দেশে তথ্য প্রযুক্তি সচেতন জনগোষ্ঠী তৈরির এক অলিখিত দায়িত্ব রয়েছে, যা সাধ্যমতো সততার সাথে পালন করতে হবে। সিসটেক যেন সর্বদাই বাংলাদেশের সাধারন মানুষের জন্য সেবা মনোভাব বজায় রেখে তার কার্যক্রম চালাতে পারে সেজন্য আপনাদের সহযোগীতা প্রত্যাশা করি।”

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সিসটেকের যুক্তরাষ্ট্র প্রতিনিধি মোহাম্মদ উল্লাহ সুমন।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন ও সিটেকের ওয়েব পোর্টালটির অতিথিদের সামনে উপস্থাপনা করেন সিসটেক পাবলিকেশন্সের এডিটর ও মাল্টিমিডিয়া ডেভলপার রাজিব আহমেদ।

মুনিরুল হাসান
মিডিয়া এক্সিকিউটিভ

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.