ওয়েব সাইট বা ব্লগ এ কাঙ্খিত পাঠক পেতে আমরা সবাই অনেক মরিয়া হয়ে থাকি। তবে, মারিয়া হলেই তো আর পাঠক পাবোনা, এর জন্য কঠোর পরিশ্রম করতে হবে। নিয়মিত লিখতে হবে, এসইও করতে হবে এবং আরো নানান কিছু। তবে আপনার পাঠক কে সুযোগ করে দিলে তারাও আপনার জন্য সহযোগীতা করতে পারবে এসইও-তে। ভাবসেন কিভাবে? আজকের পোষ্টটি যে বিষয় নিয়ে ঠিক সেটি দিয়েই। পাঠককে আপনার লিখা বিভিন্ন নেটওয়ার্কে শেয়ার করার সুয়োগ করে দিন, তাহলেই বুঝবেন। এই ব্যাপারটি অনেকেই জানেন আবার অনেকেই জানেন না। জানুন আর না জানুন একবার চোখ বুলায় নিন, হয়তো নতুন কিছু পেতেও পারেন। তো চলুন পরিচিত হয়ে নিই শীর্ষ ৫টি সোসাল বুকমার্কিং গেটেট এর সাথে।

bookmarking_sharing

এ্যাডটুএ্যানি:

জানা মতে এ্যাডটু্এ্যানি অনলাইন জগতের সবচেয়ে বহুল ব্যবহৃত বুকমার্কিং গেজেট। অনেক শীর্ষ এবং জনপ্রিয় ওয়েব সাইট ও ব্লগ এ এ্যাডটু্এ্যানি এর দেখা মিলে। বুকমার্কিং গেজেট এর পাশাপাশি এতে সাবসক্রিপশন গেজেটের মাধ্যমে আরএসএস এবং ফেসবুক, টুইটার, ডিগ সাগ আরো অন্যানো বুকমার্কিং সাইট এর সাথে সংযুক্ত হবার সুবিধা রয়েছে।
ওয়েব সাইট : http://www.addtoany.com/

এ্যাডটুসোসাল:

এ্যাডটুসোসাল, বুকমার্কিং টুল হিসাবে তেমন পরিচিত না। অন্যান্য বুকমার্কিং সাইচের চেয়ে এর একটি বড় সুবিধা হচ্ছে। এতে শীর্ষ এবং জনপ্রিয় নেটওয়ার্কের সাইট গুলোই আছে। এর থেকে আপনি বুঝতে পারবেন কোথায় বুকমার্ক করলে আপনি সবচেয়ে বেশি পাঠক পেতে পারেন।
ওয়েব সাইট: http://www.addtosocial.com/

অনলিওয়্যার:

অনলি ওয়্যার এক ক্লিকের মাধ্যমে লিস্টকৃত সাইটে আপনাকে কন্টেন্ট বা সাইটকে বুকমার্ক করার জন্য সুবিধা দিবে। এছাড়াও ফায়্যারফক্স, ইন্টারেনেট এক্সপ্লোরার এবং গুগল ক্রোম এর ওক্সটেনশন সুবিধার মাধ্যেমেও আপনি এর দ্বারা বুকমার্ক করাতে পারবেন।
ওয়েব সাইট: http://www.onlywire.com/

এ্যাডদিস:

এ্যাডদিস নিয়ে নতুন করে বেশি কিছু বলার নেই। কারন এর ব্যবহার আমরা অনেকেই জানি। এটি সবচেয়ে বেশি বুকমার্কিং সাইট সম্বলিত একটি গেজেট। বুকমার্কিং এর পামাপাশি এটি থেকে আপনি সরাসরি প্রিন্ট, পিডিএফ এবং ই-মেইল করতে পারবেন।
ওয়েব সাইট: http://www.addthis.com/

শেয়ারদিস:

এ্যাডদিস এর মত এতেও অগনিত সাইট পাবেন বুকমার্কিং এর জন্য। কোন পোস্টটি কতবার কোথায় শেয়ার ও মেইল করা হয়েছে তা-ও এখানে সরাসরি দেখতে পারবেন।
ওয়েব সাইট: http://www.sharethis.com/

এবার বুকমার্কিং টুলস যুক্ত করে পাঠককে সুয়োগ করে দিন আপনার লিখাকে অন্যের সামনে তুলে ধরতে। আর আপনি বসে বসে পাঠক গুনুন। 😉

পোষ্ট ভাল লাগলে রেটিং এবং ফেসবুক বন্ধদের জানাতে ভুলবেন না কিন্তু। 🙂

আসছি নুতন টপিক নিয়ে শীঘ্রই।
সবাই ভাল থাকবেন সুস্থ থাকবেন। 🙂

comments

9 কমেন্টস

  1. সকলগুলোই জানা জিনিস, তবুও কষ্ট করে শেয়ার করেছেন এতে নতুনদের কাজে লাগতে পারে… ধন্যবাদ Mate 😆

  2. ফেসবুকে শেয়ার না করে পারলাম না…………………..

  3. অনেক উপকারে আসবে । ধন্যবাদ । Gadget গুলো সম্পর্কে একেবারেই জানতাম না ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.