১০ বছর আগে যখন পিয়ার – টু – পিয়ার ফাইল শেয়ারিং শুরু হয় তখন এটা নানা রকম সীমাবদ্ধতায় আটক ছিল। কিন্তু এখন ইন্টারনেট ট্রাফিকের বেশিরভাগ অংশই ব্যবহার হয় টরেন্ট প্রটোকলের মাধ্যমে। টরেন্ট ক্লায়েন্টগুলো এখন এতটাই এডভান্সড যে, এখন আর তাদের কোন সেন্ট্রালাইজড ট্র্যাকারেরও দরকার হয় না। শুধু তাদেরকে একটা টরেন্ট দিন, তারা নিজেরাই পিয়ার খুজে বের করবে।

transmission_iconজনপ্রিয় টরেন্ট ক্লায়েন্টগুলোর সর্বশেষ একটা ফিচার হচ্ছ রিমোট কন্ট্রোল। চলুন আজ তাহলে দেখা যাক কিভাবে এই রিমোট কন্ট্রোল ফিচারটার যথাযথ ব্যবহার করে মোবাইল টরেন্ট ক্লায়েন্টের মত টরেন্টগুলোকে মোবাইল থেকে নিয়ন্ত্রণ করা যায়। আমি অবশ্যই মোবাইলের পাশাপাশি অন্য পিসি থেকে নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থাটাও দেখাব।

মোবাইল টরেন্ট ক্লায়েন্টের জন্য আপনার যা যা প্রয়োজনঃ

১. যে কোন আধুনিক টরেন্ট ক্লায়েন্ট। যেমন আমার রিকমেন্ডেশন হলঃ

  • উইন্ডোজে uTorrent
  • ম্যাকে Transmission
  • লিনাক্সে Transmission এবং kTorrent

২. ফুল ইন্টারনেট ব্রাউজিং ক্যাপাবিলিটি সহ যে কোন লেটেস্ট মডেলের ফোন।

টরেন্ট ক্লায়েন্টকে কনফিগার করাঃ

উইন্ডোজ – uTorrent

প্রথমে এটা নিশ্চিত করুন যে আপনি uTorrent এর সর্বশেষ ভার্সন ব্যবহার করছেন। আপনি Help -> Check for Updates অপশন থেকে এটা চেক করতে পারেন।

এখন Options -> Preferences মেনুতে যান বা Ctrl-P চাপুন।

utorrent-webguiসাইডবার থেকে Web UI সিলেক্ট করুন। এবার Enable Web UI বক্সে টিক দিয়ে এনাবল করুন। একটা ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ড সেট করুন। ডিফল্ট পোর্টটাকেও পরিবর্তন করে দিতে পারেন। যেমন এখানে 9091 দেয়া হয়েছে।

লোকাল নেটওয়ার্ক থেকে টরেন্ট ক্লায়েন্ট একসেস করার জন্য আপনাকে শুধু আইপি এড্রেসটা তারপর একটা কোলন দিয়ে পোর্ট এবং তারপর /gui/ লিখতে হবে। আপনার আইপি এড্রেসটা বের করার সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে, Start মেনুতে ক্লিক করুন। cmd টাইপ করুন এবং Enter চাপুন। কমান্ড প্রম্পট ওপেন হলে ipconfig টাইপ করুন এবং আবারও Enter প্রেস করুন। এবার IPv4 address লেখা লাইনটা খুজে বের করুন।

windows-viewipএখানে দেখুন আইপি এড্রেসটা হচ্ছে 192.168.0.7 এখন লোকাল নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত যে কোন পিসি বা মোবাইল থেকে uTorrent এর ওয়েব ইন্টারফেস একসেস করার জন্য http://192.168.0.7:9091/gui/ ঠিকানায় যান।

utorrent-fromosx.pngম্যাক –  Transmission

Transmission ইন্সটল করুন এবং ওপেন করুন। এবার মেনু থেকে Preferences এ যান এবং Remote tab সিলেক্ট করুন। Enable Remote Access চেকবক্সে টিক দিয়ে রিমোট একসেস এনাবল করুন। আপনার দেয়া পোর্ট নম্বরটা মনে রাখুন অথবা লিখে রাখুন। ইউজারনেম এবং পাসওয়ার্ডটাও সেট করে নিন।

tranmssion-enable-web-guiসেটিংস সেভ করার জন্য উইন্ডোটা ক্লোজ করুন। টেস্টিংয়ের জন্য লোকাল নেটওয়ার্কের অন্য একটা পিসির ওয়েব ব্রাউজার থেকে টরেন্ট পিসির আইপি, তারপর একটা কোলন তারপর আপনার দেয়া পোর্ট নম্বরটা লিখে এন্টার করুন। তাহলেই আপনি ট্রান্সমিশনের ওয়েব ইন্টারফেস একসেস করতে পারবেন।

