২০১৫ সালের কম দামি স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে কুলপ্যাডের ‘নোট ৩’ ছিল অন্যতম। এ বছর এলো একই হ্যান্ডসেটের আরেকটি সংস্করণ, ‘কুলপ্যাড নোট ৩ প্লাস’।

ভারতের বাজারে সেটটির দাম রাখা হয়েছে আট হাজার ৯৯৯ রুপি। ধারণা করা হচ্ছে, কিছুদিনের মধ্যেই হ্যান্ডসেটটি দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশেও ছাড়া হবে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির অনলাইন সংস্করণে এ খবর জানানো হয়েছে।

দাম কম হলেও ফিচারের দিক থেকে একদমই পিছিয়ে নেই নতুন হ্যান্ডসেটটি। এতে রয়েছে ফুল এইচডি (১০৮০ x ১৯২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে, যা এর আগের সংস্করণে ছিল এইচডি (৭২০ x ১২৮০ পিক্সেল)।

বলে রাখা ভালো, কুলপ্যাড নোট ৩-এর আগের সংস্করণটি বাজারে এসেছিল ২০১৫ সালের অক্টোবরে এবং ওই হ্যান্ডসেটটিরও দাম রাখা হয়েছিল আট হাজার ৯৯৯ রুপি। পরে তা কমে দাঁড়ায় আট হাজার ৪৯৯ রুপিতে।

এ ছাড়া এই বছরের জানুয়ারিতে ‘কুলপ্যাড নোট ৩ লাইট’ নামে আরেকটি সংস্করণও এসেছিল এই স্মার্টফোনের।

‘কুলপ্যাড নোট ৩ প্লাস’ স্মার্টফোনটি চলবে ৫ দশমিক ১ ললিপপ অপারেটিং সিস্টেমে। ৫ দশমিক ৫ ইঞ্চি ফুল এইচডি আইপিএস ডিসপ্লের সঙ্গে আছে ১ দশমিক ৩ গিগাহার্টজের অক্টা-কোর মিডিয়াটেক ৬৭৫৩ এসওসি প্রসেসর। আরো আছে ৩ জিবি র‍্যাম।

দুটি মাইক্রো সিমের সাপোর্ট ছাড়াও নতুন এই স্মার্টফোনে আরো রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা এবং ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। আছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও।

কুলপ্যাডের নতুন নোট ৩ প্লাস সেটে রয়েছে ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে তা ৬৪ জিবি পর্যন্ত বাড়িয়ে নেওয়া যাবে। রয়েছে ৩০০০ এমএএইচের শক্তিশালী ব্যাটারি।

কানেক্টিভিটি অপশনের জন্য কুলপ্যাড নোট ৩-এ রয়েছে ওয়াই-ফাই, জিপিএস, ব্লুটুথ, এফএম রেডিও, থ্রিজি এবং ফোরজি। এ ছাড়া প্রক্সিমিটি, অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট, এক্সেলেরোমিটার এবং গ্রাইস্কোপের মতো সেন্সরও রয়েছে হ্যান্ডসেটটিতে।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.