বিশ্বব্যাপি কিছু স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭ বিস্ফোরণ হওয়ার পর স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স-এর পক্ষ থেকে হ্যান্ডসেটটি ফেরতের ঘোষণায় যুক্তরাষ্ট্রের গ্রাহকদের স্যামসাং হ্যান্ডসেট কেনার আগ্রহ কমেনি। রোববার রয়াটার্স/আইপিএসওএস এর প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়।২৬ অক্টোবর থেকে ৯ নভেম্বর পর্যন্ত পরিচালিত জরিপে দেখা যায়, স্যামসাং হ্যান্ডসেট-এর বর্তমান গ্রাহকরা আগে অ্যাপল-এর আইফোন হ্যান্ডসেট ব্যবহার করতেন। এতে আরও দেখা যায় যে, নোট ৭ ফেরতের ঘোষণা সম্পর্কে জ্ঞাত ও অজ্ঞাত উভয় গ্রাহকরা স্যামসাং-এর হ্যান্ডসেট সম্পর্কে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

এ বছর বিশ্বব্যাপি কয়েকটি স্থানে স্যামসাং নোট ৭ বিস্ফোরণ হওয়ার পর স্যামসাং-এর সুনামে কিছুটা ভাটা পড়লেও তা খুব শিঘ্রই ফেরতের ঘোষণা দেয়। ইভেস্টরদের ধারণা ছিলো নোট ৭ এর ঘটনার পর গ্রাহকরা অন্য ব্র্যান্ডের প্রতি আকৃষ্ট হবে যার মধ্যে অ্যাপল-এর আইফোন ৭ অন্যতম।জরিপে দেখা যায়, ফোন ফেরতের ঘোষণার পরও স্মার্টফোন কেনার ক্ষেত্রে ২৭% গ্রাহকের প্রথম পছন্দ স্যামসাং। যারা ফোন ফেরতের ঘোষণা সম্পর্কে অবগত নন তাদের মধ্যেও ২৫% এর প্রথম পছন্দ স্যামসাং হ্যান্ডসেট।

জরিপে আরও দেখা যায় যে, স্যামসাং এর গ্রাহকরা প্রচ-ভাবে স্যামসাং ব্র্যান্ডকে ভালোবাসেন। বর্তমান স্যামসাং ব্যবহারকারী গ্রাহকদের মধ্যে প্রায় ৯১% গ্রাহক স্যামসাং-এর অন্য স্মার্টফোন কিনতে আগ্রহী এবং ৯২% বর্তমান ব্যবহারকারী স্যামসাং-এর অন্য পণ্য কিনতে আগ্রহী।এটি অ্যাপল-এর পণ্যসমূহ ব্যবহারকারী বর্তমান গ্রাহকদের সমান যা, ৯২% গ্রাহক অন্য আইফোন কিনতে আগ্রহী এবং ৮৯% গ্রাহক অ্যাপলের অন্য পণ্য কিনতে আগ্রহী।

তবে স্যামসাং-এর নোট ৭ ফেরতের ঘোষণা কতজন গ্রাহকের মনকে নাড়া দিতে পেরেছে তা নিশ্চিতভাবেই অষ্পষ্ট। কতজন মানুষ স্যামসাং-এর স্মার্টফোন কিনতে আগ্রহী ছিলেন তা রয়াটার্স/আইপিএসওএস-এর জরিপে জানা যায় কিন্তু স্মার্টফোন ফেরতে ঘোষণা কতজনের সিদ্ধান্তকে সরাসরি প্রভাবিত করতে পেরেছিল তা বোঝা যায় না।জ্যাকডো রিসার্চের জ্যান ডোসন বলেন, ফেরতের ঘোষণাটি শুধুমাত্র আর্লি অ্যাডাপ্টর বা যারা পণ্যটি বাজারে আসার সাথে সাথেই কিনেছেন তাদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিলো, যার ফলে গ্রাহকদের নেতিবাচক অভিজ্ঞতা হ্রাস পায়।

ডোসন আরও বলেন, “লোকে যা বলে বা আপনি যা পড়বেন তার চেয়ে আপনার নিজের অভিজ্ঞতাই অধিক গুরুত্বপূর্ণ”।

স্যামসাং-এর পক্ষ থেকে বলা হয় যে, বিস্তারিত বর্ণনা ছাড়াই বেশিরভাগ গ্রাহক স্যামসাং নোট ৭ বদলে অন্য হ্যান্ডসেট নেওয়ার আগ্রহ দেখিয়েছেন। ৪ নভেম্বর পর্যন্ত স্যামসাং এর ফেরত ঘোষণা থাকাকালীন সময়ে প্রায় ৮৫% গ্রাহক নোট ৭ বদল বা ফেরত নিয়েছেন।

একটি বিবৃতিতে স্যামসাং জানায়, “স্যামসাং এখন গ্রাহকদের নিরাপত্তা এবং সমস্যার মূল কারণ বোঝার প্রতি গুরুত্ব দিয়েছে”।রয়াটার্স/আইপিএসওএস- ৫০টি স্টেটে ইংরেজিতে অনলাইন জরিপ চালায়। এতে ২,৩৭৫ জন স্যামসাং ব্যবহারকারী এবং ৩,১৫৮ জন আইফোন ব্যবহারকারী অংশগ্রহণ করেন। জরিপটির গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে ২% ।

 

 

 

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.