ওয়াই৬ প্রো মডেলের স্মার্টফোন দেশে বাজারজাত শুরু করেছে হুয়াওয়ে। একবার চার্জে দীর্ঘক্ষণ মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে হয়েছে হ্যান্ডসেটটি।ওয়াই৬ প্রো-এর ফ্ল্যাগশীপ ফিচারগুলোর মধ্যে প্রথমেই আসে ৪০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারির কথা। পাওয়ার সেভিং ৩.০ প্রযুক্তি থাকায় দীর্ঘ সময় ব্যবহার করা যায় হ্যান্ডসেটটি। দ্বিতীয়ত, গতানুগতিক স্মার্টফোনগুলোর তুলনায় দুইগুণ বেশি দ্রুত চার্জ হয় ওয়াই৬ প্রো-তে। আর সর্বশেষ ফ্ল্যাগশীপ ফিচার হচ্ছে রিজার্ভ চার্জিং। ফোনটিকে ব্যবহার করা যাবে বহনযোগ্য চার্জার হিসেবে। অন্য কোনো ডিভাইস সহজেই চার্জ দেয়া যাবে ওটিজি প্রযুক্তি ব্যবহার করে।

স্বল্প বাজেটের হুয়াওয়ে ওয়াই৬ প্রো-তে আছে পোর্টেবল বা বহনযোগ্য চার্জার, এফ২.২ অ্যাপার্চার ও ওয়াইড অ্যাঙ্গেল রেঞ্জ প্রযুক্তি সম্বলিত ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও পাঁচ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। এছাড়া ব্যাকলিক মুড প্রযুক্তি ব্যবহার করে ছবি অনেক বেশি মানসম্মত করে ফেলা যায়। আরো আছে হাই স্পিড ক্যাপচার মুড, আল্ট্রা ফাস্ট ¯œ্যাপশট, অটোফেস ডিটেকশন এবং ছবি সম্পাদনাকারী সফটওয়্যার।

৫.১ ললিপপ অপারেটিং সিস্টেমে চালিত হুয়াওয়ে ওয়াই৬ প্রো-তে দ্রুততার সঙ্গে মাল্টিটাস্কিং করতে আছে দুই গিগাবাইট র‌্যাম এবং ১৬ গিগাবাইট রম। থিম ও অন্যান্য অ্যাপ ফিচার কাস্টমাইজ করতে আছে হুয়াওয়ে ইএমইউআই ৩.১ লাইট।
ফিচারসমৃদ্ধ হওয়ার পাশাপাশি হুয়াওয়ে ওয়াই৬ প্রো-এর ডিজাইন খুবই চমৎকার। দৃষ্টিনন্দন মেটাল কোটিং বডির হ্যান্টসেটটি মাত্র ৮.৫ মিলিমিটার পুরুত্ব।

পাঁচ ইঞ্চির এইচডি স্ক্রিণসমৃদ্ধ ওয়াই৬ প্রো-এর ব্যাক সাইড বা পেছনের দিকে ব্যবহার করা হয়েছে আর্গোনোমিক ওয়াটার-কার্ভড বা বাঁকানো প্রযুক্তিতে। প্রায় পাঁচ হাজার ভিন্ন ভিন্ন পদ্ধতি টানা পাঁচদিন ব্যবহার করে আর্গোনোমিক ওয়াটার-কার্ভড নকশা তৈরি করা হয়েয়ে যা দিনের আলো এবং ছায়াতে ভিন্ন সৌন্দর্য ধারণ করে।

গত এক দশকে হুয়াওয়ে রিসার্চ এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (আরএ্যান্ডডি) খাতে বিনিয়োগ করেছে ৩০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশি যাতে করে চাহিদা অনুযায়ী স্মার্টফোনের ব্যবহার অনেক বেশি কার্যকর এবং উপযোগি করা যায়। আরএ্যান্ডডিতে প্রায় ৫০বার ওয়াই৬ প্রো-এর কার্যক্ষমতা ও নিরাপত্তা পরীক্ষা করা হয়েছে যাতে স্মার্টফোন থেকে গ্রাহকদের চাহিদা পূরণ করা যায়। পরীক্ষার ফলাফল থেকে বের হয়েছে ব্যবহারের তিন বছর পরও ওয়াই৬ প্রো-এর ব্যাটারি ৮০ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।

হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের ডিরেক্টর অব ডিভাইস বিজনেস ইংমার ওয়্যাং বলেন, ‘‘স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে গ্রাহকদের চাহিদা পূরণে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ হুয়াওয়ে বর্তমানে বিশ্বে দ্রুতগতিতে বিকাশমান একটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্র্যান্ড। গবেষণা ও উন্নয়নে আমরা প্রচুর অর্থ বিনিয়োগ করি আর তার ফলাফলস্বরুপ আমরা অর্জন করেছি গ্রাহকদের ভালোবাসা ও স্মার্টফোন তৈরিতে বিশ্বে অগ্রগামী এবং শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিজেদেরকে প্রমাণ করা। এই ধারাবাহিকতায় আমরা তৈরি করেছি হুয়াওয়ে ওয়াই৬ প্রো যা দীর্ঘ সময় ধরে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের জন্য উপযুক্ত। হ্যান্ডসেটটির শক্তিশালী ব্যাটারি অতিমাত্রায় স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের চাহিদা পূরণে সক্ষম হবে বলে আমি মনে করি।’’

দেশের বাজারে ওয়াই৬ প্রো পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ১৫,৯৯০ টাকা। সঙ্গে থাকছে এক বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা। রাজধানীর বসুন্ধরা সিটি ও যমুনা ফিউচার পার্কছাড়াও সারাদেশে হুয়াওয়ের ব্র্যান্ডশপগুলো ছাড়াও স্থানীয় মোবাইলফোনের দোকানে পাওয়া যাবে হুয়াওয়ের ওয়াই সিরিজের আধুনিক এ হ্যান্ডসেটটি।

.

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.