এটি আমার প্রথম পোস্ট। আশাকরি, আপনাদেরকে এখন থেকে নিয়মিত সুন্দর সুন্দর প্রযুক্তি বিষয়ক পোস্ট উপহার দিতে পারবো।

আজ আমি নিয়ে এলাম ওয়েব ডেভেলপারদের জন্য অতি প্রয়োজনীয় কিছু সফটওয়্যার। যারা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট করেন তাদের জন্য এসব সফটওয়্যার খুবই প্রয়োজনীয় এবং যারা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট নতুন শিখছেন তাদের জন্যও এসব সফটওয়্যার অত্যন্ত প্রয়োজন।

01. Firebug :

Firebug হল Mozilla Firefox এর একটি extension যাতে রয়েছে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট কাজের জন্য অনেক সুবিধা। এতে রয়েছে built-in JavaScript debugger যা ডেভেলপারদেরকে ধাপে ধাপে script লিখা এবং লিখিত script গুলোর ভুল ধরিয়ে দেয়।

#ডাউনলোড লিংক

02. Notepad Plus Plus :

কোডিং অথবা প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ লেখার জন্য নোটপ্যাড প্লাসপ্লাস এর তুলনায় ভাল সফটওয়্যার আর হতে পারেনা। যদিও প্রতিটি উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে এ নোটপ্যাড ডিফল্টভাবেই থাকে কিন্তু নোটপ্যাড প্লাসপ্লাস এ পাবেন এডভান্স অনেক সুবিধা যা একবার ব্যবহার করলেই বুঝতে পারবেন। এছাড়াও নোটপ্যাড প্লাসপ্লাস এর কীবোর্ড শর্টকাট ব্যবহার করে অত্যন্ত দ্রুত যেকোনো কাজ করতে পারবেন। যারা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট করেন তাদের জন্য এই সফটওয়্যারটি খুবই  প্রয়োজনীয় এবং গুরুত্বপূর্ণ।

#ডাউনলোড লিংক

Pixie: এটি বিভিন্ন কালারের কোড নির্ধারণের জন্য একটি জনপ্রিয় সফটওয়্যার।

যা আপনাকে একটা Color এর HEX, HTML, RGB, CMYK, HSV এর কোড গুলো দেখাবে।ওয়েবসাইট ডিজাইন করার জন্য কালার কোড এর প্রয়োজন অত্যধিক। এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে সহজেই যেকোনো কালারের কালার কোড জানতে পারবেন। আপনি যে একটি ওয়েবসাইটের যে অংশের কালার কোড চান সেই অংশে মাউস পয়েন্টার রাখলেই কাঙ্ক্ষিত কালার কোড পেয়ে যাবেন। সফটওয়্যাটির সাইজ মাত্র ১১ কিলোবাইট।

03. FireFTP :

এটি মজিলা ফায়ারফক্স এর একটা এড-অন,  এফটিপি সফটওয়্যারগুলোর মধ্যে এটা সবচেয়ে সেরা এড-অন।

#ডাউনলোড লিংক

04. Pixie :

এটি বিভিন্ন কালারের কোড নির্ধারণের জন্য একটি জনপ্রিয় সফটওয়্যার। যা আপনাকে একটা Color এর HEX, HTML, RGB, CMYK, HSV এর কোড গুলো দেখাবে। ওয়েবসাইট ডিজাইন করার জন্য কালার কোড এর প্রয়োজন অত্যাধিক। এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে সহজেই যে কোনো কালারের কালার কোড জানতে পারবেন। আপনি যে একটি ওয়েবসাইটের যে অংশের কালার কোড চান সেই অংশে মাউস পয়েন্টার রাখলেই কাঙ্ক্ষিত কালার কোড পেয়ে যাবেন। সফটওয়্যাটির সাইজ মাত্র ১১ কিলোবাইট।

#ডাউনলোড লিংক

05. Intuitive Color Picker :

পছন্দ মত কালার নির্বাচন করার ক্ষেত্রে এটি একটি  খুবই ভাল টুলস। মাউস মুভ করে কালার hue এবং lightness ঠিক করে আপনি আপনার পছন্দের কালার ওয়েবসাইট এ ব্যবহার করতে পারেন।

#ডাউনলোড লিংক

06. CSSTidy :

CSSTidy হল একটি opensourse application CSS কোড কে optimize করে এবং ফাইল সাইজ বহুলাংশে কমিয়ে দেয় ফলশ্রুতিতে website এর স্পীড বৃদ্ধি পায়।

#ডাউনলোড লিংক

07. LastPass :

LastPass এমন একটা সাইট যে সাইট আপনার পাসওয়ার্ড গুলো সংরক্ষণ করে রাখবে এবং ১০০% নিরাপত্তা সহকারে।

#ডাউনলোড লিংক

08. AJAX Animator :

ওয়েব ডিজাইন এর জন্য যেকোনো অ্যানিমেটর তৈরি করতে এই সফটওয়্যার ব্যবহার করতে পারেন। সফটওয়্যার সাইজ মাত্র ৬.৬ মেগাবাইট।

#ডাউনলোড লিংক

-পোস্টটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

সময় পেলে “অপরাধ সংবাদ” থেকে ঘুরে আসতে পারেন।

#ফেইসবুকে আমি

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.