আপনি যদি আপনার আইপি এড্রেসটা না জেনে থাকেন তবে এটা বের করার জন্য System Preferences এর Network সেকশন এ যান। যেমন এখানে আইপি এড্রেসটা হচ্ছে 192.168.0.5 ।

ip-osx

তবে একটা জিনিস মনে রাখবেন, ওয়্যারলেস কানেকশনগুলোতে সাধারণত আপনার কানেকশন ডিসকানেক্ট করে রিকানেক্ট করলেই নতুন আইপি এড্রেস এসাইন করা হয়। তাই আপনি যদি একই আইপি ব্যবহার করতে চান তবে তাহলে আপনার আইপি এড্রেসটা ফিক্সড আইপিতে পরিবর্তন করে নিতে হবে। এটা আবশ্যিক হয়ে যাবে যখন আপনি আপনার টরেন্ট ক্লায়েন্টকে ইন্টারনেট থেকে কন্ট্রোল করতে চাবেন।

লোকাল নেটওয়ার্কের বাইরে থেকে টরেন্ট ক্লায়েন্ট একসেস করা

আপনার লোকাল নেটওয়ার্কের বাইরে থেকে টরেন্ট ক্লায়েন্টের রিমোট একসেস পেজ ওপেন করার জন্য আপনার রাউটারের সেটিংসটা একটু পরিবর্তন করে নিতে হবে। যাতে আপনার রাউটার দরকারী রিকোয়েস্টগুলো লোকাল পিসিতে ফরওয়ার্ড করে দিতে পারে। আপনার রাউটারের একটা আলাদা আইপি এড্রেস আছে যেটা দিয়ে সে বাইরের পৃথিবীর সাথে যোগাযোগ করে। আমাদেরকে এই দুটোর মাঝে লিংক করে দিতে হবে। এটা করতে হবে যেন রাউটারটা 9091 পোর্টে যে রিকোয়েস্টগুলো রিসিভ করবে সেগুলো যেন লোকাল পিসিতে ফরওয়ার্ড করতে পারে। তাতে পিসি টরেন্ট ক্লায়েন্টের ওয়েব ইন্টারফেস সহ রেসপন্স করতে পারবে।

আপনার রাউটার ইন্টারফেস ওপেন করুন। সবচেয়ে কমন লিংকটা হচ্ছে http://192.168.0.1/ । তবে এজন্য আপনার রাউটারের এডমিন পাসওয়ার্ড প্রয়োজন হবে। এটা রাউটারের ডকুমেন্টেশনেই পেয়ে যাবেন।

port-frowardingরাউটার ইন্টারফেস ভ্যারী করতে পারে। তবে আপনার প্রয়োজন হলো Port Forwarding নামক একটা সেকশনের। এখানে দেখুন অপশনটা সাইডবারে এডভান্সড সেটিংসের ভিতরেই আছে। Add Custom Rule এর ফর্মটা পূরণ করুন। এবার এড বাটন চাপুন। আবারও বলছি এখানেও সেটিংসগুলো আলাদা হতে পারে আপনার রাউটারে। তারপরও যে ঘরগুলো পূরণ করার দরকার হতে পারে সেগুলো হচ্ছেঃ

  • Name: আপনার মনে রাখার সুবিধার জন্য। যেমন এখানে দেয়া হয়েছে “web gui” ।
  • Start Port and End Port: আমরা যেহেতু শুধুমাত্র একটা পোর্ট ব্যবহার করছি তাই Start এবং End দুটোর জন্যই এখানে 9091 দেয়া হয়েছে।
  • Protocol: এটা জাস্ট শিওর হওয়ার জন্য। Both এ সেট করুন।
  • Local IP address: এটা আপনার টরেন্ট মেশিনের আইপি যেটা আপনি আগেই নোট করে রেখেছিলেন। কিছু কিছু ইন্টারফেসের জন্য আপনাকে আইপির পুরো চারটা সেকশনই পূরণ করতে হতে পারে। কিন্তু এখানে শুধুমাত্র শেষের নম্বরটা দিতে হয়েছে।

এবার আপনার এক্সটার্নাল আইপিটা বের করতে হবে। সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে এই ঠিকানায় যানঃ http://whatismyipaddress.com/ এবং সেখানে থাকা নম্বরটা কপি করে রাখুন।

whatismyipএটা কাজ করছে কিনা সেটা টেস্ট করার জন্য আপনার মোবাইলের ওয়াইফাই অফ করে দিন। এটা মোবাইলকে 3G বা EDGE ব্যবহার করার জন্য ফোর্স করবে। এবার মোবাইলের ব্রাউজার থেকে http://(your external IP):9091 ( বা আপনার দেয়া পোর্ট) ঠিকানায় যান। আপনি যদি uTorrent ব্যবহার করে থাকেন তবে অবশ্য শেষে /gui/ যোগ করে দিবেন।

এটা দেখুন, ফুল ফাংশনাললি সেটআপ করা শেষ।

web-gui-workingএখন আপনি খুব সহজেই আপনার মোবাইল থেকে ইন্টানেটের মাধ্যমে আপনার টরেন্ট ক্লায়েন্টকে পরিপূর্ণভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। টরেন্ট আপলোডও করতে পারবেন মোবাইল থেকেই।

হ্যাপি ডাউনলোডিং।

ধন্যবাদ সবাইকে। ভাল থাকুন।

comments

4 কমেন্টস

  1. আমাকে একটু হেল্প করুন IPv4 নাই তবে IPv6 আছে।
    স্ক্রিন শট দিলাম

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.