অ্যালান টুরিং- কম্পিউটার বিজ্ঞানের জনক

অ্যালান টুরিং একজন ব্রিটিশ গণিতবিদ যাকে কম্পিউটার বিজ্ঞানের জনক বলা হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ে তিনি নাৎসি বাহিনীর ক্রিপ্টো কোড ভাংতে সমর্থ হন এবং কুখ্যাত এনিগমা মেশিনে লুকিয়ে রাখা সমস্ত গোপন কোডের পর্দা ফাঁস করতে সমর্থ হন।

তার এই কোড ভাংতে পারার কারণে বিশ্বযুদ্ধে মিত্রবাহিনীর যুদ্ধ জয় অনেকটাই সহজ হয়ে যায় এবং উইনস্টন চার্চিল টুরিংকে বেশ প্রশংসা করেন।

অ্যালান টুরিং
অ্যালান টুরিং

নাৎসি বাহিনীর পরাজয় নিশ্চিত করা ছাড়াও টুরিং নানা ধরণের কাজ করেছেন। তিনি আধুনিক দিনের কম্পিউটার কি রকম হবে তা সম্পর্কে বেশ কিছু নকশা তৈরি করেন। তার আবিষ্কৃত “টুরিং মেশিন”এর সাহায্যে বর্তমানের সকল আধুনিক কম্পিউটার অপারেট করা হয়ে থাকে। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা কিভাবে কাজ করে থাকে তা দেখবার জন্য টুরিং টেস্ট বা টুরিং পরীক্ষা করা হয়ে থাকে।

অ্যালান টুরিং এর কর্মজীবন ও ব্যক্তিজীবন নানা ঘাত প্রতিঘাতের মাধ্যমে শেষ হয় যখন তাকে সমকামী হবার জন্য গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয় এবং হরমোন চিকিৎসার মধ্যে দিয়ে যেতে হয় যাতে তিনি সমলিঙ্গের প্রতি আকর্ষণ কমাতে পারেন। ১৯৫৪ সালের জুনের ৮ তারিখে তার মরদেহ আবিষ্কার করেন একজন পরিচ্ছন্ন কর্মী।

কম্পিউটার বিজ্ঞানে টুরিং এর অবদান অনস্বীকার্য। এই ক্ষেত্রের সবচেয়ে বড় পুরস্কার “দ্য টুরিং অ্যাওয়ার্ড” তার নামে দেয়া হয়। নোবেল প্রাইজ যেমন রসায়ন অথবা ফিল্ডস মেদাল যেমন গণিতের শাখায় দেয়া হয়, ঠিক তেমনি এই অ্যাওয়ার্ড কম্পিউটার বিজ্ঞানের শাখায় বিভিন্ন অবদানের কারণে দেয়া হয়ে থাকে।

সূত্রঃ mnn.com

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here