বর্তমানে বাজারে স্মার্টফোন এবং ট্যাব অনেক বেশি জনপ্রিয় ডিভাইস কারন এর নানাবিধি ব্যাবহার এবং ফিচারের কারনে। এতোগুলা ফিচারের মদ্ধে সবথেকে উল্লেখ যোগ্য যে ফিচার সেটি হচ্ছে এর টাচস্ক্রীন। এখন আর আপনাকে আগের মতো  ফোনের বাটান চেপে কাজ করতে হবেন শুধু একটা টাচ করলে আপনার কাজ হয়ে যাবে, আর বাড়তি যে ফিচার গুলা আছে সেগুলা আপনাদের সকলেরই কম বেশি যানা।

wrong touch on screen

এতো গেল সুবিধার কথা এবার শুনুন এর মারাত্তক কিছু সমস্যার কথা। খুব কম স্মার্টফোন ইউজার আছেন যারা তাদের স্মার্ট ডিভাইজটি নিয়ে কিছু কমন সমস্যায় পরেন নি। যেমন একজনকে ম্যাসেজ পাঠাবেন কিন্তু ভুল জায়গায় টাচ পরে সেটি চলে গেলো অন্য জনার কাছে। ফেবুতে যে পোস্টটি লাইক দিতে চাননি কিন্তু পেজ স্ক্রোল করতে যেয়ে সেটিতে লাইক পরে গেছে। এই কমন সমস্যা গুলতে পড়েননি এমন খুব মানুষই আছেন। তাহলে এখন কি করবেন? স্মার্ট দিভাইজ ব্যাবহার করা বন্ধ করে দিবেন। না আপনার ব্যাবহার বন্ধ করতে হবে না কারন কারন ২ জন গবেষক এবার এমন প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছে যে আপনি যতই ভুল অপশনে টাচ করেন কাজ হবে না। এই অভিনব প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছে নোকিয়া কোম্পানির দুই গবেষক- জুহা মাটেরো এবং আশলি কোলি। তারা এমন একটা চৌকস সফটঅয়্যার তৈরির কথা বলেছেন যেটি বুঝতে পারবে, কখন ভুল করে চাপ পড়েছে টাচস্ক্রিনে।

wrong touch on screen

 

গবেষণা করে দেখা গিয়েছে যে, প্রায় ৫০০০ টাচ এর ভেতরে ৩০% টাচ ভুল করে পরে অথবা অনিচ্ছাকৃত। আর এই পরিসংখ্যান কে কাজে লাগিয়ে গবেষকেরা একটি নতুন সফটওয়্যারে তৈরি করেছে যেটি এই ভুল করার সংখ্যা একেবারে কমিয়ে নিয়ে আসবে। এটি কাজ করবে এমন ভাবে যে আপনি যদি এই সফটওয়্যারে অন রাখেন তবে আপনার যে স্থানে প্রয়োজন শুধু সেখান টাচ করলে কাজ হবে। যেমন আপনি কোন মেইল পাঠাবেন তখন শুধু সেন্ড অপশনে টাচ করলে কাজ হবে অন্য কোথাও করলে হবেনা। এখনো পর্যন্ত এই সফটওয়্যারে টি পরীক্ষামূলক ভাবে চালানো হচ্ছে আর এটির আরও কিছু মোডিফাই দরকার আছে। একবার কাজ গুলা সফল ভাবে সম্পন্ন করা হয়ে গেলে এটি সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে। আর আশা করা হচ্ছে এই আপসটি সবার জন্য ফ্রি হবে এবং আন্ড্রয়েড ও ম্যাক ও উইন্ডোজ সব প্লাটফর্মের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে।

comments

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Time limit is exhausted. Please reload the CAPTCHA.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.